ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

গীর্জায় অনুদান নিয়ে ফের উত্তাল ফ্রান্স, গ্রেফতার ১৩৭

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৯, ৫:৪৫ পিএম

অর্থনৈতিক বৈষম্যের প্রতিবাদে বিক্ষোভে শনিবার আবারও উত্তাল হল ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস। ২৩ সপ্তাহ ধরে চলমান এই আন্দোলন শনিবার আবার জোরদার হয় নটরডেম গীর্জা পুণঃনির্মানে বিপুল পরিমান বিনিয়োগের ঘোষণায়। প্যারিসে জড়ো হয়ে মোটর সাইকেল ও টিনের ড্রামে আগুন ধরিয়ে বিক্ষোভ প্রকাশ করে হলুদ জ্যাকেটধারীরা। এসময় পুলিশ বাধা দিতে গেলে দুই পক্ষে সংঘর্ষ ঘটে। আন্দোলনরতরা পুলিশের উদ্দেশ্যে পাথর ছুঁড়লে পুলিশও তাদেরকে ছত্রভঙ্গ করতে গরম পানি, স্ট্যান্ট গ্রেনেড ও কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়ে। পরে সেখান থেকে ১৩৭জনকে গ্রেফতার করা হয়।

ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, সেন্ট্রাল প্যারিসে যখন উভয়পক্ষ মুখোমুখি হয় তখন সেখানকার পরিস্থিতি ছিল খুব বিশৃঙ্খল। এসময় বিক্ষোভকারীরা রাস্তার বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন জিনিস জড়ো করে আগুন ধরিয়ে দেয়। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশকে জলকামানও ব্যবহার করতে দেখা গেছে।

প্যারিসের কৌঁসুলির অফিস জানিয়েছে, ১৩৭ জন হলুদ জ্যাকেটধারীকে পুলিশি হেফাজতে নেয়া হয়েছে। গত সপ্তাহে প্যারিসের ঐতিহাসিক নটরডেম গির্জায় অগ্নিকাণ্ডের পর হলুদ জ্যাকেটধারীদের এটিই প্রথম বিক্ষোভ।

ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, পুরো দেশজুড়ে ২৭ হাজার ৯০০ জন এই বিক্ষোভে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে রাজধানী প্যারিসেই নয় হাজার মানুষ বিক্ষোভে অংশ নেয়।

দেশের অর্থনৈতিক বৈষম্যের বিরুদ্ধে চলমান এই বিক্ষোভে প্রতিবাদকারীরা স্লোগান, গান ও বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে এটিকে মুখরিত করে তোলে। অনেক বিক্ষোভকারী এসময় অভিযোগ করে বলেন, নটরডেম গির্জা পুনর্নির্মাণের জন্য লাখ লাখ ডলার অনুদান উঠছে; আর এটাই দেশে বিদ্যমান বৈষম্যকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়।

বিক্ষোভে অংশ নেয়াদের হাতে ‘সবকিছু নটরডেমের জন্য, দুর্দশাগ্রস্তদের জন্য কিছু নয়’ এমন স্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ডও দেখা যায়। আরেকটি প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, আমরা সবাই গির্জা।

উল্লেখ্য, ন্যূনতম মজুরি বৃদ্ধি এবং পেনশন ট্যাক্স সংশোধনের দাবিতে প্রায় ছয় মাস ধরে ফ্রান্সের বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এসব বিক্ষোভে প্রতিবাদকারীরা হলুদ জ্যাকেট পরে করছে বলে এটি হলুদ জ্যাকেটধারীদের বিক্ষোভ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। সূত্র: আল-জাজিরা।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন