ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

ভেড়ামারায় ২১ দিনেও গ্রেফতার হয়নি ছুরিকাঘাত মামলার আসামি বাড়ছে ক্ষোভ

প্রকাশের সময় : ১০ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া) উপজেলা সংবাদদাতা
ভেড়ামারা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মেহরাব হোসেন শান্ত (১৪) কে হত্যার উদ্দেশ্যে ছুরিকাঘাত করার ঘটনার ২১ দিনেও কোনো আসামিকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। অথচ প্রকাশ্যেই ঘুরে বেড়াচ্ছে আলোচিত ঘটনার প্রধান আসামি রাকিন ইয়াসির। সন্ত্রাসী রাকিনকে গ্রেফতার না করায় ক্ষুব্ধ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। তারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে এসে কঠোর শাস্তি দেওয়ার জোর দাবি জানিয়েছে। উল্লেখ্য, গত ২১ মার্চ বিদ্যালয় চলাকালীন শত শত শিক্ষার্থীর সামনেই বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর মেধাবী শিক্ষার্থী মেহরাব হোসেন শান্তকে ছুরিকাঘাত করে ওই স্কুলেরই ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী রাকিন ইয়াসির। হত্যার উদ্দেশ্যে বুকে এবং পেটে পর পর দুটি জায়গায় ছুরিকাঘাত করে একটি মোটরসাইকেলে পালিয়ে যায় কিশোর সন্ত্রাসী রাকিন। ধারণা করা হয়, রাকিন এক ছুরিকাঘাত করলেও তার সঙ্গে রয়েছে একটি সংঘবদ্ধ গ্রুপ। এ ঘটনার পর বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ শান্তকে দ্রুত উদ্ধার করে প্রথমে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানেই দীর্ঘদিন চিকিৎসার পর কিছুটা সুস্থ হয়ে ভেড়ামারা ফিরে আসে। এরপর হঠাৎ করে আবার বুকের ক্ষত স্থান দিয়ে রক্ত বের হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহীতে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তার অবস্থা শঙ্কামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন তার পিতা মাহবুব হোসেন। এদিকে এ ঘটনার পরই ফুঁসে ওঠে শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকরা। তারা দ্রুত সন্ত্রাসী রাকিনকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন। আলোচিত এই মামলার তদন্তকারী অফিসার ভেড়ামারা থানার এসআই রিফাজ উদ্দিন জানিয়েছেন, মামলার প্রধান আসামি রাকিন ইয়াসিন আত্মগোপনে রয়েছে। তাকে পাওয়া যাচ্ছে না। তাকে গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন