ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

আগামী অর্থবছরে করদাতার সংখ্যা ১ কোটিতে উন্নীত করতে চান অর্থমন্ত্রী

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ মে, ২০১৯, ৯:৪৪ পিএম

অর্থমন্ত্রী অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, আগামী অর্থবছরে করদাতার সংখ্যা ২২ লাখ থেকে ১ কোটিতে উন্নীত করা হবে। তিনি বলেন, এ জন্য রাজস্বখাতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক জনবল নেই বিধায় আউট সোর্সিং এর মাধ্যমে এটা বাস্তবায়ন করা হবে।

বুধবার (১৫ মে) শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষ বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর, বর্তমান গভর্নর ও অর্থনীতিবিদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও ইফতার অনুষ্ঠান শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী বাজেটে করের হার বাড়ানো হবে না। এবার আমরা কোনোভাবেই কোথাও কর বাড়াবো না। কিছু কিছু ক্ষেত্রে কর কমানো হবে। এবার হয়তো বেশি কমাতে পারবো না। তবে আগামীতে করের হার আরও বেশি কমাবো। তবে করের আওতা বাড়িয়ে রাজস্ব আদায়ের পরিমাণ বাড়াবো।

তিনি গণমাধ্যমের সহায়তা কামনা করে বলেন, দেশের সব মানুষ যেনো কর প্রদানে অনুপ্রানিত হয় সে বিষয়টি প্রচার করবেন। আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, আমরা কিন্তু অনেক কঠিন কাজে নামছি। ২০ লাখ, ২২ লাখ থেকে প্রথম বছরে আমরা ১ কোটি করদাতা সংখ্যা করতে চাই। এই যে করদাতা বাড়াবো, কাকে বাড়াবো? যারা কর প্রদানে উপযুক্ত তাদেরকেই করের আওতায় আনা হবে। সে কাজটি কারার জন্য সকল মানুষের সহযোগীতা নিয়ে আগাতে হবে উল্লেখ করেন তিনি বলেন, আমাদের দেশের ৪ কোটি মানুষ আছে, যারা আয়কর দেয়ার উপযুক্ত। আওতা বাড়িয়ে এসব মানুষকে যদি করের আওতায় আনতি পারি তাহলে আমাদের ট্যাক্স জিডিপির অনুপাত অনেক বেড়ে যাবে। আমরা সেদিকে যাচ্ছি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, রাজস্ব আদায়ের ক্ষেত্রে আমরা অনেক আউট সোসিং করবো। কারণ যে পরিমাণ রাজস্ব আদায়ে লোকবল প্রয়োজন সে পরিমাণ এত অল্প সময়ে পাওয়া যাবে না। তাই আউট সোসিংয়ের মাধ্যমে রাজস্ব আদায় করা হবে। পাশাপাশি প্রতিটি উপজেলায় রাজস্ব অফিস করা হবে। যদি প্রয়োজন দেখা দেয় তাহলে একই উপজেলায় তিন থেকে চারটি রাজস্ব অফিস দেয়া হবে। চাহিদার উপর অফিসের সংখ্যা নির্ভর করবে।

আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, আমাদের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে সহজ করে করের আওতা বাড়ানো এবং সেখান থেকে রাজস্বের পরিমাণ বাড়ানো। এ কাজটি করবো। অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রতিক্ষিত নতুন ভ্যাট আইনটি আগামী বাজেট থেকে বাস্তবায়ন করবো। সেটি কিভাবে বাস্তবায়ন করা যায় সে বিষয়ে আজকে বিশেষজ্ঞরা মতামত দিয়েছেন। আমাদের আইডিয়া আর আজকের মতামতের ভিত্তিতে ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন