ঢাকা রোববার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ মাঘ ১৪২৭, ১০ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রকে ধর্ষণের সুযোগ করে দেয়া হচ্ছে চীনকে

প্রকাশের সময় : ৪ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রকে নিয়মিত ধর্ষণ করে যাওয়ার জন্য চীনকে অনুমোদন দিতে পারি না বলে মন্তব্য করলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের শীর্ষ মনোনয়ন প্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্প। চীনের সাথে নিজেদের বাণিজ্য ঘাটতিকে ধর্ষণের সঙ্গে তুলনা করে এ কথা বলেছেন। বাণিজ্য ঘাটতি নিয়ে সব সময় বিলাপ করে যাওয়া ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হলে ধর্ষণ মোকাবেলায় যেভাবে পদক্ষেপ নেবেন চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি মোকাবেলায়ও একই ধরনের পদক্ষেপ নেয়ার শপথ করেছেন।
ইন্ডিয়ানা অঙ্গরাজ্যে নিজের দ্বিতীয় শোভাযাত্রার সময় যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় দুই দেশের মধ্যে চীনের রফতানি বৃদ্ধির দিকে ইঙ্গিত করে এসব কথা বলেছেন ট্রাম্প। তিনি মুদ্রার মান কমিয়ে বৈশ্বিক বাজারে প্রতিযোগিতায় নিজেদের সুবিধাজনক অবস্থানে রাখার জন্য চীনকে বারবার অভিযুক্ত করে আসছেন। এভাবে চীন বাণিজ্যে যুক্তরাষ্ট্রকে হত্যা করছে বলে জানান ট্রাম্প। এই প্রথম দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যে চীনের অর্থনৈতিক প্রভাবকে ধর্ষণের সাথে তুলনা করলেন কোটিপতি এই ব্যবসায়ী। তিনি বলেন, আমরা এই অবস্থার পরিবর্তন করতে যাচ্ছি। আমাদের হাতে কার্ড আছে। আমরা ওই মাটির ব্যাংকের মতোÑ যাকে লুট করা হয়েছে। এসব কথা বলার পরই চীনের সাথে বাণিজ্যিক সম্পর্ককে ধর্ষণের সাথে তুলনা করেন ট্রাম্প। তবে চীনের প্রতি তিনি ক্ষুব্ধ নন জানিয়ে ট্রাম্প বলেন, আমাদের নেতা পর্যায়ক্রমে অপদার্থ হয়ে পড়ছেন। ট্রাম্প বলেন, যুক্তরাষ্ট্র চীনকে ধর্ষণ করার সুযোগ দিচ্ছে। কেন চীনা পণ্য বর্জনের মতো তুরুপের তাস খেলার উপদেশ দেয়া হচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদেরকে। এর আগে ২০১১ সালেও একবার ট্রাম্প বলেছিলেন, চীন তার দেশকে ধর্ষণ করছে। নিউ হ্যাম্পশায়ারে একটি সামরিক সরঞ্জাম উৎপাদন কারখানা পরিদর্শনে গিয়ে তখন ধর্ষিত হওয়ার কথা বলেছিলেন রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী ট্রাম্প। টাইমস অব ইন্ডিয়া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন