ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

পারাপারের অপেক্ষায় ৫ শতাধিক বাহন

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলাধীন পদ্মা নদী দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের দৌলতদিয়া ঘাট প্রান্তে বেড়েছে যানবাহনের চাপ। ঘাট এলাকায় নদী পাড়ের অপেক্ষায় রয়েছে ৫ শতাধিক যানবাহন। নাব্য সংকটে শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ী নৌরুটে ফেরী চলাচল ব্যহত থাকায় চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে এ ঘাটে। এতে করে দূর্ভোগ পড়েছে যাত্রীবাহী যানবাহনের যাত্রীরা, চালক ও হেলপাররা।

জানা গেছে, দৌলতদিয়া ঘাট এলাকার জিরো পয়েন্ট থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার দূরে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন পদ্মার মোড় ব্রীজ এলাকা পর্যন্ত নদী পাড়ের অপেক্ষায় রয়েছে ৫ শতাধিক যানবাহন। এছাড়া দৌলতদিয়া ঘাটের টার্মিনালে প্রায় দেড় শতাধিক যানবাহন আটকে রাখা হয়েছে। দৌলতদিয়া ঘাটে দায়িত্বরত ট্রাফিক সার্জেন্ট শাহ নেওয়াজ ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে পর্যায়ক্রমে যাত্রীবাহী বাস, কাঁচামাল পরিবহনকারী ট্রাক অগ্রাধিকার দিয়ে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করে গাড়ীগুলো ছাড়ছে।

ঘাট সূত্রে জানা গেছে, দৌলতদিয়া ফেরী ঘাট এলাকায় ৩ শতাধিক ট্রাক ও শতাধিক বাস নদী পারের অপেক্ষায় রয়েছে। নৌরুটে ৫টি ঘাট দিয়ে ১৮টি ফেরীতে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। গত ৩ দিন ধরে রো-রো ফেরী কেরামত আলী যান্ত্রিক সমস্যায় বন্ধ রয়েছে। নদীতে নাব্য সংকটে গত ৪/৫দিন ধরে ৩ নম্বর ঘাটে দুটি ড্রেজিং চলছে। এ ঘাটে রো-রো ফেরী ভিড়ানো না গেলেও মাঝে মাঝে ছোট ফেরী ভিড়ছে।

এ ছাড়াও পাটুরিয়া ফেরী ঘাটের ৩ ও ৪ ফেরী ঘাটের মাঝামাঝিতে চলছে ড্রেজিং।
দৌলতদিয়া বিআইডব্লিটিসি’র ঘাট ম্যানেজার শফিকুল ইসলাম জানান, শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ী নৌরুটে গত ৩ দিন ধরে ফেরী চলাচল নাব্য সংকটে ব্যহত হচ্ছে। ওই রুটে দিনের বেলা শুধু কয়েকটি ছোট ফেরী চলাচল করলেও রো-রো ফেরী বন্ধ রয়েছে। ওই রুটের যানবাহনগুলো দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট আসায় দৌলতদিয়া ঘাট প্রান্তে যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে।
কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়ায় আবারো ১৪ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ
মাদারীপুর জেলা ও শিবচর উপজেলা সংবাদদাতা : নাব্য সংকটে মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুটে ১৪ ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন এই নৌরুটে চলাচলকারী বাস, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার ও পন্যবাহী ট্রাকসহ বিভিন্ন ধরনের যানবাহন। নাব্য সংকট চরম আকার ধারণ করলে বৃহস্পতিবার রাত ৮টা থেকে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত সব ধরনের ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়। পরে পরীক্ষামূলক একটি ফেরি ছাড়া হলে তাও কয়েক দফা ডুবোচরে আটকা পড়ে।

কাঁঠালবাড়ি ঘাটে ফেরি পারাপারের অপেক্ষায় থাকা কয়েকজন ট্রাক ড্রাইভার জানান, বেশ কিছুদিন থেকেই এ রুটে নাব্য সংকটে ফেরি চলাচল ব্যহত হচ্ছে। বৃহস্পতিবার রাত থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় ঘাটে আটকে থাকা শতশত গাড়ীর ড্রাইভার, হেলপাররা চরম ভোগান্তিতে পড়েছে। কিছু ট্রাকে কাঁচামাল আছে সেগুলোতো নষ্ট হয়ে যাবে। সরকার দ্রুত নাব্য সংকটের একটি স্থায়ী সমাধান করে দেবে এটা আমাদের দাবি।

মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক সালাম মিয়া জানান, পদ্মা নদীর লৌহজং টার্নিং পয়েন্টে নাব্য সংকট চরম আকার ধারণ করেছে। এতে প্রায়ই এ নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। ২১টি ফেরির মধ্যে সকালে একটি ফেরি স্বল্প পরিসরে যানবাহন নিয়ে ঘাট থেকে ছেড়ে গেলে তাও ডুবোচরে আটকা পড়ে। বাকি ফেরিগুলো ঘাটে নোঙ্গর করে রাখা হয়েছে।

ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে ৪ শতাধিক যানবাহন। এদিকে ফেরি চলাচল ব্যাহতের ফলে যাত্রীদের চাপ বেড়েছে লঞ্চ ও স্পীডবোটে। তবে, নাব্য সংকট দূর করতে নদীতে একাধিক ড্রেজার দিয়ে বালু অপসারণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন