মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২১ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

হারের বৃত্তেই মোহামেডান

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

ঘরোয়া ফুটবলের মর্যাদাপূর্ণ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) হারের বৃত্তেই ঘুরপাক খাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী ঢাকা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। প্রথম ম্যাচে টিম বিজেএমসিকে ২-১ ব্যবধানে হারানোর পর টানা চার ম্যাচেই হারলো তারা। গতকাল সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শেষ হওয়া ঢাকা ভেন্যুর খেলায় সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ২-১ গোলে হারায় মোহামেডানকে। বিজয়ী দলের হয়ে রাশিয়ান ফরোয়ার্ড ডেনিশ বলশেকভ ও কলম্বিয়ান ডিফেন্ডার দেইনের আন্দ্রেস করদোবা একটি করে গোল করেন। মোহামেডানের পক্ষে এক গোল শোধ দেন স্থানীয় ফরোয়ার্ড আমির হাকিম বাপ্পী। এই জয়ে ছয় ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট পেয়ে তালিকার তৃতীয়স্থানে উঠে আসলো সাইফ স্পোর্টিং। পাঁচ ম্যাচে মাত্র ৩ পয়েন্ট পাওয়া মোহামেডানের জায়গা হলো এগারোতম স্থানে।

এক সময় সাদাকালো জার্সীকে গর্বের মনে করতে ফুটবলাররা। ঐতিহ্যবাহী এই জার্সী গায়ে চাপালে যেন খেলোয়াড়দের মনোবল বেড়ে যেত। মোহামেডানের সাদাকালো জার্সি ঢাকার লাখো ফুটবলপ্রেমীর মনে স্টেডিয়ামে টেনে নিয়ে আসতো। অথচ এখন সেইসব দিন অতীত। আগের সেই মোহামেডান নেই। করুণ দশায় হারিয়েছে নিজেদের সুনাম। ঘরোয়া ফুটবলের এক সময়ের চ্যাম্পিয়ন দলটি এখন হিমশিম খাচ্ছে বিপিএলে টিকে থাকতে। লিগের প্রথম তিন আসরের রানার্সআপরা বর্তমানে রেলিগেশন এড়াতেই ব্যস্ত।

এবারের লিগে শক্তির দিক দিয়ে মোহামেডানের চেয়ে অনেক এগিয়ে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। তাইতো কাল ম্যাচের শুরু থেকেই সাদাকালোদের চেপে ধরে তারা। যার ফলও ম্যাচের ১০ মিনিটের মাথায়। এসময় মোহামেডানের সীমানায় বল পেয়ে সাইফের দক্ষিণ কোরিয়ান ফরোয়ার্ড সিওনজিল পার্ক পাস দেন সতীর্থ রাশিয়ান ফরোয়ার্ড ডেনিশ বলশাভককে। ড্যানিশ তখন মোহামেডানের বক্সের কয়েক গজ দূরে বল নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছিলেন। এরই মধ্যে গোলবার ছেড়ে কিছুটা এগিয়ে আসেন মোহামেডান গোলরক্ষক সারোয়ার জাহান। সুযোগ বুঝে বাঁ পায়ে উঁচু শট নেন ডেনিশ। বিপদ বুঝে দ্রুত পিছিয়ে যান গোলরক্ষক সারোয়ার। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। ততক্ষণে সারোয়ারের মাথার উপর দিয়ে বল আশ্রয় নেয় জালে। এগিয়ে যায় সাইফ (১-০)। ম্যাচের ২৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করার সুযোগ আসে সাইফের। এসময় বল নিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েন সিওনজিল। মোহামেডানের গোলরক্ষককে কাটিয়ে সামনে এগিয়েও যাচ্ছিলেন তিনি। তখন তাকে ফাউল করে বসেন সারোয়ার। রেফারি সুজিত ব্যনার্জী সারোয়ারকে হলুদ কার্ড আর সাইফের পক্ষে পেনাল্টির নির্দেশ দেন। কিন্তু পার্কের ডান পায়ের শট সাইডবারে লেগে মাঠের বাইরে চলে যায়। হতাশা নামে সাইফ শিবিরে।

৪৭ মিনিটে বাঁ প্রান্ত দিয়ে সতীর্থকে উদ্দেশ্য করে গড়ানো পাস দেন পার্ক। ছোট বক্সের কাছে বল বুঝে নিয়ে একটু থেমে ঠান্ডা মাথায় দারুণ শটে গোল করেন সাইফের কলম্বিয়ান ডিফেন্ডার দেইনের আন্দ্রেস করদোবা। যথারীতি বল রুখে দিতে আপ্রাণ চেষ্টা করেন গোলরক্ষক সারোয়ার। কিন্তু ঝাঁপিয়ে পড়েও বলের নাগাল পাননি তিনি। ফলে দ্বিতীয়বারের মতো মোহামেডানের জালে বল জড়ায় (২-০)। দ্বিতীয়বার গোল হজম করে ম্যাচে ফেরার চেষ্টায় আক্রমণাত্নক ফুটবল খেলে মোহামেডান। কিছুটা সফলও হয় তারা। ম্যাচের ৬৭ মিনিটে ব্যবধান কমায় সাদাকালোরা। এসময় বাঁ প্রান্তে কর্ণার পায় মোহামেডান। মিডফিল্ডার পাশবন মোল্লার কর্ণারের বল বক্সে লাফিয়ে উঠে হেড করেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড কিংসলে চিগুজি। সে বলেই মাথা ছুইয়ে গোল করেন মোহামেডানের বদলী ফরোয়ার্ড আমীর হাকিম বাপ্পী (১-২)। এরপর দু-তিনটি সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি মতিঝিলের দলটি। ফলে শেষ পর্যন্ত টানা চতুর্থ হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন