ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

বোলারদের দিনে উজ্জ্বল আরাফাত সানি

স্পোর্টস রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ৯ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০১ এএম

দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রথম দিন থেকেই উত্তাপ ছড়াতে শুরু করেছে ২০তম জাতীয় ক্রিকেট লিগ। তবে ব্যাটসম্যানদের চেয়ে কিছুটা এগিয়ে বোলাররাই। চার ম্যাচে সেঞ্চুরি মাত্র একটি। সিলেটের বিপক্ষে সাদিকুর রহমানের সেই শতকের পরও অবশ্য সুবিধাজনক অবস্থানে নেই চট্টগ্রাম। আর বল হাতে আলো ছড়িয়েছেন আরাফাত সানি। ঢাকা বিভাগকে ২০৬ রানে গুড়িয়ে দেয়ার পথে একাই সাত উইকেট তুলে নেন ঢাকা মেট্রোপলিটনের এই বাঁ-হাতি স্পিনার।

রাজশাহীতে প্রথম স্তরের ম্যাচে রংপুরকে ১৫১ রানে গুটিয়ে বিনা উইকেটে ৯৯ রানে দিন শেষ করেছে স্বাগতিকরা। তবে ব্যাটে বলে তুমুল লড়াই শুরু হয়েছে খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে। স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৮ উইকেটে ২৬৬ রান করেছে বরিশাল। বরিশালের ইনিংসে ফিফটি ইনিংস নেই একটিও, তবে বিশোর্ধো ইনিংস খেলেছেন সাত ব্যাটসম্যান। খুলনার হয়ে বল হাতেও কেউ সেভাবে ঝলসে উঠতে পারেনি। অথচ ছয় বোলারের মধ্যে চারজনই পেয়েছেন উইকেটের দেখা। খুলনায় তাই এগিয়ে রাখা যাচ্ছে না কোন দলকেই। আব্দুর রাজ্জাকের দলের সামনে সবচেয়ে বড় প্রতিরোধ গড়ে তোলেন বরিশালের লোয়ার মিডিল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা। ৪১ রানের উদ্বোধনী জুটির পর ১১৮ রানে ৫ উইকেট হারায় বরিশাল। সেখান থেকে ৮ উইকেটে ২৬৬ রানে দিন শেষ করা তো সেকথাই বলে। নবম উইকেটে অবিচ্ছিন্ন ৩৫ রানের পথে অপরাজিত আছেন নুরুজ্জামান (৪৮) ও দশ নম্বর ব্যাটসম্যান মনির হোসেন (২১)।

প্রথম স্তরের আরেক ম্যাচে পরিস্কার এগিয়ে রাজশাহী। ফরহাদ রেজা, মনির শেখ ও শফিকুল ইসলামদের দলীয় আক্রমণে ৫৯ রানেই ৬ উইকেট হারায় রংপুর। চা বিরতির খানিক পরেই ১৫১ রানে গুটিয়ে যায় তাদের ইনিংস। প্রতিরোধের ভাষায় কথা বলে কেবল নাঈম ইসলামের ব্যাট (৬০)। বাকিদের মধ্যে সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন সোহরাওয়ার্দী শুভ। জবাবে নিবিঘেœ দিনের বাকি ২৭ ওভার পার করে দেন নাজমুল হোসেন শান্ত (৩৭) ও মিজানুর রহমান (৫৯)। চট্টগ্রামে প্রথম দুই সেশনে আধিপত্য দেখায় স্বাগতিকরা। কিন্তু শেষ সেশনে ৭ উইকেট তুলে নিয়ে ঘুরে দাঁড়ায় সিলেট। ইয়াসির ও সাদিকুরের ১৩৭ রানের জুটি তখনও একশ পেরোয়নি। চা বিরতি থেকে ফিরে সাদিকুর তুলে নেন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। তবে ইনিংসটা লম্বা করতে পারেনেনি। আউট হন ১৯০ বলে ৯ চারে ১০৬ রান করে। আরেকটুর জন্যে তিন অঙ্কের দেখা পাননি ইয়সির আলি (৮৪)। ৫৮ রানে ৩ উইকেট নিয়ে সিলেটের সেরা বোলার শাহানুর রহমান।

তবে দিনের সবচেয়ে আলোচিত নাম আরাফাত সানি। প্রথম রাউন্ডে জয় পাওয়া ঢাকার দুই দলের মুখোমুখিতে ফতুল্লায় মেট্রোকে এগিয়ে রেখেছেন এই স্পিনার। ঢাকার হয়ে তার সামনে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেন কেবল তাইবুর রহমান। সেঞ্চুরি থেকে ১২ রান দূরে থাকতে তাকে ফেরান আরেক লেগ স্পিনার আশরাফুল ইসলাম। বাকি ৯ উইকেটের সাতটিই নেন সানি। ৭৩ ম্যাচের প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে এ নিয়ে ১৮বারের মত ৫ বা ততোধীক উইকেট পেলেন জাতীয় দলের এই সাবেক খেলোয়াড়। জবাবে ১৩ ওভার ব্যাটিয়ের সুযোগ পায় মেট্রো। সাবধানী ব্যাটিংয়ে কোন উইকেট না হারিয়ে ২৬ রান তুলে দিন শেষ করে মার্শাল আইয়ুবের দল।
সসসস
বরিশাল-খুলনা, খুলনা (১ম স্তর)
বরিশাল ১ম ইনিংস : ৯০ ওভারে ২৬৬/৮ (শাহরিয়ার ৪১, রাফসান ২২, ফজলে মাহমুদ ১২, আল আমিন ১৫, মোসাদ্দেক ৭, সোহাগ ৩৮, সালমান ২২, নুরুজ্জামান ৪৮*, শামসুল ৩০, মনির ২১*; আল আমিন ২/৬২, সৌম্য ০/৪, মেহেদি ২/৪৬, রাজ্জাক ৩/১০৩, আফিফ ১/৩৯, ইমরুল ০/৭)।

রংপুর-রাজশাহী, রাজশাহী (১ম স্তর)
রংপুর ১ম ইনিংস : ৫৯.৪ ওভারে ১৫১ (লিটন ১৭, জাহিদ ৮, মাহমুদুল ১৮, নাঈম ৬০, তানবীর ০, আরিফুল ৫, ধীমান ০, সোহরাওয়ার্দী ২৯, সাজেদুল ৫, সাদ্দাম ১*, শুভাশিস ০; ফরহাদ ৩/৩৯, মহর ৩/৩৭, শফিকুল ২/৩১, তাইজুল ১/২৬, সানজামুল ১/১২)।
রাজশাহী ১ম ইনিংস : ২৭ ওভারে ৯৯/০ (শান্ত ৩৭*, মিজানুর ৫৯*; শুভাশিস ০/১৬, আরিফুল ০/২২, সাদ্দাম ০/১১, সোহরাওয়ার্দী ০/২২, মাহমুদুল ০/২৫)।

চট্টগ্রাম-সিলেট, কক্সবাজার (২য় স্তর)
চট্টগ্রাম ১ম ইনিংস : ৮৭ ওভারে ২৮২/৯ (সাদিকুর ১০৬, মাহিদুল ১, মুমিনুল ৪৩, ইয়াসির ৮৪, তাসামুল ০, শুক্কুর ১৪, সাইফ ২০*, নাঈম ০, ইয়াসিন ০, ইরফান ০, জুবায়ের ৪*; আবু জায়েদ ২/৫৩, খালেদ ১/৭৬, শাহানুর ৩/৫৮, এনামুল ১/৪০, নাবিল ২/৩৬, কাপালী ০/১৮)।

ঢাকা-ঢাকা মেট্রো, ফতুল্লা (২য় স্তর)
ঢাকা ১ম ইনিংস : ৭৫ ওভারে ২০৬ (মজিদ ১৭, রনি ৩০, সাইফ ১০, শাকিল ৬, শুভাগত ০, তাইবুর ৮৮, নাদিফ ৮, মোশাররফ ২৭, নাজমুল ১০, শাহাদাত ০, সালাউদ্দিন ০*; আবু হায়দার ১/৬৩, শহিদুল ০/৩৩, সানি ৭/৫৭, সৈকত ০/৭, আসিফ ০/১৬, আশরাফুল ২/১৯, শামসুর ০/৬)।
ঢাকা মেট্রো ১ম ইনিংস : ১৩ ওভারে ২৬/০ (সাদমান ৪*, সৈকত ২১*; শাহাদাত ০/১৬, সালাউদ্দিন ০/৫, নাজমুল ০/৪, শুভাগ ০/০, মোশাররফ ০/১)।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন