ঢাকা, মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯, ০১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১২ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

ইনকিলাব জনমত জরিপ চট্টগ্রাম বিভাগ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

চট্টগ্রাম বিভাগ: ৫৮
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৬টি আসনের মধ্যে আওয়ামী লীগ ৩টিতে, বিএনপি ১টিতে এগিয়ে রয়েছে। অন্য দুইটিতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে নৌকার প্রার্থী র আ ম ওবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ আসনে আনিসুল হক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ আসনে এবি তাজুল ইসলাম এগিয়ে রয়েছেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী উকিল আব্দুস সাত্তার এগিয়ে আছেন। এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনে একরামুজ্জামান (ধানের শীষ) ও বিএম ফরহাদ হোসেন (নৌকা) এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ কাজী নাজমুল হোসেন (ধানের শীষ) ও এবাদুল করিম (নৌকা) এর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
কুমিল্লার ১১টি আসনের মধ্যে ৯টিতে আওয়ামী লীগ ও ২টিতে বিএনপি বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কুমিল্লা-১ আসনে নৌকার প্রার্থী সুবিদ আলী ভূইয়া, কুমিল্লা-৩ আসনে ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন, কুমিল্লা-৪ আসনে রাজি মোহম্মদ ফখরুল, কুমিল্লা-৫ আসনে আব্দুল মতিন খসরু, কুমিল্লা-৬ আসনে আকম বাহাউদ্দীন বাহার, কুমিল্লা-৭ আসনে আলী আশরাফ, কুমিল্লা-৯ আসনে তাজুল ইসলাম, কুমিল্লা-১০ আসনে আ হ ম মুস্তফা কামাল, কুমিল্লা-১১ আসনে মুজিবুল হক বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অন্যদিকে কুমিল্লা-২ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও কুমিল্লা-৮ আসনে জাকারিয়া তাহের সুমন বিজয়ী হতে পারেন।
চাঁদপুরের ৫টি আসনের সবকটিতেই আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে চাঁদপুর-১ আসনে নৌকার প্রার্থী মহিউদ্দীন খান আলমগীর, চাঁদপুর-২ আসনে নূরুল আমিন রুহুল, চাঁদপুর-৩ আসনে ডা. দীপু মনি, চাঁদপুর-৪ আসনে শফিকুর রহমান ও চাঁদপুর-৫ আসনে রফিকুল ইসলাম এগিয়ে রয়েছেন।
ফেনীর ৩টি আসনের মধ্যে ২টিতে বিএনপি এবং ১টিতে জাতীয় পার্টি বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে ফেনী-১ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী মুন্সি রফিকুল আলম, ফেনী-২ আসনে ভিপি জয়নাল বিজয়ী হতে পারেন। ফেনী-৩ আসনে জাতীয় পার্টির লে. জে. (অব.) মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী এগিয়ে আছেন। নোয়াখালীর ৬টি আসনের মধ্যে ৩টিতে বিএনপি, ১টিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিজয়ী হতে পারে। আর ২টি আসনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে নোয়াখালী-১ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, নোয়াখালী-২ আসনে জয়নাল আবদীন ফারুক, নোয়াখালী-৩ আসনে বরকত উল্লাহ বুলু বিজয়ী হতে পারেন। নোয়াখালী-৬ আসনে নৌকার প্রার্থী আয়েশা ফেরদাউস এগিয়ে আছেন। আর নোয়াখালী-৪ আসনে মোহাম্মদ শাজহাজান (ধানের শীষ)- একরামুল করিম চৌধুরী (নৌকা) এবং নোয়াখালী-৫ আসনে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ (ধানের শীষ)- ওবায়দুল কাদের (নৌকা) এর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে।
লক্ষীপুরের ৪টি আসনের মধ্যে ৩টিতে বিএনপি তথা ঐক্যফ্রন্ট এগিয়ে রয়েছে আর একটিতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে। লক্ষীপুর-১ আসনে ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষের প্রার্থী মোঃ শাহাদাত হোসেন সেলিম, লক্ষীপুর-২ আসনে আবুল খায়ের ভূইয়া, লক্ষীপুর-৪ আসনে ঐক্যফ্রন্টের আ স ম আব্দুর রব ধানের শীষ প্রতীক পেয়ে এগিয়ে রয়েছেন। লক্ষীপুর-৩ আসনটিতে শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী (ধানের শীষ) ও শাহজাহান কামাল (নৌকা) এর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে।
চট্টগ্রামের ১৬ টি আসনের মধ্যে ৮টিতে আওয়ামী লীগ, ৬টিতে বিএনপি এগিয়ে রয়েছে। একটি আসনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে আভাস পাওয়া গেছে। আর অবশিষ্ট একটি আসনে এগিয়ে রয়েছে জামায়াতের স্বতন্ত্র প্রার্থী। এর মধ্যে- চট্টগ্রাম-১ আসনে নৌকার প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, চট্টগ্রাম-৪ আসনে দিদারুল আলম, চট্টগ্রাম-৫ আসনে জাতীয় পার্টির আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, চট্টগ্রাম-৬ আসনে এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, চট্টগ্রাম-৭ আসনে ড. হাছান মাহমুদ, চট্টগ্রাম-৯ আসনে মহিবুল হাসান নওফেল, চট্টগ্রাম-১২ আসনে সামশুল হক চৌধুরী, চট্টগ্রাম-১৩ আসনে সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাভেদ নৌকার প্রার্থীরা বিজয়ী হতে পারেন।
অন্যদিকে চট্টগ্রাম-২ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী আজিম উল্লাহ বাহার, চট্টগ্রাম-৩ আসনে মোস্তফা কামাল পাশা, চট্টগ্রাম-১০ আসনে আব্দুল্লাহ আল নোমান, চট্টগ্রাম-১১ আসনে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম-১৪ আসনে এলডিপির কর্ণেল (অব.) অলি আহমেদ (ছাতা), চট্টগ্রাম-১৫ আসনে জামায়াতের আ ন ম শামসুল ইসলাম বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। চট্টগ্রাম-৮ আসনে আবু সুফিয়ান (ধানের শীষ) ও জাসদের মঈন উদ্দিন খান বাদল (নৌকা) এর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে চট্টগ্রাম-১৬ আসনে বিএনপির জাফরুল ইসলাম চৌধুরী এগিয়ে আছেন।
কক্সবাজারের ৪টি আসনের মধ্যে ৩টিতে বিএনপি এবং ১টিতে আওয়ামী লীগ বিজয়ী হতে পারে। এর মধ্যে-কক্সবাজার-১ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী হাসিনা আহমেদ, কক্সবাজার-৩ আসনে লুৎফর রহমান কাজল ও কক্সবাজার-৪ আসনে শাহাজাহান চৌধুরী বিজয়ী হতে পারেন। কক্সবাজার-২ আসনে আওয়ামী লীগের আশেক উল্লাহ রফিক এগিয়ে রয়েছেন।
তিন পার্বত্য জেলার তিনটি আসনের মধ্যে ২টিতে আওয়ামী লীগ ও ১টিতে বিএনপির বিজয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে খাগড়াছড়ির আসনে আওয়ামী লীগের কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ও বান্দরবানে বীর বাহাদুর উ শৈ সিং নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হতে পারেন। রাঙামাটি জেলার আসনে এগিয়ে রয়েছেন ধানের শীষের প্রার্থী মনি স্বপন দেওয়ান।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (18)
মুহাম্মদ- মিজানুর রহমান ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩:০৫ এএম says : 2
চট্টগ্রাম -২, মোমবাতি প্রতীকে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের হেভিওয়েট প্রার্থী সৈয়দ সাইফুদ্দীন মাইজভান্ডারী সুষ্টভোট হলে বিপুল ব্যবধানে বিজয়ী হবে
Total Reply(0)
ShafiqulIslam ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:৫৪ এএম says : 0
আদৌ কি বাংলাদেশ নিবাচনের পরিবেশ তৈরি হইছে আমার মনে হয় না
Total Reply(0)
২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৫৪ এএম says : 1
এটা... মতামত, কুমিল্লা চট্টগ্রাম বিবাড়িয়া নোয়াখালী চাদপুর সব কটিতে বি এনপির জয়
Total Reply(1)
এস এম সেলিম ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩:৫০ পিএম says : 0
মতামতটা হস্যকর হয়ে গেলনা?
আবদুর রব ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১১:৩০ এএম says : 0
আমার মনে হয়ে বরাবরের মতো আওয়ামী লীগ-ই সরকার গঠন করবে।আমরাও চাই দেশের এভাবে এগিয়ে যাক।
Total Reply(0)
saiful ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১১:৪১ এএম says : 0
kon hisabe bolcen vai..zara desh ta k lute khaice tader jonogon r vote dibe na...sheikh hasina sorkar ajibon dorkar.
Total Reply(0)
Kamal Hossain ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩:১৮ পিএম says : 1
This report are correct. We wantto peace in Bangladesh.
Total Reply(0)
মুসাফির ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১১:২৯ এএম says : 0
চট্টগ্রাম -২ ও ১৪ , মোমবাতি প্রতীকে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের হেভিওয়েট প্রার্থী সুষ্টভোট হলে বিপুল ব্যবধানে বিজয়ী হবে
Total Reply(0)
hayder ali ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:১৯ এএম says : 0
91 সালে ইনকিলাবের মতামত সঠিক হয়েচছিল
Total Reply(0)
sohail ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩:৫৩ পিএম says : 0
তাহলে হাত-পাখা কি একটা তেও কন্টাকে যাবেনা মনে করেন?
Total Reply(0)
আনোয়ার শহিদ ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:৩৯ এএম says : 1
এটা একটা নিজের মত করে অভিমত । যা পরিবর্তন হবে ১০০% সত্যি, যদি সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন হয় তাহলে সবকটি বিএনপি জয় লাভ করবে।
Total Reply(0)
মামুন ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:৩৫ পিএম says : 0
যা বুঝলাম,পেশি ও অস্ত্র শক্তিই বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ চূড়ান্ত ভরসা
Total Reply(0)
Habib Rayhan ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:৩৯ পিএম says : 0
চাঁদপুরের ৫ টি আসনের সবকটিতে বিএনপির প্রার্থীদের বিজয় নিশ্চিত। *শুধুমাত্র চাঁদপুর ৩ আসনে বিএনপির শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের সাথে আওয়ামীলীগ প্রার্থী ডা.দীপু মনির হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে।
Total Reply(0)
Mosi uddin sadek. ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১১:৩৭ পিএম says : 0
চট্টগ্রাম১৫ সাতকানিয়া লোহাগাডায় ডঃআবুরেজা নদভী বিপুল ভোটেে জয়লাভ করবে।উনি বিগত পাঁচ বৎসর সরকারী ও আল্লামা ফজলুল্লা ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে অত্র এলাকায় যথেষ্ট উন্নয়ন মুলক কাজ করেছেন।বিগত পাঁচ বছর উনি এবং উনার স্ত্রী এলাকা ছাড়েননি সব সময় সবার পাশে ছিলেন।উনি বিজয়ী হবেন ১০০% নিশ্চি।
Total Reply(0)
Suresh chakma ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৮:৩২ পিএম says : 0
রাঙ্গামাটি আসনে প্রতিদ্বন্ধিতায়ও আসবে না মনিস্বপন। উষাতন আর দীপংকরে ফাইট হবে। এই একটি অবস্থা দেখে অন্যগুলো সম্পর্কে সন্দেহ রয়ে যায়। রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি হয়ত বিএনপি সমর্থক।
Total Reply(0)
nahid ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১১:৩৮ এএম says : 0
আওয়ামিলিগ আবার দেশ পরিচালনা করবে নিশ্তিত
Total Reply(0)
Farhan ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৩৩ এএম says : 0
কতটা সিটে আওমিলিগ আর কতটা সিটে বিনপি তার একটা, বরাবর টুটাল হিসাব স্যংখা, লিখে দিলে, কিছু মানুষ বুঋতে পারত
Total Reply(0)
Farhan ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৩৫ এএম says : 0
কতটা সিটে আওমিলিগ আর কতটা সিটে বিনপি তার একটা, বরাবর টুটাল হিসাব স্যংখা, লিখে দিলে, কিছু মানুষ বুঋতে পারত
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন