ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

স্বাস্থ্য

জিহবা দেখে রোগ চেনা

ডাঃ মোঃ ফারুক হোসেন | প্রকাশের সময় : ১২ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

জিহবার অগ্রভাগ যদি লাল হয় তবে তা মানবদেহের হৃদযন্ত্রে তাপ সৃষ্টির নির্দেশনা দিয়ে থাকে। কারণ, হৃদযন্ত্রের অবস্থার সঙ্গে জিহবার অগ্রভাগের সম্পর্ক রয়েছে। তবে খেয়াল রাখতে হবে যে মুখের আলসারের কারণে জিহবার অগ্রভাগ লাল হয়েছে কিনা। জিহবার অগ্রভাগের ঠিক পিছনের অংশের সাথে ফুসফুসের যোগসূত্র রয়েছে।জিহবার পাশের অংশ দেখে লিভার বা যকৃতের অবস্থা সম্পর্কে ধারণা করা যায়। জিহবার মধ্যবর্তী অংশ পাকস্থলী, প্লীহা বা হজমের সাথে সংশ্লিষ্ট। জিহবা র পিছনের অংশ কিডনির অবস্থা সম্পর্কে একটি নির্দেশনা প্রদান করে। এছাড়া অসুখ-বিসুখ যেমন-ঠান্ডা এবং হজমজণিত সমস্যা সম্পর্কেও নির্দেশনা প্রদান করে। 

জিহŸার অগ্রভাগ যদি চোখা হয় তবে তা একজন ব্যক্তির স্বাস্থ্যগত দৃঢ় অবস্থানের কথা জানান দিয়ে থাকে। শুধু তাই নয়, জিহŸার অগ্রভাগ যদি চোখা হয় তাহলে ধারণা করা যায় যে ঐ ব্যক্তি মানসিকভাবে আগ্রাসী অথবা আক্রমণাত্মক হতে পারে। তার মানে এই নয় যে, জিহŸার অগ্রভাগ চোখা হলে কেউ আগ্রাসী বা আক্রমণাত্মক মনোভাব সম্পন্ন হবেই। জিহŸার অগ্রভাগ বিভক্ত থাকলে বুঝতে হবে ঐ ব্যক্তির শারীরিক বা মানসিক ভারসাম্য কম থাকলেও থাকতে পারে। এছাড়া চিন্তা ও চেতনা খুব দ্রæত পরিবর্তন হতে পারে। জিহŸার অগ্রভাগ যদি গোলাকৃতির হয় তবে তা মানসিক এবং শারীরিক দৃঢ় অবস্থানের কথা জানান দেয়।
উপরিউক্ত আলোচনা থেকে কেউ যেন কারো জিহŸা দেখার চেষ্টা না করেন। কারণ, এসব ক্ষেত্রে জিহŸা দেখতে হলে বিশেষ কিছু পদ্ধতি এবং কৌশল অবলম্বন করতে হয় যা এই বিষয়ে অভিজ্ঞ একজন ডাক্তারের পক্ষেই সম্ভব। তবে খোলা চোখে জিহŸার অস্বাভাবিক কিছু দেখলে ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করা উচিত।
মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ
মোবাইল ঃ ০১৮১৭৫২১৮৯৭

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন