ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

আন্তর্জাতিক সংবাদ

বাল্য বিবাহের অভিযোগে বৃটেনে যাবজ্জীবন নিষিদ্ধ বাংলাদেশী শিক্ষক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ অক্টোবর, ২০১৮, ৯:০৮ পিএম

অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে বিয়ে করায় বৃটিশ সরকার যাবজ্জীবন নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশী নাগরিক জসিম নূরকে (৩৪)। তিনি ব্লাকফ্রায়ারস-এ লন্ডন নটিক্যাল স্কুলের পদার্থবিজ্ঞানের শিক্ষক ছিলেন। খবর ডেইলি মেইল।
সূত্র জানায়, ২০০৬ সালে জসিম নূর বাংলাদেশে এসে বিয়ে করেন ১৩ বছর বয়সী একটি বালিকাকে। বালিকাকে অভিহিত করা হয়েছে ‘চাইল্ড এ’ নামে। এরপর ‘চাইল্ড এ’কে নিয়ে জসিম নূর চলে যান লন্ডনে। সেখানে তাকে একটি পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক ক্লিনিকে নিয়ে জন্মবিরতিকরণ পিল খাওয়ানো হয়।
বৃটেনের কভেন্ট্রিতে টিচিং রেগুলেশন অথরিটি প্যানেল ঘটনার তদন্তে গত মাসে বৈঠকে বসে। সেখানে জসিম নূর দাবি করেছিলেন, তিনি জানতেন না তার স্ত্রীর বয়স ১৮ বছর পূর্ণ হয় নি। তবে তার স্ত্রীর দাবি, তিনি তার স্বামীকে বলেছিলেন তার বয়স ১৩ বছর এবং অষ্টম শ্রেণিতে পড়াশোনা করতেন।
জসিম নূর তার স্ত্রীর বয়স গোপন রাখার জন্য তার শ্বশুর-শাশুড়িকে দায়ী করেন। বলেন, তিনি তার প্রকৃত বয়স জানতেন না। এক পর্যায়ে ২০১৩ সালে পুলিশে অভিযোগ দেন তার স্ত্রী। তার হাড়ের পরীক্ষা করে বয়স নিশ্চিত করা হয়। তাতে দেখা যায়, বিয়ের সময় তিনি অপ্রাপ্তবয়স্ক ছিলেন।
তবে ওই দম্পতি কতদিন একসঙ্গে ছিলেন তা স্পষ্ট নয়। তাদের কোনো ছেলেমেয়ে আছে কিনা তাও জানা যায় নি। টিচিং রেগুলেশন অথরিটি প্যানেল বলেছে, জসিম নূর এখন মেনে নিয়েছেন ২০০৬ সালে ‘চাইল্ড এ’কে বিয়ের সময় তার বয়স ছিল ১৩ বছর। তবে বিয়ের সময় তিনি এটা জানতেন না। তিনি ভেবেছিলেন তার স্ত্রীর বয়স ১৮ বছর।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
A.Hannan ১১ অক্টোবর, ২০১৮, ৯:৫১ এএম says : 0
বয়স কোন Factor নয়, সম্ভবত মেয়েটি ব‌্যক্তিগত স্বার্থে এ বিয়ে ভেঙে দিতে চাচ্ছে।
Total Reply(0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন