ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

প্রীতির কারণে স্বামী, সংসার ছাড়তে চেয়েছিলেন কাজল

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০১৯, ১২:৪৭ পিএম

গত ২ এপ্রিল অর্ধশত বছরে পা দিয়েছেন বলিউড অভিনেতা অজয় দেবগণ। এদিকে গতকাল (১৭ মে) এই অভিনেতার একটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। ‘দে দে প্যায়ার দে’ নামের এ ছবির গল্পে দেখা যাবে এক মধ্য বয়সী পুরুষের বিবাহবিচ্ছেদের পর এক তরুণীর সঙ্গে প্রেমে পড়তে। ওই মধ্যবয়সী ব্যক্তির চরিত্রেই দেখা যাবে অজয়কে। তবে যেনে রাখা ভালো অনস্ক্রিন ‘ওই ব্যক্তির’ চরিত্রে অভিনয় করলেও রিয়েল লাইফে অজয় কিন্তু মনে প্রাণে ভালবাসেন স্ত্রী কাজলকেই।

কিন্তু মাঝে জানা গিয়েছিল এক বিস্ময়কর তথ্য। বহু বছর আগে অজয় যখন ‘ইয়ে রাস্তে হ্যায় প্যায়ার কে’ ছবির শুটিং করছিলেন তখন ওই ছবির নায়িকা প্রীতি জিনতাকে নিয়ে গুজব রটেছিল। পরে অবশ্য জানা যায়, গুজবটি শুধু গুজবই ছিল। মিথ্যা গুজব রটানোর জন্য অজয় তখন খুব রেগেও গিয়েছিলেন। কিন্তু ঘটনা অন্য জায়গায়। ওই গুজবটি সত্যি মনে করে কাজল সেসময় অজয়ের ঘর ছেড়ে চলেও যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

সম্প্রতি এক সাক্ষাত্কারে অজয়কে প্রশ্ন করা হয় ‘সত্যিই কাজল ছেড়ে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কি না’। উত্তরে অজয় বলেন, ‘আমি অমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কোনো কথা বলতে চাই না। সত্যিটা না জেনেই সবাই মতামত প্রকাশ করে দেয়। কোনো প্রমাণ ছাড়াই যে যা খুশি রটিয়েছে এবং রটাচ্ছে। আমি আগেও আমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কিছু বলিনি। আজও বলব না।’

অজয় আরও বলেন, ‘প্রীতি ও আমি দু’জনেই খুব ম্যাচিওরড। আমরা একসঙ্গে কাজ করছি, ভবিষ্যতেও করব আশা করি। তাই বলে এই নয় যে, আমরা প্রেম করেছি। আমাদের সম্পর্কে যে যা খুশি লিখুক আমি পরোয়া করি না। কিন্তু এটা সত্যি যে ওই সব গুজবের ফলে আমার আর প্রীতির বন্ধুত্ব নষ্ট হয়ে যেতে বসেছিল।’
যাই হোক, বর্তমানে ফেরা যাক। অজয় দেবগণের ‘দে দে প্যায়ার দে’ গতকাল ১৭ মে মুক্তি পেয়েছে। এই ছবিতে অজয় ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন টাব্বু, রাকুল প্রীত। অবশ্য কয়েকদিন ধরে ছবিটি নিয়ে বেশ বিতর্ক তৈরি হয়েছে। কারণ যখন জানাজানি হয়েছে এই ছবিতে অভিনয় করছেন #মিটুর অন্যতম অভিযুক্ত অলোক নাথ। তবে ছবিটি মুক্তির পর সে বিতর্কের অবসান হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন