ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

দেশের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর সেবা বিপণন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। গতকাল (রোববার) রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর পরীক্ষামূলক স¤প্রচার এবং ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের বুথের সেবা প্রদানের মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। এছাড়া যমুনা টিভি, সময় টিভি, দীপ্ত টিভি, বিজয় টিভি, বাংলা টিভি ও মাই টিভি এবং রাষ্ট্রায়ত্ত¡ সোনালী ব্যাংক বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সেবা নেয়ার জন্য অনুষ্ঠানে সমঝোতা স্মারক সই করে।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, এই দিনটি আমাদের জন্য ঐতিহাসিক, কারণ আমাদের দেশের টিভি চ্যানেলগুলো নিজস্ব স্যাটেলাইট ব্যবহার করে স¤প্রচারে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের অপূর্ণতা ছিল আমাদের একটি স্যাটেলাইট ছিল না, সেটি আমরা পেরেছি। এখন সাশ্রয়ী মূল্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে টিভি চ্যানেলগুলো স¤প্রচার এবং ব্যাংকগুলো ব্যাংকিং সেবা দিতে পারবে।
স্যাটেলাইটের উপযোগিতা তুলে ধরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ঘূর্ণিঝড় হলে যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিন্ন-বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা সচল রাখা যাবে, যেটি আমরা আগে রাখতে পারতাম না বা বিদেশি স্যাটেলাইটের উপর নির্ভর করতে হতো। আজকে আমরা সাবলম্বী হয়েছি।
ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমাদের গণমাধ্যম বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উপর আস্থা স্থাপন করে স¤প্রচার কার্যক্রম শুরু করেছে, এজন্য সেবা গ্রহিতা চ্যানেলগুলোর কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এখন পর্যন্ত এমন কোনো সমস্যা পাওয়া যায়নি, যেটা আলোচনার বিষয় হতে পারে। আমাদের ছেলেরাই এটি দক্ষতার সঙ্গে পরিচালনা করছে। এটি বাঙালি জাতির জন্য গর্বের। প্রাকৃতিক দুর্যোগের দেশে প্রতিবছর কয়েকবার দুর্যোগ মোকাবেলা করতে হয় জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রচলিত ব্যবস্থায় যোগাযোগ ব্যবস্থা দুর্যোগকালীন এমন ভঙ্গুর অবস্থায় যেতে পারে, এখন যতো দুর্যোগই আসুক না কেন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে যোগাযোগ অব্যাহত রাখতে পারবো। নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী দ্বিতীয় স্যাটেলাইটের প্রস্তাবনা নিয়ে ইতোমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে বলেও জানান টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।
তথ্য ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, টেলিযোগাযোগ স¤প্রচার এবং ইন্টারনেটের সংযোগ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট থেকে পাবো। এ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে স¤প্রচারে টেলিভিশনগুলোর খরচ কমে যাবে তেমনি অর্থ দেশে থাকবে। এ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে দুর্গম এলাকাতে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেওয়া যাবে। স্যাটেলাইটের খরচ আগামী ৭/৮ বছরের মধ্যে উঠে আসবে। স্যাটেলাইট নিয়ে গবেষণা-শিক্ষার জন্য একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী পলক।
বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেন, যদিও এক বছর আগে উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল কিন্তু নানান ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নভেম্বর আমাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। টেলিভিশন চ্যানেলগুলো যে দরে বাইরে থেকে ব্যান্ডউইথ কেনে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ থেকে তার থেকে কম দামে কিনতে পারবেন। ক্ষেত্র বিশেষে দেখা যাবে চার ভাগের এক ভাগ খরচ হবে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে টেলি মেডিসিন, টেলি এডুকেশন এবং ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা প্রদান করব। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন তথ্যসচিব আবদুল মালেক, বিটিআরসি চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস, সোনালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান আশরাফুল মকবুল, ডাচ বাংলা ব্যাংকের চেয়ারম্যান সায়েম আহমেদ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন