বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ফিলিস্তিন জবরদখল করে ইসরাইল রাষ্ট্র গঠন ছিল মৌলিক ভুল : লিভিংস্টোন

প্রকাশের সময় : ৯ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : লন্ডন নগরীর সাবেক মেয়র কেন লিভিংস্টোন বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে ইসরাইল সৃষ্টি ছিল একটি বড় দুর্যোগ বা বিপর্যয় এবং তা বিশ্বকে একটি সম্ভাব্য পরমাণু যুদ্ধের দিকে নিয়ে যেতে পারে। এ সময় তিনি ফিলিস্তিনকে জবরদখল করে সেখানে ইসরাইল রাষ্ট্র গঠনের কাজটি একটি মৌলিক ভুল ছিল বলেও মন্তব্য করেন। লিভিংস্টোন এর আগে বলেছিলেন, হিটলার ছিলেন ইহুদিবাদী। লেবার দলের তার এক সহকর্মী ইসরাইলকে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে যাওয়া উচিত বলে যে মন্তব্য করেছেন তার প্রতিও তিনি সমর্থন দিয়েছেন। আর এসবের পরিণতিতে লেবার দলে লিভিংস্টোনের সদস্যপদ স্থগিত রাখা হয় গত সপ্তায়। ইসরাইল-বিরোধী বক্তব্য রাখার কারণে গত দুই মাসে ব্রিটেনের প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির অন্তত ৫০ জনের সদস্যপদ স্থগিত রাখা হয়েছে।
আরবি টেলিভিশন আল গ্বাদ আল আরবি’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে লন্ডনের সাবেক এই মেয়র বলেছেন, ফিলিস্তিনকে জবরদখল করে সেখানে ইসরাইল গঠনের কাজটি একটি মৌলিক ভুল ছিল। কারণ ফিলিস্তিনি জাতি এ অঞ্চলে বসবাস করে আসছে দুই হাজার বছর ধরে। লিভিংস্টোনের এই সাক্ষাতকারের অনুবাদ প্রকাশ করেছে মিডলইস্ট মিডিয়া রিসার্চ ইন্সটিটিউট। সাক্ষাতকারের একাংশে তিনি বলেছেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ব্রিটেন ও যুক্তরাষ্ট্রে ইহুদিদের পুনর্বাসন করে কিছু উত্তেজনা নিরসন করা যেতো। লন্ডনের সাবেক মেয়র বলেন, বিকল্প পন্থায় সব ইহুদিকেই পুনর্বাসন করা যেত। অথচ ৭০ বছর পর আজও পরিস্থিতি উত্তেজনাপূর্ণ রয়ে গেছে এবং পরমাণু যুদ্ধসহ আরো অনেক যুদ্ধ হতে পারে এই কারণে। ইসরাইলবিরোধী এসব বক্তব্যকে সেমিটিক-বিরোধী বলে উল্লেখ করছে ইসরাইলপন্থী ও ইহুদিবাদী মহল। অথচ সেমিটিক বলতে আরবদেরও বোঝায়। সন্ত্রাসী তাকফিরি-ওয়াহাবি গোষ্ঠী আইএস বা দায়েশ সৃষ্টিতেও ইসরাইলের হাত ছিল এবং ইসরাইল দায়েশকে মদদ যুগিয়ে যাচ্ছে বলেও লেবার দলের কোনো কোনো সদস্য মন্তব্য করেছেন। এপি। 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
MD SOHAN ৯ মে, ২০১৬, ৮:৩৬ এএম says : 0
আমি ও একমত।।
Total Reply(0)
Akram Shaikh ৯ মে, ২০১৬, ১০:৪৩ এএম says : 0
এ ভুলটি আমেরিকা, ইংল্যান্ড এর লিডারশীপ এ ইউরোপিয়ানদের অর্থায়নে হয়েছে শুধুমাত্র মুসলিমদের অশান্তিতে রাখার জন্য।
Total Reply(0)
Shawkat Ali ৯ মে, ২০১৬, ১০:৪৪ এএম says : 0
Heartiest congratulation, Mr. Livingstone. Your opinion reconfirms that truth always prevails. It is a fact that Lord Balfour and then British PM were the main actor of creating the illegitimate state of Israel, thereby creating a cancer in the Middle East. This state has proved beyond doubt that as long as it does not change its policy and strategy, the world will never see peace.
Total Reply(0)
Md Emteage Bakul ৯ মে, ২০১৬, ১০:৪৫ এএম says : 0
অনেক দেরীতে হলেও সত্যটা বুঝতে পারল।
Total Reply(0)
Sifat ৯ মে, ২০১৬, ১০:৪৫ এএম says : 0
পৃথিবীর ক্যান্সার এটা
Total Reply(0)
Saki ৯ মে, ২০১৬, ১০:৫২ এএম says : 1
ইরাক দখল এ গ্রহকে অাই এস ভীতিকর করে তুলেছে।কিন্তু এ সব কিছুর মূলে ইসরায়েল তৈরী নয় কি
Total Reply(0)
sadek ৯ মে, ২০১৬, ১১:০৯ এএম says : 0
In future Israel will be main enemy for those who help them to make the state.
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন