ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

নিহতদের তিনজন মনোহরদীর

সউদী আরবে সড়ক দুর্ঘটনা

মনোহরদী (নরসিংদী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৬ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

সউদী আরবে রিয়াদের শাকরায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১০ বাংলাদেশির মধ্যে ৩ জনের বাড়ি নরসিংদীধীন মনোহরদী উপজেলায়।
নিহতরা হলেন, মনোহরদী উপজেলার তাঁরাকান্দি গ্রামের মান্নান মাঝির ছেলে জামাল উদ্দিন মাঝি, তাঁতারদি শেখেরগাঁও এলাকার রশিদুল হকের ছেলে ইমদাদুল হক ও ডোমনমারা খিদিরপুর এলাকার আব্দুল মান্নান শেখের ছেলে মো. আল আমিন। এ তিন প্রবাসীর মৃত্যুতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন অসহায় পরিবারগুলো।
নিহতদের পরিবারের সদস্য ও স্থানীয়রা জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর খবর শোনার পর থেকেই এলাকাজুড়ে নেমে এসেছে শোকের মাতম। পরিবারের সদস্যদের আর্তনাদে এলাকার পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে। উপার্জনক্ষম স্বজনের এমন মৃত্যুতে শোকে নির্বাক হয়ে আছেন স্বজনদের কেউ কেউ। শেষবারের মতো দেখার ইচ্ছায় সরকারের মাধ্যমে দ্রæত লাশ ফিরে পাওয়ার দাবি পরিবারের। পাশাপাশি সরকারের প্রতি দরিদ্র এই পরিবারগুলোর পাশে দাড়ানোর দাবী এলাকাবাসীর।
তাঁরাকান্দি গ্রামের নিহত জামাল উদ্দিন মাঝির শোকার্ত মা নূরজাহান বেগম বলেন, এক শতাংশ ভিটেবাড়ী ছাড়া আর কোন সম্পদ না থাকায় পরিবারের সুখের আশায় ৫ লাখ টাকা ধার দেনা করে ২৯ দিন আগে ছেলেকে সউদী আরবে পাঠিয়েছিলাম। প্রথম দিন কাজে যোগ দিতে যাওয়ার পথেই সড়ক দুর্ঘটনায় পরপারে চলে গেলো আমার ছেলে। দিলরুবা বেগম বলেন, ৪ ছেলে ও ১ মেয়েকে নিয়ে আমি এখন অসহায় হয়ে পড়লাম।
একইভাবে শোকের মাতম চলছে নিহত অপর দুইজন ইমদাদুল হক ও আল আমিনের পরিবারেও। দুর্ঘটনায় মৃত্যুকে মেনে নিতে পারছেন না তারা। পরিবারের স্বপ্ন পূরণ করতে সউদী আরব যেতে গিয়ে ঋণগ্রস্ত হওয়া পরিবারগুলো পড়েছেন চরম অনিশ্চয়তায়। উল্লেখ্য, গত ২ মে বৃহস্পতিবার সকালে রিয়াদ থেকে ১৫০ কিলোমিটার দূরে শাকরায় ১৭ জন বাংলাদেশিকে বহনকারী একটি মিনিবাস চাকা ফেটে উল্টে যায়। এতে বিভিন্ন জেলার ১০ প্রবাসী নিহত হন। তারা সবাই আল হাবিব কোম্পানি ফর ট্রেডিং কমার্শিয়াল কন্সস্ট্রাকশন নামে একটি কোম্পানীতে কর্মরত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Kazi Mohammad ৫ মে, ২০১৯, ১:৫৬ এএম says : 0
ফনি শুরুর আগেই আল্লাহ সৌদিতেই ফনি শুরু করে দিলেন, না জানি এ পরিবার গুলোর কি হবে? হে আল্লাহ তাদের পরিবারগুলোর শোক সহিবার শকিত দান কর।
Total Reply(0)
Nurur Rahman ৫ মে, ২০১৯, ১:৫৭ এএম says : 0
অত্যন্ত দুঃখ জনক ঘটনা, সেজন্যই বিদেশ বিভুই তে সহজে গাড়ী ঘোড়ায় চড়তে নেই।
Total Reply(0)
ABDUL MAJID QUAZI ৫ মে, ২০১৯, ১:৫৭ এএম says : 0
Pathetic. Innalillahi wa inna elaihi rajeun
Total Reply(0)
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ৫ মে, ২০১৯, ১:৫৭ এএম says : 0
ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন। আল্লাহ তুমি নিহতদের পরিবারকে শোক সামলানোর তাওফিক দান করো।
Total Reply(0)
SHAMEEM ৫ মে, ২০১৯, ১:৫৭ এএম says : 0
ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাহি রাজেউন।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন