ঢাকা সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৬ বৈশাখ ১৪২৮, ০৬ রমজান ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

এবার সাফ দ্যুতির অপেক্ষা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

জাকার্তা-পালেমবাং এশিয়ান গেমস ফুটবলে ইতিহাস সেরা পারফরমেন্স করে শনিবার রাতে ইন্দোনেশিয়া থেকে দেশে ফিরে এসেছে বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-২৩ জাতীয় দল। ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে নামলে জামাল ভূঁইয়া বাহিনীকে উষ্ণ সংবর্ধনা জানান বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) কর্মকর্তারা। এবারের এশিয়ান গেমস ফুটবলে বাংলাদেশ গ্রুপ পর্ব টপকে শেষ ষোল’তে খেলার কৃতিত্ব দেখায়। যা গেমসে লাল-সবুজের ফুটবল ইতিহাসে সেরা সাফল্য। ১৯৭৮ সাল থেকে বাংলাদেশ এশিয়াড ফুটবলে নিয়মিত অংশ নিলেও এর আগে কখনো গ্রুপ পর্ব টপকাতে পারেনি। এবার শুধু তারা গ্রুপ পর্বই টপকায়নি, শেষ ষোল’তে সমান তালে লড়েছে দু’বার বিশ্বকাপে খেলা উত্তর কোরিয়ার বিপক্ষে। আসরের ‘বি’ গ্রুপে শক্তিশালী উজবেকিস্তানের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানের হার দিয়ে এবার এশিয়াড শুরু করলেও পরের ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে’র শিষ্যরা গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচে আক্রমাণাত্মক ফুটবল উপহার দিয়ে প্রথমে এগিয়ে থেকে থাইল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলে ড্র করে। আর শেষ ম্যাচে কাতারকে ১-০ গোলে হারিয়ে উঠে যায় প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে। তবে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে আর পেরে উঠেনি বাংলাদেশ। ম্যাচে উত্তর কোরিয়া ৩-১ গোলের জয় পেলে আসর থেকে ছিটকে পড়ে লাল-সবুজরা। শেষ ষোল’র ম্যাচে হারলেও কোরিয়ানদের ছেড়ে কথা বলেনি বাংলাদেশ। ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত লড়াই করেছে তারা। তিনটি গোল হজম করলেও কোরিয়ানদের জালে একবার বল পাঠিয়েছে জামাল ভূঁইয়া বাহিনী। বাংলাদেশের এই লড়াকু পারফরমেন্স নজর কেড়েছে ফুটবলবোদ্ধাদের।
বলা যায় বাংলাদেশের নিরাশার ফুটবলে হঠাৎ করেই আশার বাতি জ্বলেছে। আর সে বাতি জ্বালিয়েছে জাকার্তা-পালেমবাং এশিয়ান গেমসে স্মরণীয় সাফল্য। এশিয়াডের এ সাফল্য নতুন করে আশা জাগিয়েছে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে। এশিয়ান গেমস ফুটবলে বাংলাদেশ এমন একটা সময়ে সাফল্য পেয়েছে যখন সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ কড়া নাড়ছে দরজায়। ইন্দোনেশিয়া থেকে লাল-সবুজের ফুটবল দল দেশে ফেরার সপ্তাহ না ঘুরতেই সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। দুই টুর্নামেন্টের পার্থক্য একটাই-এশিয়াডে খেলেছে অনূর্ধ্ব-২৩ দল (৩ জন সিনিয়র খেলোয়াড়সহ) এবং সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে খেলবে জাতীয় দল।
তৃতীয়বারের মতো সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। আগামী ৪ থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে এই টুর্নামেন্টের খেলা। গ্রুপিং এবং ফিকশ্চার হয়েছে আগেই। সাফ থেকে আফগানিস্তান বের হয়ে যাওয়ায় এবারের টুর্নামেন্ট হচ্ছে সাত জাতির। পাকিস্তানের উপর ফিফার নিষেধাজ্ঞা থাকায় গত আসরেও সাত দল খেলেছে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে। এবারের টুর্নামেন্টে স্বাগতিক বাংলাদেশ খেলবে ‘এ’ গ্রুপে। গ্রুপের অন্য দলগুলো হলো- ভুটান, নেপাল ও পাকিস্তান। ‘বি’ গ্রুপে খেলছে- ভারত, মালদ্বীপ ও শ্রীলঙ্কা। ৪ সেপ্টেম্বর উদ্বোধনী ম্যাচে অংশ নেবে নেপাল ও পাকিস্তান। একই দিন বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলবে ভুটানের বিপক্ষে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন