ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৯, ৫ বৈশাখ ১৪২৬, ১১ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

আন্তর্জাতিক সংবাদ

সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র : মাদুরো

রাশিয়ায় ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্থানান্তর ভেনেজুয়েলার

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো তার দেশে যুক্তরাষ্ট্রের ত্রাণ পাঠানোর ঘটনাকে উপহাস করে বলেছেন, এর আগে মার্কিন ত্রাণ গ্রহণ করে আফগানিস্তান, ইরাক, সিরিয়া ও লেবানন ধ্বংস হয়েছে। তিনি শনিবার রাজধানী কারাকাসে এক সংবাদ সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্রের কথিত মানবিক ত্রাণকে ‘বিষ’ বলে অভিহিত করেন। কোনও অবস্থাতেই এই ত্রাণ ভেনিজুয়েলায় প্রবেশ করতে দেয়া হবে না বলে তিনি সতর্ক করে দেন। যুক্তরাষ্ট্র ত্রাণের নামে ভেনেজুয়েলার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করতে চায় বলে অভিহিত করেন প্রেসিডেন্ট মাদুরো। মার্কিন সরকার লাতিন আমেরিকার দেশটির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের একই সময়ে সেদেশে মানবিক ত্রাণ পাঠিয়েছে। ত্রাণের খাদ্য ও ওষুধবাহী কিছু ট্রাক বৃহস্পতিবার কলম্বিয়ার সীমান্ত শহর কুকুটায় পৌঁছায়। ভেনেজুয়েলার বিরোধীদলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো গত মাসে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের সমর্থন নিয়ে নিজেকে ভেনেজুয়েলার অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করলে দেশটিতে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা দেখা দেয়। অপর এক খবরে বলা হয়, আন্তর্জাতিক বাজারে তেল বিক্রি থেকে পাওয়া অর্থ যুক্তরাষ্ট্রের বদলে রাশিয়ার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্থানান্তরের উদ্যোগ নিয়েছে ভেনেজুয়েলা। এর অংশ হিসেবে ইতোমধ্যেই রাষ্ট্রায়ত্ত তেল কোম্পানি পিডিভিএসএ’র পক্ষ থেকে ক্রেতাদের রাশিয়ার একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের নাম্বার সরবরাহ করা হয়েছে। ওই অ্যাকাউন্টেই তেল কেনার অর্থ জমা দিতে বলা হয়েছে তাদের। প্রতিষ্ঠানটির জয়েন্ট ভেঞ্চারগুলোকেও একই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। রাশিয়ার গ্যাজপ্রমব্যাংক এও-তে স¤প্রতি নতুন এই অ্যাকাউন্টটি খোলা হয়েছে। সূত্র ও অভ্যন্তরীণ নথির বরাত দিয়ে রবিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স। পিডিভিএসএ’র বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞায় এমনিতেই ওয়াশিংটনের ওপর ক্ষিপ্ত ছিল কারাকাস। এর সঙ্গে যুক্ত হয় ভেনেজুয়েলার তেল খাত থেকে উপার্জিত অর্থ দেশটির স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট হুয়ান গুইদো’কে দেওয়ার ঘোষণা। মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন স¤প্রতি ওয়াশিংটনে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো এবং তার মিত্ররা এখন থেকে আর দেশটির জনগণের সম্পদ হরণ করতে পারবে না।’ অন্যদিকে রাষ্ট্রের তেল বিক্রি থেকে উপার্জিত অর্থ সরকারবিরোধী আন্দোলনে ব্যয়ের হুঁশিয়ারি দেন স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট হুয়ান গুইদো। এমন পরিস্থিতিতেই বিশ্ববাজারে তেল বিক্রিলব্ধ অর্থ জমা দিতে রুশ ব্যাংকের শরণাপন্ন হয় ভেনেজুয়েলা সরকার। রয়টার্স, আনাদোলু এজেন্সি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (9)
Badruzzaman Sapneel ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:১৯ এএম says : 0
America gonna eat কাঁচা bamboo from Russia
Total Reply(0)
Mostafa Kamal ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 0
এতদিনে এই পদক্ষেপ ? টু লেইট নাও। হুগো শ্যাভেজের আমলেই এটা করা উচিত ছিল।
Total Reply(0)
রিদওয়ান বিবেক ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
আমিরাত মার্কিন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এমাসে আরো বিপুল স্বর্ণ কিনবে।
Total Reply(0)
Md Raihanul Karim ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 0
অন্যধর্মের হলেও মাদুরো সঠিক কথাই বলছে।
Total Reply(0)
Bellal Hossain ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 0
RIGHT
Total Reply(0)
Suvro Ahmed ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৩ এএম says : 0
এই জিনিসটাই আরব দেশ সহ মুসলিম দেশের শাসকরা বুঝেনা।
Total Reply(0)
Md Hasibul Hasan Mitul ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৪ এএম says : 0
সত্য বলেছেন মাদুরো । ভেনেজুয়েলার তেলের দিকে শকুনি নজর পড়েছে আবার আমেরিকার । আর পশ্চিমারা সেই একই ভঙ্গিতে বেহায়ার মতো সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে । যাই হোক আমেরিকার পতন একদিন হবেই আর সেটা হবে পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ ।
Total Reply(0)
Masud Rana Rana ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৫ এএম says : 0
এরা শান্তি চুক্তির নামে পৃথিবীতে অশান্তি সৃষ্টি
Total Reply(0)
Sadiqur Rahman ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১:২৫ এএম says : 0
পৃথিবীতে অশান্তির সূচনা ওরাই করেছে।এখন অবধি ওরাই।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন