ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

চিকিৎসায় অব্যবস্থাপনার অভিযোগ

খুলনা ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল

কয়রা(খুলনা) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

জমিয়াতুল মোদার্রেছীন জেলা সভাপতির সংবাদ সম্মেলন


খুলনার ইসলামি ব্যাংক হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা নিয়ে অব্যবস্থাপনা ও রোগীর সাথে চরম দুর্ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা কয়রার উত্তরচক কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ও জমিয়াতুল মোদার্রেছিনের খুলনা জেলা সভাপতি মাওলানা আ. মালেক বাধ্য হয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করেছেন বলে জানিয়েছেন। গতকাল সোমবার বিকাল ৪ টায় কয়রা উপজেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেছেন কয়রা উত্তর চক আমিনীয়া বহুমুখী কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আলহাজ মোস্তফা আব্দুল মালেক। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, উত্তরচক কামিল মাদরাসার মসজিদের সানসেটের ওপর থেকে নিচে পড়ে বাম হাতের ভেঙে গেলে তিনি এ্যাম্বুলেন্সযোগে খুলনায় পৌঁছে গত ১০ সেপ্টেম্বর ইসলামি ব্যাংক হাসপাতালে ভর্তি হন। এক্স-রে রিপোর্ট অনুযায়ি তাৎক্ষনিক তার হাতে অপারেশন করার কথা বলে কমপক্ষে ১০ বার অপারেশনের সিদ্ধান্ত নেন হাসপাতালের কর্মরত চিকিৎসকরা। তারপর নানান নাটকীয়তায় ঐ দিন অপারেশনের কাজ বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ। পুনরায় গত ১২ সেপ্টেম্বর বিকেল ৪ টায় অপারেশন করার চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। তার পরেও সেই সিদ্ধান্ত বাতিল করে এক দিন আগে ১১ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫ টায় তাকে অপারেশন থিয়েটারে নেয়া হয় অপারেশন করার জন্য। কিন্তু সেখানে অজ্ঞান করার কোন ওষুধ না থাকায় কর্তব্যরত কয়েক জন চিকিৎসক এক পর্যায় বাকবিতন্ডার মধ্য দিয়ে অপারেশন না করে অপারেশন থিয়েটার ত্যাগ করেন। হাসপাতালের চরম অব্যবস্থাপনার মধ্যে তিনি এক ঘন্টার বেশী সময় ধরে অপারেশন থিয়েটারে শুয়ে থেকে অবশেষে বের হয়ে ছাড়পত্র নিয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করতে বাধ্য হন। সেখান থেকে বের হয়ে পরে খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। এ ঘটনার তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, একজন কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষের সাথে ইসলামি ব্যাংক হাসপাতালের চিকিৎসকরা যদি এ ধরনের অমানবিক আচরন করেন তাহলে সাধারন রোগীর ক্ষেত্রে কি অবস্থা হয় সেখানে? ইসলামি ব্যাংক হাসপাতালে সেবার পরিবর্তে রোগির সাথে দুর্ব্যবহার ও প্রতারনার বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন