ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ০৫ ভাদ্র ১৪২৬, ১৮ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

আন্তর্জাতিক সংবাদ

শুধুই রণক্ষেত্র ত্রিপোলির রাজপথ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির দখল নিয়ে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে হাফতার বাহিনীর সংঘাতে বেসামরিক নাগরিকের প্রাণহানির ঘটনায় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে নিন্দা জানানোর আহ্বান জানিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তবে লিবিয়াকে সন্ত্রাসীমুক্ত করতে অভিযান অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে খলিফা হাফতারের নেতৃত্বাধীন বাহিনী। এদিকে, দেশটির কারাগারে পাঁচ শতাধিক বিদেশি সেনা বন্দী থাকাকালীন নতুন করে যুদ্ধ শুরু হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ্পে কোনতে। লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির রাজপথ এখন শুধুই রণক্ষেত্র। বাতাসে মিশেছে বারুদ আর রক্তের গন্ধ। দেশটির হাফতার বাহিনীর সঙ্গে জাতিসংঘ সমর্থিত লিবিয়ার সরকারি বাহিনীর চলমান যুদ্ধে ক্রমেই শহর ছেড়ে পালাতে শুরু করেছেন স্থানীয়রা। দিন দিন বাড়তে থাকা এ বাস্তুচ্যুতরা খাদ্য, বাসস্থানের মতো মৌলিক চাহিদার জন্য ত্রাণের ওপর নির্ভর করছেন। এতে চাপ বাড়ছে সরকারের ওপর। হাফতার বাহিনীর হামলায় বেসামরিক নাগরিকের প্রাণহানীর ঘটনায় নিন্দা জানাতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন লিবিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ সায়ালা। বুধবার নিরাপত্তা পরিষদের প্রেসিডেন্টকে পাঠানো এক চিঠিতে তিনি যুদ্ধ বন্ধে পদক্ষেপ নেয়ার পাশাপাশি তা মেনে চলতে এবং হাফতার বাহিনীকে আগের অবস্থানে ফিরে যেতে চাপ প্রয়োগের আহ্বান জানান। তবে যে কোন পরিস্থিতিতে লিবিয়াকে সন্ত্রাসমুক্ত করতে অভিযান অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে হাফতার নেতৃত্বাধীন লিবিয়ান ন্যাশনাল ফোর্স। আমাদের যুদ্ধ সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে। ২০১১ সালে ন্যাটোসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক স¤প্রদায় লিবিয়ায় সন্ত্রাসী রেখে গেছে, তারাই আজ অরাজকতা সৃষ্টি করছে। এদের নির্মূলে লড়াই চালিয়ে যাবে আমাদের বাহিনী। এদিকে, পাঁচ শতাধিক বিদেশী যোদ্ধা লিবিয়ার কারাগারে বন্দী রয়েছে উল্লেখ করে ইতালির প্রধানমন্ত্রী গইসেপ্পে কনতে আবারও উদ্বেগ জানিয়ে বলেন, যেকোন সময় এ লড়াই গৃহযুদ্ধে রূপ নিতে পারে। দেখা দিতে পারে চরম মানবিক সংকট। রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
MD Alom ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১:১২ এএম says : 0
আহরে মুসলমান কি অপরাদ করছি গাদদাফি ৷ সোনার লিবিয়া আজকে কবরে পরিনিত হয়েছে
Total Reply(0)
Md Faruk ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১:১২ এএম says : 0
বেশি শান্তি চেয়েছিল লিবিয়া
Total Reply(0)
Robi Robi Robi ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১:১৪ এএম says : 0
তোমার যুদ্ধ না করলি আমেরিকা খাইবো কেমনে
Total Reply(0)
মাহমুদুল হাসান রাশদী ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১:১৫ এএম says : 0
একটা প্রবাদ বাক্য আছে সুখে থাকলে ভুতে কিলায়। লিবিয়ার জনগণের হয়েছে সেই অবস্থা। গাদ্দাফির সময় তারা কত ভালো ছিল।
Total Reply(0)
সিলোডি ফুয়া ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১:১৬ এএম says : 0
হে আল্লাহ আর কত ঝরবে মুসলমানের রক্ত। তুমিই একমাত্র আমাদের রক্ষা করতে পার।
Total Reply(0)
Habib Rahman ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১০:৩১ এএম says : 0
World leading terror organization America Israel and India. they are success to disturbing Muslim world and stalling their oil and gold. we are disappoint around Muslim leader objective..
Total Reply(0)
Omao faruk ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১১:৫১ এএম says : 0
আহারে
Total Reply(0)
Amad ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ৯:৪১ এএম says : 0
আজ লিবিয়া বাসি বুঝতেছে সুখটা আসলে কোথায় ছিল?
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন