ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

আশা-আশঙ্কার দোলাচলে কুমিল্লার ভোটাররা

কুমিল্লা থেকে সাদিক মামুন | প্রকাশের সময় : ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৪ এএম

অপেক্ষার পালা শেষ। এবার আশা-আশঙ্কার ভোট। আজ সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলবে বিরতীহীন ভোটগ্রহণ। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে কুমিল্লার ১১টি আসনে নেয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তা। সবকটি আসনেই লড়াই হবে নৌকা আর ধানের শীষের। তফসীল ঘোষণা আর প্রতীক বরাদ্দের পর কুমিল্লার ১১টি আসনে জমে ওঠে নির্বাচনী প্রচারণা। ভোটের মাঠে শুরু হয় রাজনৈতিক উত্তাপ-উত্তেজনা ঘিরে সহিংসতার মতো নানা ঘটনা। আজ সুষ্ঠু পরিবেশে ভোট দিতে প্রস্তুত কুমিল্লার ৩৮ লাখাধিক ভোটার। তবে ভোট নিয়ে আশা ও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন সাধারণ ভোটাররা।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা জেলার ১১টি সংসদীয় আসনে ভোটার সংখ্যা ৩৮ লাখ ৭৮ হাজার ৬০৪ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১৯ লাখ ৫৩ হাজার ৮৬৫ জন এবং মহিলা ভোটার ১৯ লাখ ২৪ হাজার ৭৩৯ জন। ভোট কেন্দ্র ১৩১৮টি এবং ভোট কক্ষের সংখ্যা ৭৫৭৮টি। এসব কেন্দ্রে ভোট গ্রহণের দায়িত্বে থাকবেন ১৩১৮জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৭৫৭৮জন সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার। আর ভোটের নিরাপত্তায় নির্বাচনের মাঠে থাকবে সেনাবাহিনীর ৪৬টি, বিজিবির ২৯টি, পুলিশের ২০ স্ট্রাইকিং ফোর্স এবং পুলিশ বাহিনীর ১০০টি মোবাইল টিম। এছাড়াও নির্বাচনী এলাকার কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডে ৬জন, কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকায় ১জন এবং ১৭ উপজেলায় ১জন করে মোট ২৪জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন।

সুষ্ঠু ভোটের আয়োজনে নির্বাচন কমিশন বদ্ধ পরিকর, এমন আশ্বাসেও শঙ্কা কাটছে না কুমিল্লার ভোটারদের। নির্ভয়ে ভোট দিতে পারবে কিনা এনিয়ে আতঙ্কে রয়েছেন সাধারণ ভোটাররা। গতকাল কুমিল্লার বিভিন্ন স্তরের ভোটারের সাথে কথা বলে জানা যায় নির্বাচন ঘিরে সাধারণ মানুষের উৎকণ্ঠার বিষয়টি। তবে মানুষ ভোট দিতে মুখিয়ে আছেন। ভোটাররা জানান, দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী যেহেতু মাঠে আছে তাই ভোটকেন্দ্রে নিরাপত্তা থাকবে। আর এমন পরিবেশ থাকলে ভোট হবে উৎসবমুখর। আবার অনেক ভোটার ঘর থেকে বেরিয়ে ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার নিরাপদ পরিবেশ বিঘে্নর আশঙ্কা করছেন। বিশেষ করে ভোটকেন্দ্রের বাইরে শহর গ্রামগঞ্জের সংযোগ সড়কগুলোতে সকাল থেকে কড়া টহল ব্যবস্থা থাকলে ভোটাররা আশঙ্কা নয়, আশা আকাঙ্খা নিয়েই ভোট দিতে পারবে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে।

কুমিল্লার জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল ফজল মীর বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু করার লক্ষ্যে নজীরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। কোথাও অনিয়ম হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা রয়েছে। আমরা আশা করি আনন্দমুখর পরিবেশে কুমিল্লায় ভোট হবে। কোনরকম শঙ্কা না রেখে ভোটাররা কেন্দ্রে আসবেন এবং নির্বিঘে্ন নিরাপদে ভোট দিয়ে ঘরে ফিরবেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন