ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

অভিবাসন ঠেকাতে ডেনমার্কে বিতর্কিত আইন পাস

প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সিরিয়াসহ মধ্যপ্রাচ্য, এশিয়া এবং আফ্রিকা থেকে ইউরোপে হাজার হাজার অভিবাসী আসার প্রেক্ষাপটে আশ্রয়প্রার্থীদের নিরুৎসাহিত করতে এক বিতর্কিত পরিকল্পনা পাস করেছে ডেনমার্ক। ডেনিশ পার্লামেন্টে গত মঙ্গলবার পাস হওয়া ওই পদক্ষেপগুলোয় পুলিশকে অভিবাসী আশ্রয়প্রার্থীদের মূল্যবান ব্যক্তিগত সামগ্রী বাজেয়াপ্ত করার ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। এছাড়া আরো বিধান করা হয়েছে যে, আশ্রয়প্রার্থীদের তাদের পরিবারের সদস্যদেরকে ডেনমার্কে নিয়ে আসার আগে তিন বছর অপেক্ষা করতে হবে। পার্লামেন্টে সুস্পষ্ট সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে বিলটি পাস হয়। এই পরিকল্পনা নিয়ে বিতর্কের সময় পার্লামেন্টে একাধিকবার উত্তপ্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। এ পরিকল্পনায় বলা হয়েছে, শরণার্থীরা দেড় হাজার ডলারের বেশি মূল্যের সম্পদ রাখতে পারবে না। তবে বিয়ের আংটির মতো যেসব জিনিসের সাথে স্মৃতি বা আবেগ জড়িত সেগুলো এর বাইরে থাকবে। ডেনমার্ক বলছে, এটা সেদেশের জনকল্যাণ সংক্রান্ত আইনের সাথে সঙ্গতি রেখেই করা হয়েছে। ডেনমার্কে সামাজিক কল্যাণ ভাতা পেতে হলে দেড় হাজার ডলারের বেশি মূল্যের সম্পদ বিক্রি করে দিতে হয়। খবরে বলা হয়, গত মঙ্গলবার দেশটির সংসদে ৮১-২৭ ভোটে পরিকল্পনাটি পাস হয়। সংসদে এ নিয়ে আলোচনায় বেশ উত্তপ্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। দেশটির স্যোশাল ডেমোক্রেটরা পরিকল্পনার পক্ষে ভোট দেন। এ পরিকল্পনায় বলা হয়েছে, কোনো শরণার্থীর কাছে ১ হাজার ৪৫০ ডলারের বেশি থাকলে তা ড্যানিশ সরকারের কাছে জমা দিতে হবে অথবা সরকার বাজেয়াপ্ত করতে পারবে। বাজেয়াপ্ত সম্পদ বা নগদ অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা হবে। তবে বিয়ের আংটির মতো যেসব জিনিসের সঙ্গে স্মৃতি বা আবেগ জড়িত, তা এর আওতার বাইরে থাকবে। ডেনমার্কের দাবি, এ পরিকল্পনা দেশটির জনকল্যাণ আইনের সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই করা হয়েছে। ডেনমার্কে সামাজিক কল্যাণ ভাতা পেতে হলে দেড় হাজার ডলারের বেশি মূল্যের সম্পদ বিক্রি করে দিতে হয়। পরিকল্পনার বিরোধিতাকারীরা এটাকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইহুদিদের কাছ থেকে মূল্যবান সম্পদ জব্দ করার সঙ্গে তুলনা করেছেন। চলতি বছরে ডেনমার্ক ২০ হাজার শরণার্থী আসবে আশঙ্কা করছে। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ১৫ হাজার। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ও ইউরোপীয় কমিশন এ পরিকল্পনার সমালোচনা করেছে। শুধু ডেনমার্ক নয় এর আগে সুইজারল্যান্ডও অভিবাসীদের সম্পদ জব্দকরণের আইন পাস করে। গত বছর ১শ’ জন শরণার্থীর সম্পদ জব্দ করার জন্য চলতি মাসেই সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছে সুইজারল্যান্ড। দেশটির আইন অনুসারে ১ হাজার ডলারের বেশি সম্পদ সরকারকে দিয়ে দিতে হবে। বিবিসি, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন