ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

আজ হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

নন্দিত কথাসাহিত্যিক, নাট্যকার ও চিত্র পরিচালক হুমায়ূন আহমেদের আজ ৭০তম জন্মদিন। ১৯৪৮ সালের এ দিন তিনি নেত্রকোনার কুতুবপুরে জন্মগ্রহণ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্রাজুয়েশন করেন তিনি। এরপর পলিমার ক্যামিস্ট্রির উপর পিএইচডি করে একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যামিস্ট্রি বিভাগে শিক্ষকতা পেশায় যোগ দেন। দীর্ঘদিন শিক্ষকতা করার পর তিনি পেশা ছেড়ে পুরোমাত্রায় সাহিত্য রচনায় মনোনিবেশ করেন।
১৯৭২ সালে প্রকাশিত প্রথম উপন্যাস নন্দিত নরক দিয়েই বাংলা কথাসাহিত্যে পালাবদলের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন হুমায়ূন আহমেদ। এর পর শঙ্খনীল কারাগার, লীলাবতী, জোছনা ও জননীর গল্প, মধ্যাহ্ন, বাদশাহ নামদারসহ দুইশোর বেশি উপন্যাস রচনা করেছেন হুমায়ূন আহমেদ।
তার উপন্যাসের চরিত্র হিমু, মিসির আলী, শুভ্র বইয়ের পাতা থেকে টেলিভিশনের পর্দা কিংবা সেলুলয়েডে তরুণ-তরুণীদের আপনজন হয়ে ওঠে। ১৯৮০ সালে নাটক রচনা শুরু করেন হুমায়ূন আহমেদ। তার লেখা নাটক এই সব দিনরাত্রির জনপ্রিয়তার পর তিনি তৈরি করেন বহুব্রীহি, অয়োময়, কোথাও কেউ নেই, নক্ষত্রের রাত, উড়ে যায় বকপক্ষীসহ বহু নাটক।
সিনেমা পরিচালক হিসেবেও পেয়েছেন তিনি সাফল্য। ১৯৯৪ সালে মুক্তি পায় তার প্রথম চলচ্চিত্র আগুনের পরশমনি। এই সিনেমার জন্য তিনি ১৯৯৪ সালে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলেন। একই বছর তিনি একুশে পদক পেয়েছিলেন। এরপর তিনিও নির্মাণ করেন শ্রাবণ মেঘের দিন, দুই দুয়ারী, চন্দ্রকথা, শ্যামল ছায়া এবং আমার আছে জলসহ বহু চলচ্চিত্র। তার নির্মিত শেষ চলচ্চিত্র ঘটুপুত্র কমলা।
এর পর থেকেই হুমায়ূন আহমেদের শারীরিক অবস্থা খারাপ হতে থাকে। এক পর্যায়ে ক্যান্সারের চিকিৎসার জন্য তাকে যেতে হয় যুক্তরাষ্ট্রে। কোটি ভক্তকে কাঁদিয়ে ২০১২ সালের ১৯ জুলাই ইন্তেকাল করেন হুমায়ূন আহমেদ।
হুমায়ূন আহমেদের বাসায় গতকাল সোমবার রাত ১২টার পর কেক কেটে জন্মদিন উদযাপন করেন পরিবারের সদস্যরা। প্রতি বছরের মতো এবারও হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিনে নুহাশপল্লী সাজবে ভিন্ন সাজে। এ প্রসঙ্গে মেহের আফরোজ শাওন বলেন, তিনি বেঁচে থাকতে প্রতিবছরই পরিবারের সবাই মিলে তার জন্মদিনে নুহাশপল্লীতে মোমবাতি প্রজ্বলন করা হতো। এ বছরও মোমবাতি প্রজ্বলনের মাধ্যমে তাকে স্মরণ করা হবে।
নন্দিত নির্মাতা হুমায়ুন আহমেদের জন্মদিন উপলক্ষে চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সপ্তমবারের মতো হুমায়ূন মেলা। আজ সকাল ১১টায় হিমুপ্রেমিরা হলুদ পাঞ্জাবী পরে চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে উপস্থিত থেকে হলুদ বেলুন উড়িয়ে মেলার উদ্বোধন করবেন। উপস্থিত থাকবেন হুমায়ূন আহমেদের পরিবারের সদস্যসহ বিভিন্ন অঙ্গণের হুমায়ূন ভক্ত ও বিশিষ্টজনরা। উন্মুক্ত মঞ্চ থেকে পরিবেশিত হবে হুমায়ুন আহমেদের লেখা গান। হুমায়ূন আহমেদ স্মরণে স্মৃতিকথা বলবেন অনুষ্ঠানে বিশিষ্টজনরা।
নৃত্য পরিবেশন করবে চ্যানেল আই সেরা নাচিয়ে ও অন্যান্য নৃত্যশিল্পীরা। আরো থাকবে হুমায়ূন আহমেদের লেখা থেকে আবৃত্তি পরিবেশনা। মেলার স্টলগুলোতে থাকবে তার লেখা বই, তার নির্মিত চলচ্চিত্র ও নাটকের ভিডিও সিডি। এছাড়াও স্টলগুলোতে দেশীয় নানান পণ্যসামগ্রী থাকবে। হুমায়ূন আহমেদ স্মরণে চিত্রাঙ্কন করবে বিভিন্ন বয়সী শিশুশিল্পীরা। মেলা সরাসরি স¤প্রচার করবে চ্যানেল আই ও রেডিও ভুমি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন