সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ০৯ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

প্রচন্ড কালবৈশাখীতে খুলনা লন্ডভন্ড

প্রকাশের সময় : ৬ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা, খুলনা থেকে : হঠাৎ প্রচন্ড কালবৈশাখীতে খুলনা ল-ভ- হয়ে গেছে গতকাল মঙ্গলবার রাতে। পৌনে ৮টার দিকে শুরু হয়ে মাত্র ২০ মিনিটের ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে খুলনাঞ্চলে। নিহতের খবর পাওয়া না গেলেও, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত খুলনা জেলা ও মহানগরীসহ বৃহত্তর খুলনাঞ্চলের বিভিন্ন স্থান থেকে লোকজন আহত, ঘরবাড়ি ভেঙে যাওয়া, গাছ পড়ে রাস্তা বন্ধ ও বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনে নানান ত্রুটির কথা জানা যায়। রাত সাড়ে নয়টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত খুলনাঞ্চলের কোথাও বিদ্যুৎ ছিল না।
গতকাল খুলনার সার্কিট হাউজে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা চলছিল। হঠাৎ ঝড়ের সময় মেলায় ব্যাপক জনসমাগম ছিল। সেখানে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ও আহতের খবর শোনা গেছে। এছাড়া বাংলাদেশ বেতার খুলনার সামনে, খালিশপুর ও দৌলতপুর থানার সামনের সড়কে গাছ পড়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খুলনা মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় এবং জেলার রূপসার সেনহাটি, দিঘলিয়া, কয়রা, দাকোপ ও বটিয়াঘাটা উপজেলায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।
আবহাওয়া অধিদপ্তর খুলনার ইনচার্জ আমিরুল আজাদ বলেন, খুলনাঞ্চলে ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড় প্রবাহিত হয়েছে। সেই সাথে হালকা ও মাঝারী ধরনের বৃষ্টিসহ বজ্রপাত হয়েছে।
সিলেটে কালবৈশাখী ঝড়ের তা-ব
সিলেট অফিস : সিলেটে তা-ব চালিয়েছে কালবৈশাখী ঝড়। গতকাল (মঙ্গলবার) দুপুরে ঝড়ের তা-বে সিলেটের বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া কালবৈশাখী ঝড়ের মধ্যেই মৃদু ভূমিকম্পও হয়েছে।
সিলেটের বিশ্বনাথ, বিয়ানীবাজার, গোয়াইনঘাট, জকিগঞ্জ, বালাগঞ্জ, ওসমানীনগর উপজেলায় খবর নিয়ে জানা যায়, এসব এলাকায় মঙ্গলবার সকাল থেকে তীব্র বৃষ্টি হচ্ছে। এরই মধ্যে দুপুরে আঘাত হানে কালবৈশাখী ঝড়। ঝড়ের তা-বে বিভিন্ন এলাকায় কাঁচা ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়। অনেক ঘরের টিনের চাল উড়ে গেছে। বিভিন্ন এলাকায় বড় বড় গাছগাছালি উপড়ে পড়েছে।
এদিকে কালবৈশাখী ঝড়ের তা-বে এসব এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। সিলেট নগরীতেও চলছে বিদ্যুৎ বিভ্রাট।
রাজশাহীতে শীলাবৃষ্টি
রাজশাহী ব্যুরো : রাজশাহীতে গতকাল বিকেলে শীলাবৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া সারাদিন রৌদ্রোজ্জ্বল থাকলেও দুপুরের পর থেকে হঠাৎ আকাশে কালো মেঘ জমে ওঠে। এরপর ঝড়ো হাওয়াসহ শীলাবৃষ্টি শুরু হয়। এতে কর্মস্থল থেকে বাড়ি ফিরতে দুর্ভোগে পড়েন সাধারণ মানুষ। রাজশাহী আবহাওয়া অফিস জানায়, মঙ্গলবার বিকেল ৪টা ৭ মিনিট থেকে বিকেল ৫টা ৫৫ মিনিট পর্যন্ত ভারী বৃষ্টিপাত হয়। এর পর থেকে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হয়। এ সময় রাজশাহীতে ৯ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাজশাহীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৪ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন ছিল ২৪ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন