ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

অবরোধে চবিতে ক্লাস পরীক্ষা হয়নি : পরে প্রত্যাহার

| প্রকাশের সময় : ২০ ডিসেম্বর, ২০১৭, ১২:০০ এএম

চবি সংবাদদাতা : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের একাংশের ডাকা লাগাতার অবরোধের প্রথমদিনে গতকাল (মঙ্গলবার) চবিতে ক্লাস বা পরীক্ষা কোনটা হয়নি। শাটল ট্রেন ও শিক্ষক বাস চলেনি। ভোর ৪টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে ও টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করে তারা। সকাল সাড়ে সাতটার ট্রেন চট্টগ্রাম রেল স্টেশন থেকে ক্যাম্পাসে যাওয়ার পথে ঝাউতলা জংশনে আসলে ট্রেন আটকে একটি বগির হুইসপাইপ কেটে দেয় অবরোধকারীরা। তবে বেলা বাড়ার সাথে সাথে অবরোধকারীদের আর মাঠে দেখা যায়নি। বিকেল তিনটার দিকে চবি ভিসির আশ্বাসে অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়।
চবি ছাত্রলীগের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি মোঃ আলমগীর টিপু বলেন, ভিসি স্যার বলেছেন, তিনি এ মামলা সম্পর্কিত বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলবেন এবং সুষ্ঠু তদন্ত করে ঘটনার সঠিক রহস্য উদঘাটন করবেন। এ আশ্বাসে আমরা অবরোধ প্রত্যাহার করেছি। তবে আমাদের প্রতিদিনের কর্মকান্ড বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন, সভা সমাবেশ, কালো পতাকা মিছিল চলবে। এদিকে শিক্ষক আনোয়ার হোসেনের অপসারণের দাবিতে ক্যাম্পাসে মিছিল করেছে দিয়াজের অনুসারী ও বাংলার মুখ গ্রুপের নেতাকর্মীরা। এসময় তারা আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে নানা ধরনের সেøাগান দিতে থাকে। দিয়াজের অনুসারী ও বাংলার মুখ গ্রুপের নেতা মোঃ মামুন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী কোন শিক্ষক গ্রেফতার হলে তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়। তাই আমরা আনোয়ার হোসেনের অপসারণের দাবিতে মিছিল করছি।
উল্লেখ্য, দিয়াজ হত্যা মামলার আসামি চবির সাবেক সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেন গত সোমবার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুন্সী মশিউর রহমানের আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। এসময় আদালত শিক্ষক আনোয়ার হোসেনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এরপর চবি ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি ও দিয়াজ হত্যা মামলার আরেক আসামী আলমগীর টিপুর অনুসারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে ও রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে। লাগাতার অবরোধের ডাক দেয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন