সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

মোহামেডান-আবাহনী লড়াইয়ে কি ফিরবে সেই উত্তাপ?

প্রকাশের সময় : ১২ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম থেকে ক্রিকেট ফিরেছে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে। নিজস্ব ঠিকানায় ক্রিকেটের স্থায়ী বন্দোবস্ত হয়েছে, বেড়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের জৌলুস। কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেটের সেই আকর্ষণ, উন্মাদনা, উত্তেজনার সেই ঝাঁঝটাই যে নেই এখন। নব্বই দশকে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে মোহামেডান-আবাহনীর ক্রিকেট লড়াইয়ে টিকিট বিক্রি থেকে ৭ লাখ টাকা ছাড়িয়ে যাওয়ার অতীত আছে, দু’দলের ক্রিকেট যুদ্ধকে কেন্দ্র করে সমর্থকদের রণক্ষেত্রের অতীতও আছে। অথচ, মোহামেডান-আবাহনীর লীগ ম্যাচে এখন আর সেই উত্তাপ যায় না পাওয়া। টিকিটহীন স্টেডিয়ামে পর্যন্ত খেলা দেখতে দু’দলের সমর্থকদের মন টনে না! বাইনো কুলারের প্রয়োজন পড়ে না, খালি চোখেই দু’দলের সমর্থক সংখ্যা গুনে বলা যায়! মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে হাজির করাতে এখন উল্টো দুই জায়ান্ট অফিসিয়ালদের করতে হয় চেনা-জানাদের ফোন, দিতে হয় লাঞ্চের অফার।
একাডেমী ভবনে এক ছাদের নিচে দু’দলের টেন্ট, এক মাঠে পাশাপাশি অনুশীলনÑএখন লড়াইয়ের আগে যে লড়াইয়ের উত্তাপের পরিবর্তে সৌহার্দের বার্তা যে দিচ্ছে। প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগে গত তিন মওশুমে দুই জায়ান্ট ট্রফিহীন কাটানোয় এখন যে আর এই দল দু’টির লড়াইয়ে নেই আগের উত্তাপ। তারপরও লড়াইটি মোহামেডান-আবাহনীর। মোহামেডান যেখানে ৮ বছর পর শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশনে, সেখানে ২০১০-১১’র পর আবাহনীর মিশনও অভিন্ন। মুশফিকুর রহিম-ভার্সেস তামীম ইকবালের ব্যাট বলের লড়াইয়ে সেই অতীত ঝাঁঝটাই যে ফিরে পেতে চায় সমর্থকরা।
চাচা আকরাম খান যখন আবাহনীর অধিনায়ক, তখন শিশু তামীম। সেই শৈশবে শুনেছেন মোহামেডান-আবাহনীর ক্রিকেট ম্যাচে রণাঙ্গনে রূপ পাওয়ার কথা। এই প্রথম আবাহনীর অধিনায়কত্ব নিয়ে চির প্রতিদ্বন্দ্বীর বিপক্ষে লড়াইয়ে অবতীর্ণ যখন তামীম, তখন অতীত ঐতিহ্যের সঙ্গে মর্যাদার লড়াইয়েরও ঝাঁঝ পাচ্ছেন এই বাঁ হাতিÑ‘আকরাম চাচা, নান্নু ভাই এক এক জন আবাহনী, মোহামেডানে দশ-পনের বছর ধরে খেলেছেন। তখনকার সেই অনুভূতিটা এখন হয়ত নেই। তবে লড়াইটা যখন আবাহনী-মোহামেডান, তখন একটু উত্তেজনা তো থাকবেই। আমরা আবাহনীকে রিপ্রেজেন্ট করছি। মোহামেডানের খেলোয়াড়রাও জানে তারা মোহামেডানকে রিপ্রেজেন্ট করছে। এই দুইটা দলের ইতিহাস আছে। ওই ইতিহাস মাথায় রেখে আমরা মাঠে লড়াই করতে মুখিয়ে আছি। এছাড়া দর্শকদের মধ্যে দুই দলের লড়াই নিয়ে বাড়তি উন্মাদনা থাকে। আমরা চেষ্টা করবো এই চ্যালেঞ্জটা জেতার।’
তবে মোহামেডানÑআবাহনী লড়াইয়ের একটা ঝাঁঝ কিন্তু দিয়েছেন পেস বোলার শাহাদত হোসেন রাজিব। গৃহকর্মী নির্যাতন মামলায় ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ যখন তিনি, তখন মামলা আপোষরফার শর্তে তাকে প্রিমিয়ার ডিভিশনে খেলার অফার দিয়েছিল মোহামেডান। অনুশীলনও করেছেন তিনি মোহামেডানের নেটে।  অথচ, গত পরশু বিসিবি’র সাধারন ক্ষমায় প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগে খেলার পথ যখন হয়েছে প্রশস্ত, তখন মোহামেডান নয়, আবাহনীকে নিয়েছেন তিনি বেছে! এবং যথারীতি গতকাল আবাহনীর পক্ষে ছাড়পত্রে স্বাক্ষর করেছেন এই টেস্ট ক্রিকেটার!
মোহামেডান-আবাহনীর দ্বৈরথের দিনে ফতুল্লায় প্রাইম দোলেশ্বর-লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের ম্যাচটিও কম গুরুত্বপূর্ণ নয়। বিকেএসপিতে প্রাইম ব্যাংক-ভিক্টোরিয়ার ম্যাচেও আছে বিগ ম্যাচের উত্তাপ।

৫ম রাউন্ড শেষে পয়েন্ট তালিকা
দল    ম্যাচ    জয়    টাই    হার    পয়েন্ট     নেট রান
মোহামেডান    ৫    ৪    -    ১    ৮    +০.৭৮৪
প্রাইম দোলেশ্বর    ৫    ৪    -    ১    ৮    +০.৪৯৫
ভিক্টোরিয়া    ৫    ৩    ১    ১    ৭    +০.২৯১
লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ    ৫    ৩    ১    ১    ৭    +০.১৪৬
গাজী গ্রুপ    ৫    ৩    -    ২    ৬    +০.৫০৭
আবাহনী    ৫    ৩    -    ২    ৬    +০.৪০৬
প্রাইম ব্যাংক    ৫    ৩    -    ২    ৬    +০.২১৪
শেখ জামাল    ৫    ৩    -    ২    ৬    -০.২১৪
ব্রাদার্স    ৫    ২    -    ৩    ৪    -০.২৬৪
কলাবাগান কে সি    ৫    ১    -    ৪    ২    -০.৫৬০
কলাবাগান একাডেমী    ৫    ০    -    ৫    ০    -০.৯২১
সিসিএস    ৫    ০    -    ৫    ০    -১.০৩৬

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps