ঢাকা, সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৯ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

‘গুজব’ পেছনে ফেলে ক্যাম্পে তাসকিন

আত্মবিশ্বাস আর ধারাবাহিতকায় জোর

| প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস রিপোর্টার : গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষেই দীর্ঘদিনের বান্ধবী সৈয়দা রাবেয়া নাঈমার সঙ্গে বিয়ের পিড়িতে বসেন জাতীয় দলের তরুণ পেসার তাসকিন আহমেদ। বেশ ঘটা করে বিয়ে না করলেও ওইদিনই তাঁর বিয়ের খবর ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বিয়ের তিন মাসের মধ্যে নতুন অভিযোগ উঠেছে তাসকিনের নামে।
সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে, তাসকিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠে স্ত্রী রাবেয়া নাঈমাকে পেটানোর। খবরটি ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপারটি অনেকেই নেতিবাচকভাবে দেখছেন। তবে বিষয়টি কতটুকু সত্যি? স্ত্রী পেটানোর অভিযোগের সংবাদ কি তাসকিন-নাঈমা দেখেছেন? তবে খবরটি চোখে পড়েছে তাসকিন আহমেদের। খবরটি পড়ার পর পোর্টালগুলোকে একহাতে নিলেন এই জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার। বিষয়টিকে পুরোপুরি গুজব দাবি করেন নিজে। সেই সাথে পোর্টালগুলো নিজেদের নিউজ হিট করানোর জন্যই এমন খবর করেছে দাবি তাসকিনের। সেই সাথে জানান, স্ত্রী রাবেয়া ও পরিবার নিয়ে বেশ ভালোই রয়েছেন এই পেস তারকা, ‘এটা মোটেও সত্যি নয়। প্রথম আমি নিজে দেখেও হাসছি। এখন ফেসবুকের যুগ, মানুষ যা দেখে সেটিই বিশ্বাস করে। যারা এসব করে, ওদের পরিবারের ঠিক নাই, কোন আত্মসম্মান নাই। এটা নিয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি নই। নিজেদের নিউজ হিট করানোর জন্যই এমন মিথ্যা নিউজ প্রকাশ করেছে। এটা হয়তো আজকে আমাকে নিয়ে লিখছে, কাল আরেকজনকে নিয়েও লিখতে পারে। নিউজটি সত্য হলে আরও বড় পোর্টালগুলো নিউজ করতো। তবে আল্লাহর রহমতে পরিবার নিয়ে অনেক ভালো আছি। এইগুলো নিয়ে ভয় পাই না।’
অফ-ফর্মের কারণে আপাতত জাতীয় দলের বাইরে রয়েছেন তাসকিন। জাতীয় দলের হয়ে সর্বশেষ ম্যাচ খেলেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে। সেখানে ব্যর্থ হওয়ার পর পারফর্ম করতে পারেননি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-টোয়েন্টিতেও। যার কারণে বাদ পড়েছিলেন ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয়, টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে। তবে শ্রীলঙ্কায় নিহাদাস ট্রফিকে সামনে রেখে কোর্টনি ওয়ালশের অধীনে পেসারদের নিয়ে বিশেষ ক্যাম্পে ডাক পড়েছে তারও। গতকাল প্রথম দিন গুরুর সামনে নেটে বোলিং করেছেন এই গতি তারকা। পাশাপাশি খেলছেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল)। সেই সাথে জাতীয় দলে ফেরার জন্য যথেষ্ট পরিশ্রমও করছেন এই পেসার, ‘চেষ্টা তো করেই যাচ্ছি। বাকিটা আল্লাহর ইচ্ছে।’

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন