ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

কোহলিকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ মুমিনুলের

সেরা র‌্যাংকিং নিয়ে মিরপুরে মুমিনুল-তাইজুল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:১৮ এএম

জিম্বাবুয়ের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজেও পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছেন তাইজুল ইসলাম। তার পুরষ্কারটা পেয়েছেন এ স্পিনার। ছয় ধাপ এগিয়েছেন তিনি। তবে মিরপুর টেস্টের আগে সবচেয়ে বড় সুখবর পেয়েছেন মুমিনুল হক। টানা দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি তুলে ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাংকিংয়ে পৌঁছেছেন বাংলাদেশের ‘লিটল মাস্টার’। এক ধাক্কায় ১১ ধাপ এগিয়েছেন এ ব্যাটসম্যান।
জিম্বাবুয়ে সিরিজে ১৮ উইকেট নিয়েছিলেন তাইজুল। উইন্ডিজের বিপক্ষেও প্রথম টেস্টে পেয়েছেন ৭ উইকেট। দারুণ এ পারফরম্যান্সের কারণে বর্তমানে ২১ নম্বর অবস্থানে উঠে এসেছেন তিনি। আর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সেঞ্চুরির পর উইন্ডিজের বিপক্ষেও সেঞ্চুরি করেছেন মুমিনুল। বেশ বড় লাফ দিয়ে ২৪ নম্বর অবস্থানে আছেন পকেট রকেট। সামনে সুযোগ আছে বর্তমান বিশে^র সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলিকে ছাড়িয়ে যাবার।
চলতি বছর টেস্টে দুজনেই সর্বোচ্চ চারটি করে সেঞ্চুরি করেছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ টেস্টে আরেকটি সেঞ্চুরি করলেই কোহলিকে ছাপিয়ে বছরের সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি করা ব্যাটসম্যান হয়ে যাবেন তিনি। তবে এমন অর্জনের হাতছানিকেও দমিয়ে রাখতে চান মুমিনুল। চলতি বছর এখন পর্যন্ত ১৪ ইনিংস ব্যাট করে চারবার ফিফটি পেরিয়েছিলেন মুমিনুল, ওই চারবারই থেমেছেন তিন অঙ্কে গিয়ে। বাকি ১০ ইনিংসে ভাল রান না পাওয়ার পরও তাই ৪৬.০০ গড়ে করেছেন ৬৪৪ রান। এই সময়ে ১০ টেস্টের ১৮ ইনিংস ব্যাট করা কোহলি চার সেঞ্চুরিতে ৫৯.০৫ গড়ে করে ফেলেছেন ১০৬৩ রান।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে আরও একবার তিন অঙ্কে গেলেই কোহলিকে ছাড়িয়ে বছরের সেরা সেঞ্চুরিয়ান হয়ে যাবেন মুমিনুল। এমন একটি অর্জনের সামনে থেকেও কেবল দলের কথাই ভাবছেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান, ‘না, আমি ওইভাবে চিন্তা করছি না যে আমার আরেকটা সুযোগ আছে। আমি ওইভাবে চিন্তা করি না। আমি সবসময় চেষ্টা করি দলের জন্য যতটুক করা যায়, ব্যাটিংয়ের সময় যত সেশন খেলা যায়, আমি যেভাবে পরিকল্পনা করি, আমার যে রুটিন ওইভাবে চেষ্টা করি। হইলে হইলো, না হইলে নাই।’
গত জানুয়ারি মাসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জোড়া সেঞ্চুরি দিয়ে বছর শুরু করেছিলেন মুমিনুল। চট্টগ্রামে বাংলাদেশের জয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছিল মুমিনুল হক। প্রথম ইনিংসে তার সেঞ্চুরিতেই তিনশো ছাড়িয়ে যায় দলের রান। যার উপর ভিত্তি করেই তৈরি হয় জয়ের মঞ্চ। বছরের শেষটাও শতক দিয়ে শেষ করার সুযোগ তার সামনে। তবে এরকম ভাবনায় কাজটা জটিল হয়ে যাওয়ায় ওদিকে যাচ্ছেন না তিনি, ‘না, দেখেন কোন সময় এভাবে চিন্তা করিনি যে বছরটা শেষ হবে শুরুতে আমি ১০০ করেছি হয়তোবা শেষ ম্যাচও ১০০ দিয়ে শেষ করতে চাইবো। আসলে ওইভাবে চিন্তা করলে পারফর্ম করাটা কঠিন। আমি সবসময় যে জিনিসিটা চিন্তা করি প্রত্যেক ম্যাচে একজন খেলোয়াড় হিসেবে দলের জন্য কিছু করা।’
মুমিনুল যেখানে পেয়েছেন সুখবর, মুশফিকুর রহিমের জন্য আছে দুঃসংবাদ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরির পর টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাংকিংয়ে এক ধাক্কায় ১৩ ধাপ এগিয়েছিলেন, তবে পরের সপ্তাহেই তিন ধাপ পিছিয়েছেন এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। উইন্ডিজের বিপক্ষে আশানুরূপ ব্যাটিং করতে পারেননি তিনি। প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসে তার ব্যাট থেকে আসে ২৩ রান। তার জেরে তিন ধাপ পিছিয়ে ২১ নম্বরে আছেন মিস্টার ডিপেন্ডেবল।
ইনজুরি থেকে ফিরে বোলিংয়ে ভালো করলেও ব্যাটিংটা আশানুরূপ হয়নি সাকিব আল হাসানের। তাই পিছিয়েছেন চার ধাপ। ২৮ নম্বর অবস্থানে আছেন এ অলরাউন্ডার। তবে বোলিংয়ে উন্নতি ঠিকই হয়েছে সাকিবের। এক ধাপ এগিয়ে ২০ নম্বর অবস্থানে আছেন তিনি। আর যথারীতি ধরে রেখেছেন অলরাউন্ডারদের র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান। ৪০৫ রেটিং পয়েন্ট তার। ৪০০ পয়েন্ট নিয়ে তার পেছনেই আছেন ভারতের রবীন্দ্র জাদেজা।
যথারীতি র‌্যাংকিংয়ে টেস্ট ব্যাটসম্যানদের তালিকায় শীর্ষেই আছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আশানুরূপ বোলিং করতে না পারায় শীর্ষস্থান হারিয়েছেন জেমস অ্যান্ডারসন। তাকে হটিয়ে শীর্ষে উঠে এসেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার কাগিসো রাবাদা। আর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দারুণ বোলিং করায় ছয় ধাপ এগিয়ে নয় নম্বরে উঠে এসেছেন ইয়াসির শাহ।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন