ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আ.লীগ জনগণের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে

ফেনীতে পীর সাহেব চরমোনাই

ফেনী জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৮ জুলাই, ২০১৮, ১২:০১ এএম

বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর জনগণের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। মানুষ সুষ্ঠু ও স্বত:স্ফূর্তভাবে ভোট দিতে পারছেনা। ভোটের মাধ্যমে তাদের পছন্দনীয় দল ও প্রার্থীকে বিজয়ী করতে পারছেনা।
গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ফেনীর ঐতিহাসিক মিজান ময়দানে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ফেনী জেলা শাখার উদ্যোগে মাদক, সন্ত্রাস, দুর্নীতি নির্মূল, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন ও ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠার দাবিতে আয়োজিত বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইসলামী আন্দোলনের আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম পীর সাহেব চরমোনাই এসব কথা বলেন।
পীরসাহেব বলেন, তারপরও সাম্প্রতিক সময়ে অনুষ্ঠিত বেশ কয়েকটি নির্বাচনে এদেশের মানুষ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বিকল্প হিসেবে ইসলামী আন্দোলনকে বেছে নিচ্ছে। ইসলামী আন্দোলনের প্রতীক হাতপাখাকে আস্থার প্রতীক হিসেবে গ্রহন করছে। ইসলামের প্রতি জনগণের এই উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখে আল্লাহর রহমতে ইসলামী আন্দোলন দৃঢ়ভাবে বলতে পারে দেশের আগামী দিনের নেতৃত্ব দিবে ইসলামপন্থীরা। বাংলাদেশে ইসলামের এই অগ্রযাত্রাকে কেউ ঠেকাতে পারবে না।
আগামী ৩০ জুলাই দেশের ৩ সিটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী দেয়া হয়েছে। সিটিগুলোতেও মানুষ বিকল্প শক্তি হিসেবে ইসলামী আন্দোলনের দিকে ধাবিত হচ্ছে। তিনি সরকারকে কঠোর হুশিয়ারী করে বলেন, অন্যান্য নির্বাচনের মতো সিটি নির্বাচন গুলোতে এবারও যদি ভোট ডাকাতি হয় তাহলে সরকারকে এর চরম মাশুল দিতে হবে। বাংলাদেশে ইসলামী শক্তির বিজয়ের দ্বার উন্মুচিত হয়েছে। এদেশের মানুষ রাজনৈতিকভাবে ৩য় শক্তি হিসেবে ইসলামকে গ্রহণ করতে শুরু করেছে। দেশে ইসলামী রাষ্ট্র ব্যবস্থা চালু করতে হবে। ই
সলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ফেনী জেলা শাখার সভাপতি মাও কাজী গোলাম কিবরিয়ার সভাপতিত্বে জনসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম-মহাসচিব অধ্যাপক হাফেজ মাও. এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, কেন্দ্রীয় সমাজকল্যান সম্পাদক মাও আতাউর রহমান আরেফী, চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি জান্নাতুল ইসলাম, ইসলামী যুব আন্দোলনের সভাপতি কে এম আতিকুর রহমান, শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের সভাপতি শেখ ফজলুল করীম মারুফ, মাও. মীর আহম্মদ মীরু, মাও. হারুন প্রমুখ।
জনসভা শেষে পীর সাহেব চরমোনাই আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফেনীর তিনটি আসনে ইসলামী আন্দোলনের একক প্রার্থী হিসেবে ফেনী-১ আসনে মাও. কাজী গোলাম কিবরিয়া, সদর আসনে মাও. নুরুল করিম বেলালী ও ফেনী-৩ আসনে মাও আবদুর রাজ্জাককে পরিচয় করিয়ে দেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
Hasan Al Banna ২৮ জুলাই, ২০১৮, ৩:১৯ এএম says : 1
onek din pore akta kajer kotha bolesen
Total Reply(1)
helal ২৮ জুলাই, ২০১৮, ১০:৫৪ এএম says : 0
ভাই, পীর সাহেব সাহেব চরমোনাই সব সময় কাজের কথা বলেন।উনি বাংলাদেশের একমাত্র নীতিবান আদর্শী নেতা।
Arafat Hossain ২৮ জুলাই, ২০১৮, ৩:২০ পিএম says : 0
১০০% সত্য কথা
Total Reply(0)
Titu Khan ২৮ জুলাই, ২০১৮, ৩:২০ পিএম says : 0
অবশেষে পীর এ কামেল মুখ খুললেন
Total Reply(0)
Mohsin Gazi ২৮ জুলাই, ২০১৮, ৩:২২ পিএম says : 0
Right
Total Reply(0)
Sharif Khan ২৮ জুলাই, ২০১৮, ৩:২৩ পিএম says : 0
Yes
Total Reply(0)
মোহাম্মদ শাহীন ফারসী ২৮ জুলাই, ২০১৮, ৫:৩৪ পিএম says : 0
আমি চাই দেশে কুরআন এর আইন কানুন আসুক তাই আমি হাতপাখার দলে এজন্যই যে শুধু মাত্র হাতপাখা খমতায় আসলে কুরআন এর শাসন চালু হবে হাতপাখার শাসক কোনো সাধারণ মানুষ না আমি আমার বয়স বেশী না আমি সৌদি আরবের প্রবাসী জীবনে অনেক অন্যায় কাজ করেছি তাই আমি কুরআন এর শাসক এর সাথে যোগ দিয়ে আমি আমার পাপ গুলো মুছতে চাই ইসলামের জয় হবেই হবে
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন