ঢাকা, শুক্রবার , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের শ্রেষ্ঠতম মাধ্যম জিকির

ছারছীনার ছোট শাহ্ সাহেব

নেছারাবাদ সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:১০ এএম

জিকির করা আল্লাহর নির্দেশ। নিয়মিত জিকির ছাড়া পরিপূর্ণ মুমিন হওয়া যায় না। জিকিরের দ্বারা অন্তরের ময়লা দূর হয়ে নামাজের খুশু-খুজু পয়দা হওয়ায়, ইবাদতে একাগ্রতা তৈরী হয়। নামাজ ও কোরআন তিলাওয়াতকে জিকির বলা হলেও প্রিয়ন নবী (স.) এর ঘোষণা মোতাবেক উত্তম জিকির হচ্ছে কালিমায়ে তাইয়্যেবাহ “লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ”।
জিকিরের ফজিলত সম্পর্কে পবিত্র কুরআন ও হাদিসে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আমরা কিভাবে জিকির করব, কত পরিমাণে করব এর জন্য পীরের হাতে বায়াত। তাই পীরের নির্দেশনা মোতাবেক নিয়মিত আল্লাহর জিকির করতে পারলে হিংসা-বিদ্বেশ দূর হয়ে অন্তর পরিষ্কার হবে নি:সন্দেহে এবং এর দ্বারা নিজেকে খাঁটি মানুষে পরিণত করা যাবে। এ জন্য ছারছীনা দরবারের প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা শাহ্ সূফী নেছারুদ্দীন আহমদ (রহঃ) ও মুজাদ্দিদে যামান শাহ্ সূফী আবু জা’ফর মোহাম্মাদ ছালেহ (রহঃ) মুরীদানদের নিয়মিত জিকির করার নির্দেশ দিয়েছেন।
মানুষের ভিতরের অংশ পরিষ্কার করার শ্রেষ্ঠ ঔষধ জিকির। জিকির অস্বীকার করার কোন উপায় নেই। যারা জিকিরকে অস্বীকার করে প্রকৃত পক্ষে তারা কুরআন সুন্নাহকেই অস্বীকার করছে। এ সব ভ্রান্ত চিন্তশীল লোকদের থেকে আমাদের সর্বদা সজাগ ও সতর্ক থাকতে হবে।
গত বুধবার ছারছীনা শরীফের মরহুম পীর ছাহেব কেবলাদ্বয়ের ইন্তেকাল বার্ষিকী উপলক্ষে ছারছীনা দরবার শরীফ কর্তৃক আয়োজিত তিনদিনব্যাপী ঈছালে ছওযাব মাহফিলের প্রথম দিন বাদ মাগরিব হযরত পীর ছাহেব কেবলার ছোট ছাহেব জাদা আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ আবু বকর মোহাম্মদ ছালেহ নেছারুল্লাহ উক্ত কথা বলেন। প্রতিদিন বাদ ফজর ও বাদ মাগরীব মাহফিলে আগত হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদেরকে হযরত পীর ছাহেব কেবলা তা’লীম প্রদান করবেন।
মাহফিলে ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াবলীর উপর আলোচনা করেন- মাও মুহাঃ মামুনুল হক, মাওঃ মুহাঃ মুহিব্বুল্লাহ আল মাহমুদ, মাওঃ আ.জ.ম ওবায়দুল্লাহ।
মাহফিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- পটুয়াখালী জেলার জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ মতিউল ইসলাম চৌধুরী প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
Md Rajib ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:১৭ এএম says : 0
পিরের হাতে বায়াত নিতে হবে কেন?
Total Reply(0)
Saifulislam Bahar ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:১৭ এএম says : 0
‌জি‌কির হ‌লে চল‌বে নামাজ লাগ‌বে না
Total Reply(0)
Sana Ullah Khan Sanaullah ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:১৭ এএম says : 0
আগে নামাজ পরে জিকির। নামাজ না পড়ে জিকির করলে কি হবে।
Total Reply(0)
Fokruddin Rana ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:১৭ এএম says : 0
ঠিক ঠিক ঠিক ???
Total Reply(0)
Sarkar Anwar ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:১৭ এএম says : 0
সত্যিই
Total Reply(0)
Abdullah Kawsar ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৭:৩২ এএম says : 0
Namaz is farz mandatory compulsory. Some ignorant guys think only zikir will do. In fact namaz is such an ibadat that contains zikir in it. For example, tasbih in sejda is a pure zikir.
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন