ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ১৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার জমি দখলের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:৫৯ পিএম

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার জমি দখলের অভিযোগ আনা হয়েছে। জমির মালিক মুক্তিযোদ্ধা মৃত নুরুল আফছারের স্ত্রী নিলুফার বেগম (৫৫) বুধবার নোয়াখালি প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ করেন। আদালতে ভূমি আইনে অভিযোগকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।
লিখিত বক্তব্যে নিলুফার বেগম জানান, ১৯৮২ সালে কাতার থাকাকালীন সময় আমার স্বামীর নামে চর কাঁকড়া মৌজার জেলা জরিপী ১২৪৭ এম. আর. আর ১৩২০ ও ১৩২১ এবং জমাখারিজ ৪৫৭০, জোনাল জরিপী ডিপি ৫৩৩ নং খতিয়ানভুক্ত সাবেক ১১০০ দাগের ১ আনা ২৬ ডিং ভ’মির আন্দরে ৩.৯২ ডিং ভ’মি যাহা হাল ১৬৫৮ দাগের ভ’মি কাতার কাতার সমিতির মাধ্যমে খরিত করি। ২০১২ সালে আব্দুল্লাহ আল মামুন গং আমাদের অনুপস্থিতিতে উক্ত জমি দখলের পায়তারা করে।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও জানান, বিভিন্ন সময় লোক মারফতি তিনি জানতে পারেন তার জমিটি আব্দুল্লা আল মামুন বিক্রি করার পায়তারা করেন। পরে জানতে পরি কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল তার স্ত্রী সেলিনা আক্তারের নামে ক্রয় করিতে ইচ্ছা প্রকাশ করে। আমি তাকে যাবতীয় কাগজ দেখানোর পরেও আব্দুল্লা আল মামুন থেকে নামমাত্র তার স্ত্রীর নামে ভুয়া রেজিস্ট্রি করে। আমি আদালতে তাদের বিরুদ্ধে ভ’মি আইনে মামলা করি। তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ের সহযোগিতা কামনা করেন।
এই বিষয়ে মিজানুর রহমান বাদল জানান, বিষয়টি তিনি বসে সমাধাণ করার জন্য নিলুফার বেগমের সঙ্গে বসতে চেয়েছেন। কিন্তু নিলুফার বেগম বসেননি বলেও দাবি করেন। বিষয়টিকে তিনি ষড়যন্ত্র হিসেবে অবিহিত করেছেন।
অন্যদিকে নিলুফার বেগম বলেন, মিজানুর রহমান কোন দিন তার সঙ্গে যোগাযোগ করেননি। বরং তিনি মিজানুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করে সমাধান করতে বলেছেন, ফোনও দিয়েছেন কিন্তু মিজানুর রহমান তাতে কোন সারা দেননি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন