ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

জাবিতে ফের র‌্যাগিংয়ের শিকার ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীরা

জাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ এপ্রিল, ২০১৯, ৫:১১ পিএম

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পাবলিক হেলথ এন্ড ইনফরমেটিক্স বিভাগের পর এবার সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যায়ন বিভাগের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীদের সাথে র‌্যাগিং এর ঘটনা ঘটেছে। সোমবার রাত ৮টার দিকে বিশ^বিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে এই ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিভাগটির আয়োজনে ক্রিকেট টুর্নামেন্ট খেলা শুরু হয়। এই খেলা দেখার জন্য ১ম বর্ষের সকল শিক্ষার্থীকে মাঠে যেতে বলেন দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা। কিন্তু প্রথম বর্ষের মাত্র ২০-২৫জন শিক্ষার্থী মাঠে যায়। সকলে মাঠে না যাওয়ার কারন জানতে চেয়ে রাত ৮টায় তাদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে ডাকেন দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা। এসময় প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের অকথ্য ভাষায় গলিগালাজ ও কান ধরে দাড় করিয়ে রাখাসহ ও হাত পা মুড়িয়ে বসিয়ে রাখেন তারা।
এসময় দ্বিতীয় বর্ষের রাইসুল ইসলাম রাজু নামের এক শিক্ষার্থী উত্তেজিত হয়ে প্রথম বর্ষের এক শিক্ষার্থীর দিকে জুতা নিক্ষেপ করে। এছাড়া অনেক শিক্ষার্থীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয় বলেও অভিযোগ করেন তারা।
ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা আরো জানান, শহীদ সালম বরকত হলের তানভীর হোসেন, হারুনুর রশিদ, বিশ^কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের এনামুল হক তামীম, মওলানা ভাসানী হলের রাইসুল ইসলাম রাজু, তাওসিফ আব্দুল্লাহ, স্টিব সলগা রেমা, মাহবুবুর রহমান, জাকির হোসেন জীবন, বেগম খালেদা জিয়া হলের সারা বিনতে সালাহ, প্রীতিলতা হলের সায়মা লিমা, ফাবিয়া বিনতে হক সহ আরও ৩-৪ জন এ সময় র‌্যাগিং এর ঘটনায় জড়িত ছিলেন।
এদিকে এই ঘটনার খবর পেয়ে রাত ১০টায় ঘটনাস্থলে যান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি। এ সময় প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা প্রক্টরের কাছে ঘটনা বর্ণনা করে মৌখিকভাবে অভিযোগ দেন।
এ বিষয়ে বিশ্বদ্যিালয়ের প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান বলেন, রাত ১০টার দিকে প্রথমবর্ষের এক শিক্ষার্থী ও বিভাগের সভাপতির কাছ থেকে কল পেয়ে আমরা ঘটনা স্থলে যাই। তখন দ্বিতীয় বর্ষের কোন শিক্ষার্থীকে আমরা সেখানে পায়নি। তবে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে জেনেছি যে তাদেরকে বিভিন্ন ভাবে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়েছে।
সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যায়ন বিভাগের সভাপতি শেখ আদনান ফাহাদ বলেন, এই বিষয়ে যথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন