ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

রোডসই বাংলাদেশের কোচ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ জুন, ২০১৮, ১২:০০ এএম

চন্ডিকা হাথুরুসিংহে চলে গেছেন তাও প্রায় মাস আটেক আগের গল্প। এরপর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সে দায়িত্বে নতুন কাওকে বসাতে কালক্ষেপন করেছে বেশ। এই সময়ের মধ্যে আশার বাণী শুনিয়েছে অনেক, ফায়দা হয়নি কোন। তবে গতকাল এলো কাক্সিক্ষত সেই ক্ষণ। সাকিব-তামিমদের বস হিসাবে পাকাপাকিভাবে নিয়োগ দেওয়া হলো স্টিভ রোডসকে। গতকাল রোডসের সঙ্গে আলোচনা করার পর এ ঘোষণা দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।
গতকাল সকালেই ঢাকায় পা রাখেন রোডস। দুপুরে বিসিবি সভাপতির সঙ্গে নিজের কর্ম পরিকল্পনা উপস্থাপনা করেন তিনি। সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা এই কোচের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনার পর তাকে নিশ্চিত করেন বোর্ড প্রধান, ‘আপনারা হয়তো আগেই জেনেছেন স্টিভ রোডসের নাম, তিনি আমাদের টপ লিস্টে ছিলেন। গ্যারি কার্স্টেনের লিস্টেও ছিলেন। আজকে (গতকাল) তার সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। কথা বলে আমরা দুই পক্ষই সন্তুষ্ট। এখন থেকে বাংলাদেশের নতুন কোচ কোচ স্টিভ রোডস।’
রোডসকে কোচ বানানোর পেছনে যুক্তি তুলে ধরে পাপন আরও বলেন, ‘আমরা ২০২০ টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত রোডসকে মূল কোচের দায়িত্ব দিয়েছি। আমরা আগেই এ নিয়ে কাজ করেছি। তিন জনের একটা লিস্ট ছিলো। সব কিছু আগেই নিশ্চিত ছিলো। সামনা সামনি আজকেই কথা বললাম। সবচেয়ে বড় কথা এখনই তাকে পাওয়া যাবে। ঈদের পর ২০ আগস্ট থেকে সে যোগ দিচ্ছে। আর সে বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়মিত ফলো করে। এটা বড় একটা ব্যাপার।’
ইংলিশ ক্রিকেটে দারুণ পরিচিত মুখ রোডস। খেলোয়াড়ি জীবনে ছিলেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। ইংল্যান্ডের হয়ে খেলেছেন ১১ টেস্ট ও ৯ ওয়ানডে। আরও অনেক সমৃদ্ধ ক্যারিয়ার প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে। ১৯৮১ সালে ইয়র্কশায়ারের হয়ে কাউন্টি ক্যারিয়ার শুরু করলেও পরে থিতু হন উস্টারশায়ারে। ১৯৮৫ থেকে ২০০৪ সালে ক্যারিয়ারের শেষ পর্যন্ত খেলেছেন উস্টারেই। ১৯৯৪ সালে হয়েছিলেন উইজডেন বর্ষসেরা ক্রিকেটার।
২০০৬ সালে কোচ হিসেবে উস্টারে শুরু হয় তার নতুন অধ্যায়। কোচিং ক্যারিয়ারের সাফল্য ছাড়িয়ে যায় খেলোয়াড়ি ক্যারিয়ারকেও। টানা প্রায় এক যুগ পালন করেছেন ডিরেক্টর অব ক্রিকেটের দায়িত্ব। বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান তার কোচিংয়ে দুই মৌসুম খেলেছেন উস্টারে। দলটির সঙ্গে তার ৩৩ বছরের সম্পর্কে ছেদ পড়েছে গত জানুয়ারিতে অনাকাক্সিক্ষতভাবে। তরুণ ক্রিকেটার অ্যালেক্স হপবার্নের ধর্ষণ মামলার কথা দীর্ঘসময় ক্লাব কর্তৃপক্ষকে না জানানোয় বরখাস্ত করা হয় তাকে।
তবে তরুণ প্রতিভা খুঁজে বের করা ও গড়ে তোলায় রোডসকে দারুণ কার্যকর বলে মনে করা হয়। উস্টারকে গত বছর কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় ধাপ থেকে প্রথম ধাপে তুলেছিলেন মূলত নিজেদের গড়ে তোলা ক্রিকেটারদের দিয়েই। উস্টার অধ্যায় চুকেবুকে যাওয়ার পর তার অভিজ্ঞতাকেই কাজে লাগাচ্ছিল ইংল্যান্ডের বোর্ড। তরুণ প্রতিভা অন্বেষণের দায়িত্ব ছিল তার। এবার তার নতুন অভিযান শুরু বাংলাদেশে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
পারভেজ ৮ জুন, ২০১৮, ২:০৯ এএম says : 0
বাংলাদেশের এখন কোচের খুবই দরকার
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন