ঢাকা, শনিবার ২৫ মে ২০১৯, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৯ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

মহানগর

প্রকৃতপক্ষে শবে বরাত ২০ এপ্রিল, শাবানের চাঁদ দেখা নিয়ে আবারো সাক্ষীদের কথা বলার সুযোগ দেয়নি ইফা

মানববন্ধনে রুইয়াতিল হিলাল মজলিস

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ এপ্রিল, ২০১৯, ৯:২৪ পিএম

ইসলামিক ফাউন্ডেশন শাবান মাসের চাঁদ দেখার সাক্ষীদের ডাকলেও তাদের কথা শোনেনি। গত সোমবার রাত সাড়ে ১০টার সময় ইফা থেকে ফোন করে খাগড়াছড়ি ও মুন্সিগঞ্জ থেকে যারা চাঁদ দেখেছেন তাদেরকে আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনে (বাইতুল মোকাররম) উপস্থিত হতে বলা হয়। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৩:৪৫ মিনিট পর্যন্ত ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অফিসের সামনে সাক্ষীগণ অবস্থান গ্রহণ করলেও তাদেরকে ভেতরে ঢুকতে দেয়া হয়নি। এমনকি ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করা হলেও সাক্ষীদেরকে ভেতরে ঢুকতে দেয়া হয়নি। সাক্ষীদের দাবি ছিল, তারা তাদের নিজস্ব আইনজীবী এবং মিডিয়ার সামনে সাক্ষ্য দিবে। ১১:৫৫ মিনিটে ইফা কর্তকর্তা জানান, কোনোভাবেই আইনজীবী ও মিডিয়া রাখা যাবে না। পরবর্তীতে ইফার দাবি অনুযায়ী বেলা ১২টায় আইনজীবী ও মিডিয়া ছাড়াই সাক্ষীদের স্বাক্ষ্য দেয়ার জন্য নামের তালিকা প্রদান করা হয়। সার্জেন্ট আহাদ পুলিশ বক্সের ইনচার্জ এস আই ওবায়েদুর রহমানের মাধ্যমে খাগড়াছড়ি ও মুন্সিগঞ্জ জেলা থেকে আগত ১১ জন প্রত্যক্ষদর্শীর তালিকা ইফাকে প্রদান করা হয়। সেই সময় থেকে বেলা ৩:৪৫ মিনিট পর্যন্ত ইফা কোন স্বাক্ষীকে ডাকেনি। বেলা ৩:৫০ মিনিটে ইফা’র সচিব বের হয়ে চলে যাওয়ার সময় মাজলিসু রুইয়াতিল হিলালের পক্ষ থেকে সাক্ষীর বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি আদালত অবমাননা করে সাক্ষীদের সবাইকে চলে যেতে বলেন।
হাইকোর্টের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও বাইতুল মোকাররমস্থ ইসলামিক ফাউন্ডেশন অফিস রুইয়াতিল হিলাল মসজিলের লিখিত বক্তব্য জমা নেয়নি। অতঃপর রুইয়াতিল হিলাল মজলিসের কর্তৃপক্ষ, বক্তব্যটি ইফার আগারগাঁওস্থ অফিসে জমা দিতে সক্ষম হন। উল্লেখ্য, লিখিত বক্তব্যটিতে গত ৬ এপ্রিল তারিখে খাগড়াছড়ি, মুন্সিগঞ্জ, বরিশালের মেহেদিগঞ্জসহ আরো বিভিন্ন স্থানে যারা চাঁদ দেখেছেন তাদের বক্তব্য এবং চাঁদ দেখার সংবাদটি সংশ্লিষ্ট সরকারি ইফা কর্মকর্তাদের অবহিত করেছেন এবং চাঁদ দেখার পক্ষে বৈজ্ঞানিক তথ্য ও ব্যাখ্যা এবং যুক্তি লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। কিন্তু তারপরেও নিতান্ত একগুঁয়েমি এবং ইসলামী শরীয়ত ও বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যাকে অস্বীকার করে চরম ধৃষ্টতার পরিচয় দিচ্ছে ইফা কর্তৃপক্ষ। আজ জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান চাঁদ দেখা কমিটি মাজলিসু রুইয়াতিল হিলালে সভাপতি আল্লামা আবুল বাশার মুহম্মদ রুহুল হাসান।
উল্লেখ্য যে, শুধু খাগড়াছড়ি ও মুন্সিগঞ্জ জেলাই নয়, বরং রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক থেকে ৭ জন বিজিবি সদস্য শাবান মাসের চাঁদ দেখেছেন। তার অডিও বক্তব্য রুইয়াতিল হিলাল কমিটির কাছে সংরক্ষণ আছে। মূলতঃ রুইয়াতিল হিলাল কমিটি ইসলামিক ফাউন্ডেশনের শাবান মাসের চাঁদ দেখার ভুল সিদ্ধান্ত জাতির উপর চাপিয়ে দেয়ার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করে আজ মঙ্গলবারের মধ্যে সঠিক তারিখ ঘোষণা দেয়ার দাবি করেন। পাশাপাশি দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের প্রতি আহবান জানান, তারা যেন ২০ এপ্রিল পবিত্র শবে বরাত পালন করে। অন্যথায় শরীয়ত লঙ্ঘন হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
শনিবার দিবাগত রাতে পবিত্র শবেবরাত হবে আশা করছি।
Total Reply(0)
হাফেজ মানযুরুল হক ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ৬:৫৭ এএম says : 1
চাঁদ দেখার খবরটি তো সাথে সাথে জানানোর দরকার ছিল
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন