ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

মহানগর

দশ দিনের মধ্যে হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলা মামলার চার্জশীট

ইনকিলাব রিপোর্ট | প্রকাশের সময় : ২৮ জুন, ২০১৮, ৮:০৪ পিএম

গুলশানে হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলার মামলার তদন্ত শেষ পর্যায়ে, আগামী ১০ দিনের মধ্যে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হবে বললেন ডিএমপি কমিশনার।

২০১৬ সালে ১লা জুলাই রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজানে নৃশংস হত্যাযজ্ঞ চালায় একদল জঙ্গি। এ মর্মান্তিক ঘটনায় রুজুকৃত মামলা তদন্ত করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট। নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনা, প্রশিক্ষণ, অস্ত্র-বোমা সংগ্রহ ও সমন্বয়সহ বিভিন্ন পর্যায়ে জড়িত অপরাধীদের সনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট। আগামী ৭-১০ দিনের মধ্যে এ ঘটনায় মামলার অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করা হবে বলে জানান কমিশনার।

ডিএমপি’র সদর দপ্তরে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে ডিএমপি কমিশনার জানান, ২০১৬ সালে হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলার ঘটনা একটি মর্মান্তিক হত্যাকান্ড। বাংলাদেশকে অকার্যকর করা, বিদেশীদের মধ্যে ভয় ত্রাস সৃষ্টি করা বিশেষ করে দেশের চলমান উন্নয়ন ব্যহত করা এবং বিদেশী ক্রেতা ও বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আতংক সৃষ্টি করে সরকারকে পতন করে দেওয়ার ষড়যন্ত্র ছিল। যেহেতু এ নৃশংস ঘটনা রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র সেহেতু অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট এ মামলা তদন্ত করে। এ ঘটনার সাথে জড়িত যারা অভিযানের দিন বা বিভিন্ন পর্যায়ে যারা সংশ্লিষ্ট ছিল তাদের সকলের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করার চেষ্টা করছি। এ মামলা তদন্তকালে বিভিন্ন সংস্থার সহযোগিতা, টেকনোলজি, বিশেষজ্ঞের মতামত, আলামত সংগ্রহ, স্বাক্ষ্য গ্রহণ করে অপরাধীদের চিহ্নিত করা একটি জটিল প্রক্রিয়া ছিল। আমাদের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অভিজ্ঞ অফিসারগণ তদন্তকালে এই ঘটনার পরিকল্পনাকারীদের কার কি কি পার্ট ছিল যেমন- বাস্তবায়নের জন্য অস্ত্র সংগ্রহের জন্য যারা জড়িত, অস্ত্রের উৎস, অর্থের যোগানদাতা, আশ্রয়দাতা, কোর্ডিনেটরদের সকলকে শনাক্তসহ অপরাধীদের সাজা নিশ্চিত করার জন্য ঘটনা সংশ্লিষ্ট আলামত সংগ্রহ করেছে। মামলা তদন্তকার্য শেষ পর্যায়ে । নিরীহ লোক যাতে হয়রানি না হয় সেদিকে লক্ষ রাখা হয়েছে। আগামী দশ দিনের মধ্যে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হবে । ডিএমপি নিউজ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন