ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

১৩.৫০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ অনুমোদন

এসবিএসি ব্যাংকের এজিএম অনুষ্ঠিত

| প্রকাশের সময় : ১১ মে, ২০১৮, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স (এসবিএসি) ব্যাংকের ৫ম বার্ষিক সাধারণ সভা ( এজিএম) বৃহস্পতিবার রাজধানীর রেডিসন বøু হোটেলে ব্যাংকের চেয়ারম্যান এস এম আমজাদ হোসেন-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ব্যাংকের নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান ক্যাপ্টেন এম. মোয়াজ্জেম হোসেন, ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান মাকসুদুর রহমান, পরিচালক আব্দুল কাদির মোল্লা, বেগম সুফিয়া আমজাদ, মোঃ আমজাদ হোসেন, আলহাজ্ব মিজানুর রহমান, মোহাম্মাদ নেওয়াজ, ইঞ্জিনিয়ার মোখলেসুর রহমান, তাহমিনা আফরোজ, স্বতন্ত্র পরিচালক ড. সৈয়দ হাফিজুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন- ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী মো. গোলাম ফারুক। প্রধান সভায় ২০১৭ সালের আর্থিক বিবরণী এবং শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১৩ দশমিক ৫০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ অনুমোদন করা হয়।
আর্থিক বিবরণীতে দেখা যায়, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত এসবিএসবি ব্যাংকের আমানতের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ১২ কোটি টাকা, যা গত বছরের তুলনায় ২৩ দশমিক ৫২ শতাংশ বেশি। এসময়ে ব্যাংকের মোট ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৩২৮ কোটি টাকা, যা এর আগের বছরের তুলনায় ৩০ শতাংশ বেশি। ২০১৭ সালে এসবিএসি ব্যাংক ১৮২ কোটি টাকার পরিচালন মুনাফা করেছে। এসময়ে ব্যাংক উল্লেখ্যযোগ্য পরিমাণের আমদানি, রফতানি ও রেমিট্যান্স আহরণ করেছে।
সভায় চেয়ারম্যান এস. এম. আমজাদ হোসেন বলেন, ব্যাংক একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। এখানে কর্মকর্তাদের নিত্যনতুন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সঙ্গে টিকে থাকতে হয়। সে জন্য এ খাতে দক্ষ ও সৎ কর্মকর্তা খুবই প্রয়োজন। ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী মো. গোলাম ফারুক বলেন, নতুন প্রজন্মের ব্যাংকগুলোর মধ্যে এসবিএসি ব্যাংক সবসূচকে এগিয়ে রয়েছে। গতবছরে আমরাই সর্বাধিক মুনাফা অর্জন করেছি। আর নতুন বছরে পরিপালন সংস্কৃতি গড়ে তুলছি। বাংলাদেশ ব্যাংকের সবধরনের নীতিমালা সম্পূর্ণরূপে পরিপালন করে আমরা এগিয়ে যেতে চাই। সেই সঙ্গে গ্রাহকের স্বার্থ সংরক্ষণের মাধ্যমে একটি আস্থার প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হবে। তিনি জানান, বর্তমানে আমাদের আমানতকারীর সংখ্যা এক লাখ ৫৩ হাজার, এই সংখ্যা চলতি বছরে দুই লাখ ছাড়িয়ে যেতে চাই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন