ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

পাবনায় পুত্রবধূর হাতে শাশুড়ি খুন, পুত্রবধূ পুলিশ হেফাজতে

পাবনা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০১৯, ৩:০৪ পিএম

পুত্রবধূ কুপিয়ে শাশুড়ি রোজী খাতুনকে (৩৫) হত্যা করেছে মর্মে অভিযোগ উঠেছে। পারিবারিক কলহের কারণে পুত্রবধূ রুকাইয়া খাতুন (২২) তার শাশুড়ি রোজী খাতুনকে কুপিয়ে হত্যা করে । নিহত রোজী খাতুন মৃত আমিন উদ্দীনের স্ত্রী । পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুত্রবধূকে আটক করেছে।

শনিবার ইফতারের পর পাবনা সদর উপজেলার মালিগাছা ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।
নিহতের আত্মীয়- স্বজন ও প্রতিবেশীরা জানান, রোজী খাতুন একজন নিরীহ স্বভাবের মহিলা ছিলেন। কারও সাথে কোন সময় উচ্চস্বরে কথা বলতেন না। কিন্তু একমাত্র পুত্রকে বিয়ে দেওয়ার পর থেকেই পুত্রবধূ শাশুড়িওক মেনে নিতে পারছিলো না এবং সংসারের সকল কর্তৃত্ব নিজের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ায় চেষ্টা করতো। এ নিয়ে মাঝে মধ্যে ঝগড়া বিবাদ পুত্রবধূ তার শাশুড়ি রোজীর সাথে।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে সূত্র জানান, শনিবার সন্ধ্যায় রুকাইয়ার পিতার বাড়ি থেকে কয়েকজন লোক তার শ্বশুর বাড়িতে আসে। এ সময় তার স্বামী রনজু বাড়িতে ছিলেন না। হঠাৎ ওই বাড়ি থেকে চিৎকারের শব্দ শুনে প্রতিবেশীরা ছুঁটে যায়। এ সময় তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখে রোজি খাতুনকে ঘরের মধ্যে থাকতে দেখেন এবং তাঁর শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হতে দেখেন। দ্রুত তাঁকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রোজী খাতুনকে মৃত ঘোষণা করেন। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) আসাদুজ্জামান শনিবার রাত ৯ টায় স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে লাশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠায় জানান । পাবনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ওবাইদুল হক আজ রবিবার দুপুরে ইনকিলাবকে জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুত্রবধূ রুকাইয়াকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। শাশুড়ি হত্যার সাথে পুত্রবধূর সংশ্লিষ্টতা আছে বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে জ্ঞাত হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন