ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ছুটির ফাঁদে স্থলবন্দর

আমদানি-রফতানি বন্ধ

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১৬ অক্টোবর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে বেনাপোল, বুড়িমারী, সোনামসজিদ ও ভোমরা স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি বন্ধ থাকবে। দেশের সর্ববৃহৎ বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে চারদিন ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের সঙ্গে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। তবে এ ছুটিতে বেনাপোল কাস্টম হাউজ ও বন্দরে পণ্য খালাস এবং পাসপোর্টধারী যাত্রী চলাচল স্বাভাবিক থাকবে। ভারতের পেট্রাপোল বন্দর সি অ্যান্ডএফ এজেন্টস স্টাফ ওয়েল ফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্ত্তিক চক্রবর্তী জানান, আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতে ১৬ অক্টোবর মঙ্গলবার থেকে ১৯ অক্টোবর শুক্রবার পর্যন্ত চার দিন ছুটি থাকায় এ সময় পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে বেনাপোল বন্দরের সঙ্গে সব ধরনের আমদানি-রফতানি বাণিজ্য বন্ধ থাকবে। ২০ অক্টোবর সকাল থেকে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য স্বাভাবিক হবে। বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক লতা জানান, পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে টানা চার দিন আমদানি-রফতানি বাণিজ্য বন্ধ থাকলেও কাস্টম ও বন্দরে কাজকর্ম স্বাভাবিক থাকবে। বেনাপোল কাস্টমস চেকপোস্ট কার্গো শাখার রাজস্ব কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান বলেন, মঙ্গলবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত টানা চার দিন বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে কোনো আমদানি-রফতানি হবে না বলে ভারতীয় কাস্টমস ও সি অ্যান্ডএফ এজেন্ট আমাদের জানিয়ে দিয়েছেন। তবে বেনাপোল বন্দরে পণ্য নিয়ে আসা ভারতীয় খালি ট্রাক ফিরে যেতে পারবে।
এদিকে, লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দর দুর্গাপূজা উপলক্ষে টানা ৫ দিন ছুটির ফাঁদে পড়ে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। বুড়িমারী স্থলবন্দর কাস্টমস ও সিএন্ডএফ এজেন্ট সূত্র জানায়, শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বন্দর দিয়ে বাংলাদেশ-ভারত দু’দেশের মধ্যকার আমদানি-রফতানি বাণিজ্যসহ বন্দরের ভেতরের সব কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তবে ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে পাসপোর্টধারী যাত্রীদের যাতায়াত চালু রয়েছে। শনিবার পুনরায় এ স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি চালু হবে। বুড়িমারী স্থলবন্দরের সহকারী কমিশনার খায়রুল বাশার বন্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
অপরদিকে, শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে ভারতের মহদিপুর স্থলবন্দর পাঁচদিন ছুটি ঘোষণার কারণে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম ১৬ থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। স্থলবন্দর বন্দর কাস্টমসের সহকারী কমিশনার সন্তোষ সরেন জানান, এই সময়ে আমদানিকৃত পণ্যগুলো পানামা ইয়ার্ডের ভেতরে লোড-আনলোডের কাজ অব্যাহত থাকবে। এছাড়া পাসপোর্টধারী যাত্রীদের জন্য সোনামসজিদ কাস্টমস ইমিগ্রেশন খোলা থাকবে। ২১ অক্টোবর থেকে বন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম আবার শুরু হবে বলে ভারতের মহদিপুর বন্দরের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ভ‚পতি মন্ডল জানিয়েছেন।
গতকাল সোমবার থেকে দুর্গাপূজা উপলক্ষে ৬ দিন বন্ধ থাকবে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম। ২১ অক্টোবর থেকে আবারও যথারীতি আমাদানি-রফতানি শুরু হবে। এ সময় ভোমরা ইমিগ্রেশন দিয়ে যথারীতি যাতায়াত করতে পারবেন পাসপোর্ট যাত্রীরা। ভোমরা স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম জানান, ভারতের ঘোজাডাঙ্গা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট কার্গো ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মিহির ঘোষ স্বাক্ষরিত এক চিঠির মাধ্যমে ভোমরা স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনকে অবহিত করা হয়েছে। দুর্গোৎসব উপলক্ষে ১৫ অক্টোবর থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত ৬ দিন তারা বন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রাখবেন। যেহেতু ভারতের ঘোজাডাঙ্গা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাই আমাদেরও বন্ধ রাখতে হচ্ছে। ভোমরা কাস্টমসের সহকারী কমিশনার সাগর সেন জানান, বন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও পাসপোর্ট যাত্রীদের জন্য কাস্টমসের সব কার্যক্রম যথারীতি চলবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন