ঢাকা, মঙ্গলবার , ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

দেশে ফিরলো সাইক্লিং দল

| প্রকাশের সময় : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস রিপোর্টার : এশিয়ান ট্র্যাক সাইক্লিং চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ শেষে মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফিরলো জাতীয় সাইক্লিং দল। গতকাল দুপুর ১টায় ঢাকায় ফিরে আসে দলটি। দেশে ফিরেই জাতীয় সাইক্লিং দলের কোচ আবদুল কুদ্দুস জানান, ঘরের ট্র্যাক থেকে বিদেশের ট্র্যাকে সময়ের উন্নতি ঘটেছে বাংলাদেশের সাইক্লিস্টদের। ৫০০ মিটার টাইম ট্রায়াল ও ২০০ মিটার স্প্রিন্টে লাল-সবুজের সাইক্লিস্টরা সময় কমিয়ে আনা ছাড়াও টুর্নামেন্টে ২২দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ১৩তম স্থান পেয়েছে।
গত ১৫ ফেব্রæয়ারি এশিয়ান ট্র্যাক সাইক্লিং চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিতে ৭ সদস্যের বাংলাদেশ দল মালয়েশিয়া যায়। দলে চার নারী সাইক্লিস্টের সঙ্গে ছিলেন তিন কর্মকর্তা। সাইক্লিস্টরা হলেন- সমাপ্তি বিশ্বাস, শিল্পী খাতুন, নিশি খাতুন ও মোছাম্মত সামান্তা। এছাড়া দলের ম্যানেজার হিসেবে মালয়েশিয়া যান বাংলাদেশ সাইক্লিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ হাসান, কোচ আবদুল কুদ্দুস এবং মেকানিক হিসেবে গিয়েছিলেন ফারহানা সুলতানা শিলা। প্রতিযোগিতায় ৫০০ মিটার টাইম ট্রায়াল, দলগত স্প্রিন্ট, ১০০০ মিটার স্প্রিন্ট ও ব্যক্তিগত পারস্যুটে অংশ নেয় বাংলাদেশ। ৫০০ মিটার টাইম ট্রায়ালের জুনিয়র বিভাগে ৪৪ সেকেন্ড সময় নেন লাল-সবুজের প্রতিভাবান নারী সাইক্লিস্ট নিশি খাতুন। ঘরোয়া আসরে এই ইভেন্টে তিনি সময় নিয়েছিলেন ৪৯ সেকেন্ড। সিনিয়রে শিল্পি খাতুন ৪৩ সেকেন্ড সময় নিয়েছেন। ঘরোয়া আসরে যা ছিল ৪৯ সেকেন্ড। ২০০ মিটার স্প্রিন্টের সিনিয়রে দেশে মেয়েদের টাইমিং ছিল ১৬ সেকেন্ড। এই ইভেন্টে এবার মালয়েশিয়ায় শিল্পি খাতুন করেন ১৪ সেকেন্ড। আর জুনিয়রে নিশি খাতুন সময় নিয়েছেন ১৫ সেকেন্ড। কোচ কুদ্দুস বলেন, ‘ভেলোড্রাম আমাদের নেই বলে মেয়েরা ভালো কিছু করে দেখাতে পারেনি। এরকম টুর্নামেন্টের আগে অন্তত এক সপ্তাহ অনুশীলনের প্রয়োজন। কিন্তু আমাদের দেশে ভেলোড্রামের তেমন সুবিধা নেই। তাই মেয়েরা ভালো ফল করতে পারেনি।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন