ঢাকা, শুক্রবার ২১ জুন ২০১৯, ৭ আষাঢ় ১৪২৬, ১৭ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ইসলামী বিশ্ব

এস ৪০০ কিনবেই তুরস্ক

রুশ ক্ষেপণাস্ত্র ক্রয়, তুরস্ককে সতর্ক করল যুক্তরাষ্ট্র

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু বলেছেন, রাশিয়ার কাছ থেকে এস ৪০০ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সংগ্রহে পিছু হটবে না তুরস্ক। কেননা যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ইউএস প্যাট্রিয়ট মিসাইল কিনতে না পেরেই রাশিয়ার কাছ থেকে এটি সংগ্রহের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। বুধবার ওয়াশিংটনে ন্যাটোর ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মেভলুত কাভুসোগলু বলেন, ‘এস ৪০০ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে চুক্তি হয়ে গেছে। এ থেকে আমরা সরে আসবো না।’ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এ সংক্রান্ত এক মন্তব্যের কথাও উল্লেখ করেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ট্রাম্প বলেছিলেন, তার পূর্বসূরি বারাক ওবামা তুরস্কের কাছে ইউএস প্যাট্রিয়ট মিসাইল বিক্রি না করে ভুল করেছিলেন। মেভলুত কাভুসোগলু বলেছেন, রাশিয়ার কাছ থেকে এস ৪০০ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার মানে এই নয় যে, মস্কোর দিকে ঝুঁকে পড়ছে আঙ্কারা। রাশিয়া এবং অন্য মিত্রদের মধ্যে কোনও একটিকে বেছে নিচ্ছে না তুরস্ক। রাশিয়া বা পশ্চিমা দুনিয়ার পক্ষ থেকে তুরস্ককে যে কোনও একটিকে বেছে নিতে বলা উচিত নয়। এর আগে এ বছরই এস ৪০০ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ইস্যুতে তুরস্কের কাছে অত্যাধুনিক এফ ৩৫ যুদ্ধবিমান সরবরাহ স্থগিতের উদ্যোগ নেয় যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে স¤প্রতি তুরস্কের কাছে এফ ৩৫ সরবরাহ স্থগিতের বিষয়টি আঙ্কারাকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। সরবরাহ স্থগিত হয়ে যাওয়ায় এর প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত যন্ত্রপাতির পরবর্তী চালান বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দাবি, রাশিয়ার তৈরি এস-৪০০ কেনা থেকে ন্যাটো মিত্র তুরস্ককে বিরত রাখতে তারা দেশটির কাছে মার্কিন মিসাইল প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বিক্রি করতে আগ্রহী। তবে দফায় দফায় যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধ সত্তে¡ও আঙ্কারা রুশ ক্ষেপণাস্ত্র সংগ্রহ থেকে সরে না আসায় এখন বিকল্প চিন্তা করছেন মার্কিন কর্মকর্তারা। অপর দিকে, রাশিয়ার কাছ থেকে বিশেষ এক ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র কেনাটা পছন্দ করছে না মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এ বিষয়ে তুরস্ককে সতর্ক করে দিয়েছে দেশটি। যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স নিজেই তুরস্ককে এ ব্যাপারে সতর্ক করলেন। বৃহস্পতিবার বিবিসিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে এ খবর জানা যায়। বিমানবিধ্বংসী এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র নিয়েই যুক্তরাষ্ট্রের আপত্তি। এ ক্ষেপণাস্ত্রটি নিজেদের যুদ্ধবিমানের জন্য হুমকি মনে করে যুক্তরাষ্ট্র। বিশেষ করে নিজেদের এফ-৩৫ বিমানের জন্য ক্ষেপণাস্ত্রটি হুমকি বলে মনে করে দেশটি। রাশিয়ার এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র একই সঙ্গে ৮০টি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করতে সক্ষম। উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরীয় দেশগুলোর জোট ন্যাটোর ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ওয়াশিংটনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে মাইক পেন্স বলেন, ‘তুরস্ককে অবশ্যই বেছে নিতে হবে সে ন্যাটো জোটের অন্যতম প্রধান সদস্য হিসেবে থাকতে চায় নাকি বেপরোয়া সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে এ অংশীদারিত্বকে হুমকির মুখে ফেলতে চায়।’ মাইক পেন্স বলেন, ‘তুরস্ক কি ইতিহাসের অন্যতম সফল সামরিক জোটের অংশ থাকতে চায়, নাকি আমাদের এ জোটকে অবজ্ঞার মধ্য দিয়ে নিজেদের অংশীদারিত্বকে জলাঞ্জলি দিতে চায়?’ বিবিসি, আনাদোলু, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
TARIQUL ISLAM ৬ এপ্রিল, ২০১৯, ৩:১৭ পিএম says : 0
Turkey must buy S400 trumph . Kick on fundament of hog USA & Israel . Go forward Ardogarn. All the MIRJAFARS should be punished.
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন