ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

লাইফস্টাইল

বিয়ের পর ওজন হ্রাসের ট্রিক!

ফেরদৌসী রহমানঃ | প্রকাশের সময় : ৮ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:৪৩ এএম

বিয়ের পর স্বামী-স্ত্রী উভয়েরই ওজন বেড়ে যায় এটা একটা প্রচলিত সমস্যা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন হরমোনাল পরিবর্তনের কারণে বিয়ের পর ওজন বাড়ে। বিয়ের পর সাধারণত পুরুষের বাড়তি ওজন তেমন বেশি চোখে পড়ে না। কিন্তু স্ত্রীর ক্ষেত্রে তার উল্টোটাই হয়।শুধু সৌন্দর্য নয়, সুস্থতার জন্য বিয়ের আগে ও পরে সব সময় ফিট থাকতে হবে সবাইকে। তবে কিছু পরামর্শ মেনে চললে বিয়ের পর এই ওজনাধিক্যের সমস্যা কিছুটা কমানো সম্ভব। তাই ওজন ঠিক রাখতে জেনে রাখুন কিছু কার্যকরী টিপস।

১। সবসময় নিজেকে প্ররোচিত করার চেষ্টা করুন। আপনি যদি বিয়ের আগের ছবিগুলো দেখেন তবে নিজের বর্তমান অবস্থা দেখে আফসোস লাগতে পারে। এটা আপনাকে ফল, শাকসবজি খাওয়া এবং ব্যায়াম করার দিকেও ধাবিত করতে পারে।
২। নিজের খাওয়া দাওয়ার অভ্যাসে খুব বেশি পরিবর্তন আনা চলবে না। সঠিক সময়ে প্রতিদিন খাওয়ার অভ্যাসটা গড়ে তুলতে হবে। একেকটি পরিবারে খাওয়ার সময় একেক রকম হয়। লজ্জা না করে নিজে সব সময় যেই সময়ে খান, সেই সময়েই খাওয়া সেরে ফেলুন। চেষ্টা করুন রাতের খাবারটা অন্তত খুব বেশি দেরি করে না খেতে।
৩। আপনার খাদ্যতালিকায় অবশ্যই স্বাস্থ্যকর চর্বি রাখবেন। এ জন্য ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিডসমৃদ্ধ খাবার খান। যেমন : টুনামাছ, কাঠবাদাম, জলপাইয়ের তেল, ফ্লেক্সিড তেল ইত্যাদি। এটা ওজন কমাতে সাহায্য করবে এবং স্বাস্থ্যও ভালো রাখবে। এছাড়া ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে ভিটামিন বি সাপ্লিমেন্ট খেতে পারেন। নতুন পরিবেশে নতুন দায়িত্ব নেওয়ার প্রয়োজনীয় এনার্জি জোগান দেবে এই ভিটামিন বি।
৪। নতুন বিয়ের পর নানা জায়গায় পার্টি, খাওয়া-দাওয়া বা ঘোরাঘুরিটা অনেকটাই বেড়ে যায়। তাই অনিয়মও হয় প্রচুর। এই অনিয়ম নিয়ন্ত্রণ করতে জানতে হবে আপনাকেই।
৫। ফিট থাকার নিয়ম মেনে না চললে অল্প কিছু দিনের মধ্যে আপনার চেহারায় বদল আসবেই। যতই ব্যস্ত থাকুন না কেন, প্রতিদিন অন্তত ৩০ মিনিট নিজের শরীরচর্চার জন্য বের করুন।গৃহবধূ হলে ঘরেই চেষ্টা করুন পরিশ্রমের কাজগুলো করতে, বসে থেকে আলসেমী ধরতে দেবেন না।
৬। জন্ম নিয়ন্ত্রণের ওষুধ বাদ দিয়ে অন্য কোনও ব্যবস্থা বেছে নিন।
৭। একজন ডায়েটিশিয়ান দেখিয়ে ডায়েট চার্ট তৈরি করে নিন এবং ঝটপট ওজন কমাতে সেটা মেনে চলুন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
অনামিকা ৮ নভেম্বর, ২০১৮, ৪:২২ এএম says : 2
লেখাটির জন্য ধন্যবাদ
Total Reply(0)
Saad ১০ নভেম্বর, ২০১৮, ৯:১৭ পিএম says : 1
Helpful article for our society.thanks
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন