ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

অভ্যন্তরীণ

ফুলপুরে টোল আদায়কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনায় ৩৯ জনকে আসামি করে মামলা

প্রকাশের সময় : ৫ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা
ফুলপুর পৌরসভার আমুয়াকান্দা মোড়ে অটোরিকশার টোল আদায়কে কেন্দ্র করে ফুলপুর সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতিতে হামলা, ভাঙচুর, ছিনতাই ও কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় ২৯ জনের নামসহ অজ্ঞাত ৮/১০ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। জানা যায়, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হাসপাতাল রোডে টোল না দেয়ায় দিউ গ্রামের মানিকের লোকজন আনারুল নামে এক অটো রিকশা চালককে ধাওয়া করে জাহাঙ্গীরের দোকানে উঠায়। একপর্যায়ে চালককে মারধর ও জাহাঙ্গীরের দোকান ভাঙচুর করে। এ সময় উভয় পক্ষের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। গত বুধবার দুপুরে জাহাঙ্গীরের চাচাত ভাই আজাহারুল হক রিপন ও দেলোয়ার দোকানে আসার সময় প্রতিপক্ষ পিটিয়ে আহত করে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে রিপনের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মানিকের লোকজনকে ধাওয়া করে ফুলপুর সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি কার্যালয়ে উঠায় এবং ফরিদুল ইসলাম, শাজাহান, সাইফুল ইসলাম, তরিকুল ইসলাম, সারোয়ার হোসেনসহ দিউ গ্রামের আব্দুল খালেক ও আব্দুল কাদিরকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। ফুলপুর সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি কার্যালয়ে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। গুরুতর আহত আব্দুল খালেক বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধী রয়েছেন। এ ঘটনায় আহত আব্দুল খালেকের পুত্র মোঃ আবু হানিফ বাদী হয়ে দিউ গ্রামের একেএম সিরাজুল হক, একেএম ওবায়দুল হক, একেএম মোফাজ্জল হক, মফিদুল হক, আজাহারুল হক রিপন, সাদেকুল হক, তোজাম্মেল হক রুবেল, একেএম রয়েল, একেএম জনি হক, একেএম আয়নুল হক, একেএম দুর্বার, সুমন মিয়া, শমসের আলীসহ ২৯ জনের নাম ও অজ্ঞাত ৮/১০ জনের বিরুদ্ধে গত ৩০ মার্চ ফুলপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন