ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী

ক্যারিয়ার

এফ আর টাওয়ারের ঘটনা : জামিন পেলেন বিএনপি নেতা তাসভীর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:৫২ এএম

রাজধানীর বনানীতে এফ আর টাওয়ারে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় করা মামলায় গ্রেপ্তার বিএনপি নেতা তাসভীরউল ইসলাম জামিন পেয়েছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম মো.তোফাজ্জল হোসেন জামিনের আদেশ দেন। তাসভীরের আইনজীবী এহসানুল হক সমাজী জামিন শুনানিতে বলেন,এফ আর টাওয়ারে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দন্ডবিধির ৪৩৬ ধারা যুক্ত করা হয়েছে। কিন্তু আমার মক্কেল যেহেতু ওই ভবনের নির্মাতা নন, সেহেতু তার ক্ষেত্রে ওই ধারা প্রযোজ্য হয় না। তবে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করে বক্তব্য উপস্থাপন করা হয়। উভয় পক্ষের শুনানি নিয়ে আদালত ১০ হাজার টাকা মুচলেকায় বিএনপি নেতা তাসভীরের জামিন মঞ্জুর করেন। এর আগে সাত দিনের রিমান্ড শেষে গত সোমবার দুই মালিক এস এম এইচ আই ফারুক ও তাসভীর উল ইসলামকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গত ৩১ মার্চ বনানীর আগুনের ঘটনায় এস এম এইচ আই ফারুক ও তাসভীর উল ইসলামকে সাত দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন আদালত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত এই আদেশ দেন। এস এম এইচ আই ফারুক (৬৫) এফ আর টাওয়ারের জমির মালিক। আর তাসভীর উল ইসলাম এফ আর টাওয়ারের বর্ধিত অংশের মালিক। আসামিদের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদনে বলা হয়, গত ২৮ মার্চ বনানীর এফ আর টাওয়ারে আগুনের ঘটনায় ২৬ জন নিহত হন। শতাধিক লোক আহত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আসামি ফারুক, রূপায়ণ গ্রপের লিয়াকত আলী খান মুকুল এবং এফ আর টাওয়ার ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যরা অসৎ উদ্দেশ্যে নির্মাণ বিধিমালা ভঙ্গ করেন। টাওয়ারের সম্পত্তি ও লোকজনের জানমালের কথা চিন্তা না করে নিজেদের স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য চরম অবহেলা করার ফলে এই ভয়াবহ আগুনের ঘটনা ঘটেছে। ওই বহুতল ভবন নির্মাণকাজ করার সময় রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) তৈরি বিধিমালা সঠিকভাবে পালন করা হয়েছে কি না, এবং অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা সঠিক ছিল কি না, রিমান্ড আবেদনে তা খতিয়ে দেখতেও বলা হয়।

বনানীর আগুনে হতাহতের ঘটনায় তিনজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে মামলা করে পুলিশ। মামলার এজাহারভুক্ত তিন আসামি হলেন প্রকৌশলী ফারুক হোসেন, রূপায়ণ গ্রæপের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী খান মুকুল এবং বিএনপি নেতা তাসভীর উল ইসলাম।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন