ঢাকা, রোববার , ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১০ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

২৯ মার্চ কোটালীপাড়া পৌর নির্বাচন

কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্ব›দ্বী ২৭ জন

| প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০১৮, ১২:০০ এএম

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা
আগামী ২৯ মার্চ গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে সাতটির মধ্যে আটটি সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ২৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বিদ্বতা করছেন। প্রার্থীরা হলেন- ২ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম, সাবেক কাউন্সিলর হুময়ুন কবির, মো: মিরাজ হোসেন ও বদিউজ্জামান বাবু। এদের মধ্যে জাহিদুল ইসলাম সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে প্রচার প্রচারণায় এগিয়ে রয়েছেন। ওই ওয়ার্ডের ভোটার বলেছেন, আমরা চলমান পরিস্থিতির পরিবর্তন চাই এবং যোগ্য ব্যক্তিকে নির্বাচিত করতে চাই। ৪ নং ওয়ার্ডে রতন কুমার আচর্য্য, ইমারন সিকদার, এস এম মিজানুর রহমান ও আরিফ শেখ প্রতিদ্িিদ্বতা করছেনঅ এদের মধ্যে মিজানুর রহমান মিঠু সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে যোগ্যতার দিক থেকে প্রচার প্ররোচণায় বেশ এগিয়ে রয়েছেন, ওয়ার্ডবাসী জানিয়েছেন আমরা বর্তমান পরিস্থিতির ইতিবাচক পরিবর্তন চাই এবং যোগ্য ব্যক্তিকে নির্বাচিত করতে চাই। ৫ নং ওয়ার্ডে কৃষ্ণ চন্দ্র দে, দুলাল চন্দ্র সাহা, আশরাফউজ্জামান ও জয়ন্ত ঘরামী প্রতিদ্বিদ্বতা করছেন। এদের মধ্যে সাবেক কাউন্সিলর কৃষ্ণ চন্দ্র দে ও দুলাল চন্দ্র সাহা দুজনেই বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছেন। ৬ নং ওয়ার্ডে চিনময় রত্ন, রফিকুল ইসলাম ও সঞ্জয় কুমার মজুমদার প্রতিদিিিদ্বতা করছেন। এদের মধ্যে সঞ্জয় কুমার মজুমদার এগিয়ে রয়েছেন। ৭ নং ওয়ার্ডে বিভ‚তি রত্ন, শহিদুল শরীফ, জয়নাল মিয়া, আলম সিকদার ও আক্তারুজ্জামান প্রতিিিিিদ্বতা করছেন, এদের মধ্যে আক্তারুজ্জামান জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন। ৮ নং ওয়ার্ডে স্বপন কুমার বসু, ফিরোজ শেখ, আলম গাজী, সাইফুল গাজী, প্রতিিিিিদ্বতা করছেন। ৯ নং ওয়ার্ডে ওয়ালিউর রহমান, বাবুল মোল্লা ও কামাল দাড়িয়া প্রিিিিিিদ্বতা করছেন, এদের মধ্যে কামাল দাড়িয়া রাজনৈতিক ভাবে ও যোগ্যতার দিক দিয়ে এগিয়ে রয়েছেন বলে ভোটাররা জানিয়েছেন। তারা বলেন, আমরা বর্তমান পরিস্থিতির ইতিবাচক পরিবর্তন চাই এবং মেয়রের মতো যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে চাই। এদিকে ১ নং ওয়ার্ডে দুই প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থীর মধ্যে সাবেক কাউন্সিলর মোশাররফ হোসেনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেয়ায় নাসির উদ্দিন সরদার ও ৩ নং ওয়ার্ডে কামাল হোসেন সরদারের মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় আল-আমিন সরদার বিনা প্িিিিিিিদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছেন। প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পরই পোস্টারের মাধ্যমে তারা তাদের পরিচিতি ও যোগ্যতা তুলে ধরে, ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা করছেন। নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, ততই প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন তারা। এবারের কাউন্সিলর নির্বাচনকে কম গুরুত্ব দিচ্ছেন না ভোটাররা, কারণ তারা এটাকেও মেয়রের মতো গুরুত্বপূর্ণ মনে করে পৌরসভার কাক্সিক্ষত স্বপ্ন পূরণে সমস্ত ওয়ার্ডে পরিবর্তন চায়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন