ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

এবারো সেরা হতে চায় কিশোরীরা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:৪৩ এএম

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বের ‘এফ’ গ্রুপের খেলা শুরু হচ্ছে আজ থেকে। ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিতব্য এ টুর্নামেন্টে স্বাগতিক বাংলাদেশ, সংযুক্ত আরব আমিরাত, লেবানন ও ভিয়েতনাম অংশ নিচ্ছে। উদ্বোধনী ম্যাচে আজ মোকাবেলা করবে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ভিয়েতনাম। কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে সকাল সাড়ে ১১টায় শুরু হবে ম্যাচটি। একই ভেন্যুতে বেলা সাড়ে ৩টায় দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে লেবাবনের প্রতিপক্ষ বাহরাইন। সোমবার বাংলাদেশ তাদের প্রথম ম্যাচ খেলবে বাহরাইনের বিপক্ষে।
টুর্নামেন্টের বাছাই পর্বে এবারো গ্রুপ সেরা হতে চায় বাংলাদেশ কিশোরী দল। গতবারের মতো এবারো এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইয়ে সেরা হওয়ার লক্ষ্যে স্বাগতিক মেয়েদের প্রস্তুত করেছেন কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। তিনি জানান, দীর্ঘ সময়ের প্রস্তুতিতে বাছাই পর্বে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে গতকাল বিকালে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সংবাদ সম্মেলনে চার দলের কোচ ও অধিনায়করা নিজেদের লক্ষ্য ও প্রস্তুতির কথা জানান।
বাংলাদেশ কোচ ছোটন বলেন,‘গ্রুপে বাংলাদেশের তিন প্রতিপক্ষের মধ্যে ভিয়েতনামকেই সবচেয়ে কঠিন বলে মনে করছি আমি। তবে তাদের মোকাবেলার করার মতো সামর্থ রয়েছে আমার দলের।’ তিনি যোগ করেন,‘টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে গত ডিসেম্বর থেকে আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। মাঝখানে মেয়েরা তিনটা টুর্নামেন্ট খেলেছে। এর মধ্যে দু’টোতে আমরা চ্যাম্পিয়ন এবং একটাতে রানার্সআপ হয়েছি। আগের ভুল-ত্রুটি নিয়ে আমরা কাজ করে দলকে আরো বেশী শক্তিশালী হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা করেছি। মেয়েরা অনুশীলনে বেশ মনযোগী। তারা সবাই সুস্থ আছে এবং টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুত আমার দল।’
বাংলাদেশ কিশোরী দলের কোচ বলেন,‘এর আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে আমরা দু’বার জিতেছি (৬-০ এবং ৪-০ ব্যবধানে)। ভিয়েতনামের ভিডিও ফুটেজ পাওয়ার চেষ্টা করেছি কিন্তু পারিনি। তবে তারা শক্তিশালী দল। বাহরাইন ও লেবানন পরিকল্পনা এবং সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী। তবে আমাদের মেয়েরা বেশ কিছু দিন ধরে একসঙ্গে কঠোর অনুশীলন করছে, তারা আত্মবিশ্বাসী। আমার দলের সুবিধা হচ্ছে, এই দলের ২৩ জনেরই আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে।’
গত আসরে খেলা দলের ১২ জন আছেন বর্তমান স্কোয়াডে। কোচ ছোটনের বিশ্বাস নতুন যারা দলে এসেছে তারাও আগের খেলোয়াড়দের মতোই মেধাবী।
তার কথা,‘দলের কিছু খেলোয়াড় বয়সের কারণে বাদ পড়লেও সুখের খবর, পরবর্তীতে যে মেধাবী খেলোয়াড়রা এসেছে যেমন, শামসুন্নাহার জুনিয়র, ঋতুপর্ণা চাকমা, সাজেদা এবং রিফা-তারাও মেধাবী। এখন যারা আছে তারা আগের মেয়েদের চেয়ে ফিটনেসের দিক থেকে কম না।’
ছোটন আরো বলেন,‘যেহেতু আমরা গতবার থাইল্যান্ডে মুল পর্বে খেলেছি। সেহেতু এবারও মেয়েরা সাধ্যমত চেষ্টা করবে বলেই আমার বিশ্বাস।
গতবার মূলপর্বে যা করেছি, এবার বাছাই পর্ব পেরিয়ে তার চেয়ে ভালো করার লক্ষ্য রয়েছে আমাদের। শেষ দুই সেশনের অনুশীলনে মেয়েরা যেভাবে ভালো করেছে, তাতে আমার মনে হয়েছে এবার প্রথম ম্যাচে বাহরাইনের বিপক্ষে ভালো খেলতে পারবে তারা।’
বাছাইয়ের প্রতিপক্ষরা নিজেদের মাঠে খেলতে নামা বাংলাদেশকে ফেভারিট বলেছে সংবাদ সম্মেলনে। তবে প্রতিপক্ষের প্রশংসায় আত্মতুষ্টিতে ভেসে যেতে চান না বাংলাদেশ কোচ ছোটন।
অধিনায়ক মারিয়া মান্ডাও জানান, এবারো বাছাই পেরিয়ে মূল পর্বে যাওয়ার লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবেন তারা।
গতবারের চেয়ে এবার অবশ্য বাছাই পেরিয়ে মূল পর্বে যাওয়াটা কঠিন হয়ে গেছে। গতবার বাছাই পেরুলেই মিলেছিল সরাসরি মূল পর্বে খেলার টিকিট। এবার বাছাইয়ে ৬ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও সেরা দুই রানার্সআপ দল নিয়ে হবে দ্বিতীয় রাউন্ড। সেখানে আটটি দল খেলবে দুই গ্রুপে। দুই গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দল যাবে মূল পর্বে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন