ঢাকা, শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯, ০৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ট্রিগারে টান পড়লেই বারুদের গন্ধ ছড়িয়ে পড়বে বাতাসে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ মে, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ওয়াশিংটন ও তেহরানের মধ্যে উত্তেজনা এখন তুঙ্গে। উভয় পক্ষে চলছে রণ প্রস্তুতি। এমন অবস্থায় ট্রিগারে টান পড়লেই বারুদের গন্ধ ছড়িয়ে পড়বে বাতাসে। ইরানের শক্তিধর রেভ্যুলুশনারি গার্ড আলাদা করে বলে দিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কোনো সমঝোতায় যাবে না ইরান। ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ও তার উদারপন্থি মিত্ররা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় যাওয়ার বিষয়টিও এতে উবে গেল। যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ ইরানের হুমকির জবাবে তারা ব্যবস্থা নিচ্ছে। কিন্তু কি সেই হুমকি সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু বলেনি তারা। উল্টো যুক্তরাষ্ট্রের এমন অভিযোগকে ইরান ‘ননসেন্স’ বলে আখ্যায়িত করেছে। তারা বলেছে, ইরানকে ভীতি প্রদর্শনের জন্য এটা হলো যুক্তরাষ্ট্রের মনস্তাত্তি¡ক যুদ্ধ। এমন অবস্থায় মধ্যপ্রাচ্যে একটি প্যাট্রিয়ট এয়ার ডিফেন্স মিসাইল সিস্টেম বা আকাশ পথে ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী ব্যবস্থা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। আগে থেকেই পারস্য উপসাগরে মোতায়েন করা আছে ইউএসএস আব্রাহাম লিঙ্কন যুদ্ধজাহাজ। যুদ্ধবিমান বহনকারী এ বিমানের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে আরেকটি যুদ্ধবিমান বহনকারী জাহাজ ইউএসএস আরলিংটন। এতে থাকছে উভচর যুদ্ধযান ও যুদ্ধবিমান। পেন্টাগন বলেছে, তাদের কাতারের ঘাঁটিতে এরই মধ্যে পৌঁছে গেছে ইউএস বি-৫২ যুদ্ধবিমান। মোদ্দাকথা, ইরানকে চারদিক থেকে ঘিরে ফেলছে যুক্তরাষ্ট্র। ফলে মধ্যপ্রাচ্যে, পারস্য উপসাগরে আরেকটি যুদ্ধের আলামত ক্রমশ স্পষ্ট হয়ে উঠছে। ট্রিগারে টান পড়লেই বারুদের গন্ধ ছুটবে। তবে তাতে দৃশ্যত ভীত নয় ইরান। দেশটির আধা সরকারি বার্তা সংস্থা ইনসা’কে দেশটির একজন সিনিয়র ধর্মীয় নেতা ইউসেফ তাবাতাবাই নেজাদ বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক ফ্লিটকে ধ্বংস করে দিতে পারে ইরানের একটিমাত্র ক্ষেপণাস্ত্র। শুক্রবার পেন্টাগন বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র ইরানের সঙ্গে সংঘাত চায় না। কিন্তু মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের শক্তি ও স্বার্থ রক্ষায় প্রস্তুত ওয়াশিংটন। পেন্টাগণের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইরানের শাসকগোষ্ঠীর কর্মকা- ঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এতে যোগ করা হয়, সম্ভাব্য যেকোনো হামলা মোকাবিলার জন্য মোতায়েন করা হচ্ছে প্যাটিয়ট সিস্টেম। এর মাধ্যমে ব্যাপক বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র, ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ও এডভান্সড যুদ্ধবিমানকে কাউন্টার দেয়া হয়। কর্মকর্তারা যুক্তরাষ্ট্রের মিডিয়াকে বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে মোতায়েনের জন্য এরই মধ্যে যাত্রা শুরু করেছে ইউএসএস আরলিংটন। রয়টার্স, বিবিসি, এএফপি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (12)
Mithu ১২ মে, ২০১৯, ১:৩৪ এএম says : 0
চোখ বন্ধ করে যদি আমেরিকা আর ইস্রাঈল বিহীন বিশ্ব চিন্তা করেন দেখবেন সারা পৃথিবীতে শান্তির সুবাতাস বইছে !
Total Reply(0)
Kazi Mohammad ১২ মে, ২০১৯, ১:৩৪ এএম says : 0
It is one of the tricks to win the US election by the bad man trump.
Total Reply(0)
সোলায়মান ১২ মে, ২০১৯, ১:৩৪ এএম says : 0
ইরান হরমুজ প্রনালী বন্ধ করতে পারে যদি তাদের তেল রপ্তানী করতে না দেয়া হয় এই আশঙ্কায় আমেরিকা এগেুলো শুরু করেছে।
Total Reply(0)
Masud Kounik ১২ মে, ২০১৯, ১:৩৫ এএম says : 0
নিজেরাই নিজেদেরকে একটা ছোট-খাট বোমা হামলা চালিয়ে বলবে ইরান আক্রমন করেছে, ব্যাসে এর পরে হামলে পড়বে ইরানে ।
Total Reply(0)
Meherab Hossain Bilash ১২ মে, ২০১৯, ১:৩৭ এএম says : 0
ধংসের দিকে নেবে
Total Reply(0)
Abul Kalam ১২ মে, ২০১৯, ১:৩৮ এএম says : 0
আল্লাহ আমাদের রহম কর ।আমাদেরকে সঠিক পথের দিশা দাও ।
Total Reply(0)
Mohammed Soyeb ১২ মে, ২০১৯, ১:৩৮ এএম says : 0
যুক্তরাষ্ট্র হলো একটি মাস্তান রাষ্ট্র মলুত এর কাজ হলো আরব দেশগুলো থেকে চাঁদা খেয়ে তারপর ঝগড়া বাঁধানো।
Total Reply(0)
মিসির আলি ১২ মে, ২০১৯, ১:৩৮ এএম says : 0
সবটাই নাটক!! আর এই নাটকের শেষ পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত আমাদের মতো দরিদ্র ধর্মপ্রাণ সাধারণ মুসলিম জনতা!!! ভাবছেন কেমনে???
Total Reply(0)
Tanisha Ahmed Haque ১২ মে, ২০১৯, ১:৩৯ এএম says : 0
কিছু দিনের মাঝেই যুদ্ধ লাগাবে USA
Total Reply(0)
মনজুরুল ১৭ মে, ২০১৯, ২:৫২ এএম says : 0
ইরাকের বেলায় ঠিক একই জিকির করেছিলো সারা দুনিয়ার জন্য সাদ্দাম হুমকি এবার ইরানের বেলায় একই আমেরিকা ভাল ভাবে জানে এটা ইরাক নয় ইরান আমেরিকা ইরানে হামলা করলে ইরান সবার আগে হামলা করবে সৌদি ও ইসরাঈলে এই দেশ দুটিকে ঝাজরা করে ফেলবে ,ইরান শেষ হওয়ার আগে আরবের দালাল গুলির বারোটা বাজিয়েই ছারবে এতে কোন সন্দেহ নেই ।
Total Reply(0)
Monjurul ১৭ মে, ২০১৯, ৩:০০ এএম says : 0
ইরাকের নাটক ইরানে খাটবে না আশপাশে যারা জায়গা জিতেছে তাদের তেরটা বাজিয়ে ছারবে বিষেশ করে সৌদি আর ইসরাইলের ঝাজরা করে ফেলবে।
Total Reply(0)
আখতার ৩১ মে, ২০১৯, ৭:০০ পিএম says : 0
আমি যদি পারতাম তো আগে আমেরিকা কে নাগা-সীমা এর মত বানায় ফেলতাম। আর মুসলিমবিশ্বের সমস্যা টা কি তাও বুঝিনা। ,,,,আমেরিকার পা চাটা গোলাম হয়ে আছে ক্যান?????
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন