সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫ আশ্বিন ১৪২৮, ১২ সফর ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

পাকিস্তানের জন্য দোয়া করলেন কাবা শরীফের ইমাম (ভিডিওসহ)

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ২:৪৩ পিএম | আপডেট : ১২:৪৯ এএম, ১ মার্চ, ২০১৯

মক্কার মসজিদুল হারামের ও কাবা শরীফের প্রধান ইমাম ও বাদশা সালমানের উপদেষ্টা শায়েখ আব্দুর রহমান আল সুদাইস নামাজের জামাতের পর সকল মুসল্লিদের সঙ্গে নিয়ে পাকিস্তানের শান্তি সমৃদ্ধি জন্য মহান আল্লাহর দরবারে এক বিশেষ মোনাজাত করেন। এ সময় তিনি সৌদি আরব, তুরস্ক, বাংলাদেশ সহ বিশ্বের সকল মুসলিম রাষ্ট্রের জন্য দোয়া করেন।
তিনি বলেন, ‘হে আল্লাহ, মুসলিম যে রাষ্ট্রটিই একটু মাথা তুলে দাড়ায় তার প্রতিই দুশমনের বদ নজর পড়ে। হিংসুকদের বুক জ্বলে। স্বাধীনতা ও মৌলিক অধিকারের জন্য কাতারে মরা লাখো মানুষকে দুশমনরা বছরের পর বছর অমানুষিক অত্যাচার নির্যাতনের মাধ্যমে ধ্বংস করে দিতে চাচ্ছে। হে আল্লাহ উম্মাহর পক্ষ থেকে আপনি দুশমন, হিংসুক, আগ্রাসী ও অত্যাচারিদের দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিন। মুসলিম বিশ্বকে সমৃদ্ধ ও সংহত করুন।’
এ সময় তিনি ও হাজার হাজার মুসল্লি কান্নায় ভেঙে পড়েন। দোয়া শেষে পাকিস্তান জিন্দাবাদ, সৌদি আরব জিন্দাবাদ ও মুসলিম বিশ্ব এক হও স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
Hridoy shakh ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৬:৪১ পিএম says : 1
He Allah apni somosto muslim jatike hefajot korun. Pakistan k joy jukto koruu
Total Reply(0)
Azraf ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৫:০১ পিএম says : 1
সত্যি খুভ ভালো লাগলো এমন একটি নিউজ দেখে ।
Total Reply(0)
শামীম ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৫:২৫ পিএম says : 0
সংবাদ প্রকাশে সচেতনতা কাম্য। . --শামীম . দেশের প্রথম সারির একটি দৈনিক পত্রিকার--পত্রিকাটি ৩৩ বছর যাবৎ প্রকাশিত হয়ে আসছে-- অনলাইন ভার্সনে একটি সংবাদ পেলাম : “কাবা শরীফে পাকিস্তানের জন্য দোয়া করলেন ইমাম ও মুসল্লিরা (ভিডিওসহ)”। সংবাদটির সারমর্ম হলো : কাবা শরিফের সম্মানিত প্রধান ইমাম শায়েখ আবদুর রহমান আস-সুদাইস (হাফিযাহুল্লাহ) গতকাল কোনো এক নামাযের পর মুসল্লিদের নিয়ে দুআ করেছেন। সেখানে পাকিস্তান ও পাকিস্তানের জনগণের জন্যে দুআ করেছেন। . খবরটির সত্যতা কতটুকু? একটু পর্যালোচনা করি। . শায়খ আস-সুদাইস অবশ্যই পাকিস্তানের জন্য দুআ করেছেন। তবে গতকালকে প্রকাশ্যে তিনি মসজিদুল হারামে পাকিস্তানকে নিয়ে কোনো দুআ করেননি। মসজিদুল হারাম বা কাবা শরিফে সম্মিলিত দুআ হয় মূলত, রমাযানে ২০ রাকাআত তারাবিহর পর বিতরের কুনুতে; মুসলিম উম্মাহর ওপর কখনো ভয়ানক কোনো বিপদ আসলে ফজরের নামাযে কুনুতে নাযেলায়; জুমুআ ও ঈদের খুতবায় (হাত না তুলে); ইস্তিসকার নামাযের পর (বৃষ্টির জন্যে প্রার্থনা)। এইতো। . গতকালকে এগুলোর কোনো একটিও ছিল না; বরং গতকাল ফজর, মাগরিব ও এশা তিন ওয়াক্তের এক ওয়াক্তেও শায়খ সুদাইস ইমামতি করেননি। ফজরে ইমামতি করেছেন শায়খ হুমাইদ; মাগরিব ও এশায় শায়খ গাযযাওয়ি। হাফিযাহুমাল্লাহ। যোহর আর আসরের কথা বলতে পারছি না। . তাহলে শায়খ আস-সুদাইস কখন গতকাল মসজিদে হারামে দুআ করলেন? . উক্ত পত্রিকায় যে ভিডিও দেখানো হয়েছে (মূলত অডিও), তা আসলে শায়খ আস-সুদাইসেরই দুআ। কিন্তু গতকালকের নয়। অনেকদিন আগের। পাকিস্তানের একটি সমাবেশে তিনি আখেরি দুআ করেছলেন, সেটির ক্লিপ গতকালের বলে প্রকাশ করা হয়েছে। উক্ত দুআ ও সমাবেশের পুরো ভিডিও রয়েছে। যাতে করে উক্ত পত্রিকায় আপলোড করা অডিওর হুবহু মিল পাওয়া যায়। বক্তব্যের পরের কথা ও স্লোগানও হুবহু। মূলত এটি তখনকার অডিও এখনকার নামে চালানো হচ্ছে। . শায়খ আস-সুদাইস পাকিস্তানের জন্য যে দুআ করেছিলেন, আল্লাহ তা কবুল করুন, আমীন। . কিন্তু শায়খের নামে, দুআ করা নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করার আগে ভালোভাবে জেনে নেওয়া আবশ্যিক। নিশ্চিত না হয়ে কোনো সংবাদ প্রকাশ করা উচিত নয়। পাকিস্তানের কোনো ইউটিউব চ্যানেল থেকে এটি শেয়ার করা হয়েছে। সেটির ওপর ভিত্তি করে সংবাদ প্রকাশ করে দেয়া কতটুকু যুক্তিযুক্ত তা জানতে চাই।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন