ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

বিনোদন প্রতিদিন

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল: অভিনয়শিল্পীদের কে এগিয়ে কে পিছিয়ে?

বিনোদন রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ মে, ২০১৯, ৮:১৪ পিএম

দফায় দফায় ভোট গ্রহণের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে ভারতের লোকসভা নির্বাচন। এ নির্বাচনে বরাবরের মতো এবারও বিজেপি, কংগ্রেস এবং সমাজবাদী পার্টি তাদের হয়ে মাঠে নামিয়েছেন বলিউড তারকাদের। এই তালিকায় পিছিয়ে নেই কলকাতা কিংবা দক্ষিনী তারকারাও। অভিনেতা-অভিনেত্রীর তকমা লাগা এসব মানুষই রাতারাতি নামের আগে ‘অভি’ শব্দটি ছেটে ফেলে হয়ে গেছেন নেতা কিংবা নেত্রী।
অভিনেতা-অভিনেত্রী থেকে নেতা-নেত্রী বনে যাওয়া শিল্পীদের ভাগ্য পরীক্ষা চলছে। স্বপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের ভোট গণনা চলছে। ইতোমধ্যেই প্রকাশিত বুথ ফেরত জরিপে বলা হচ্ছে আবারো ক্ষমতায় ফিরতে চলেছে বর্তমান ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। তবে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মধ্যে কারা জয়ের মালা গলায় পরে সংসদের চেয়ার দখল করছেন। আর কারাইবা পরাজয়ের গ্লানি মাথায় নিয়ে ফিরছেন অভিনয়ে। তাদের নিয়েই ইনকিলাবের এই আয়োজন।
হেমা মালিনি:
২০০৪ সালে ‘বলিউড ড্রিম গার্ল’ হেমা মালিনি যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। এবারও মথুরা কেন্দ্রে দাঁড়িয়েছেন এই অভিনেত্রী। গতবার জয়ন্ত চৌধুরীকে হারিয়ে এই শিবিরে শক্তি ঘাটি গেড়েছিলেন তিনি। তবে এবার পেক্ষাপট পরিবর্তনও হতে পারে। যদিও এখন পর্যন্ত পাওয়া খবরে হেমা মালিনি কিছুটা এগিয়ে আছেন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এলআরডি (রাষ্ট্রীয় লোকদল) প্রার্থী নরেন্দ্র সিংয়ের থেকে। এরপরও বলা মুশকিল ফলাফল কোন দিকে যাচ্ছে। কারণে গেরুয়া শিবিরে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে এই দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে। গতবার হেমা মালিনি তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর থেকে লক্ষাধিক ভোটে জয়ী হয়ে সংসদে পা রেখেছিলেন।
উর্মিলা মাতন্ডকর:
এই অভিনেত্রী অভিনয় থেকে রােজনীতির ময়দানে পা রাখা মাত্রই নানা বিতর্কে জড়িয়েছেন। আলোচনা-সমালোচনার শীর্ষে অবস্থান করছেন তিনি। কংগ্রেসের হয়ে উত্তর মুম্বাই আসন থেকে এবারই প্রথম নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন তিনি। উর্মিলা মাতন্ডকরের প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন এই আসনটির বর্তমান সাংসদ বিজেপি প্রার্থী গোপাল শেট্রি। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উর্মিলা সকালের দিকে এগিয়ে থাকলেও ক্রমশ পিছিয়ে পড়ছেন।
শত্রুঘ্ন সিনহা:
এতোদিন বিজেপির শিবিরে স্থান ছিল শক্তিশালী এ অভিনেতার। কিন্তু এই নির্বাচনের আগে বিজেপি ছেড়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়, নির্বাচনের আগে অভিনেতাকে হুঙ্কার দিতে দেখা গেছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে। অভিনেতা বিহারের পাটনা সাহিব থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তার নিটকতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির প্রার্থী রবিশংকর প্রসাদ। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রবিশংকর প্রসাদের সঙ্গে প্রচন্ড লড়াই চলছে শত্রুঘ্ন সিনহার। লড়াই হলেও অভিনেতা নাকি কিছুটা এগিয়ে রয়েছেন বিজেপির প্রার্থী থেকে।
মোনজ তাওয়ারিঃ
ভোজপুরি তথা বলিউড অভিনেতা মোনজ তাওয়ারি ২০০৯ সালে সমাজবাদী পার্টির হয়ে নির্বাচনে লড়েছিলেন। এরপর ২০১৪ সালে এ অভিনেতা নির্বাচন করেন বিজেপির হয়ে। দিল্লির উত্তর-পূর্ব কেন্দ্র থেকে মোনজ আপ পার্টির প্রার্থী আনন্দ কুমারকে বিপুল ভোটে হারিয়েছিলেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এবারও নাকি মোজনই আসনটি থেকে সংসদের টিকেন নিশ্চিত করেই ফেলেছেন।
জয়াপ্রদা:
বলিউডের নামজাদা অভিনেত্রী জয়াপ্রদা দ্বিতীয়বার রাজনীতির ময়দানে ভাগ্য পরীক্ষায় নেমেছেন। এবার তিনি বিজেপির হয়ে উত্তর প্রদেশের রামপুর কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। সাপা এবং মহাজোটের হেভিওয়েট প্রার্থী আজম খান আছেন অভিনেত্রীর প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এবারও এ অভিনেত্রীর পরাজয় হবে।
পুনম সিনহা:
শত্রুঘ্ন সিনহার স্ত্রী বলিউড অভিনেত্রী পুনম সিনহা এবার নির্বাচনে নেমেছেন। সমাজবাদী পার্টি থেকে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বীতা কবরছেন। সব চেয়ে মজার ব্যপার হলো বাবা শক্রঘ্ন সিনহা এবং মা পুনম সিনহার নির্বাচনী প্রচারে দেখা মিলেছে বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহাকে। কিন্ত তাতে কোনো লাভ হয়নি। বাবার জয়ের সম্ভবনা থাকলেও সোনাক্ষীর মা হারতে চলেছেন বলে খবর পাওয়া গিয়েছে।
রবি কিষাণ:
প্রায় তিন দশক ধরে বিহারের গোরখপুরের বিজেপির আধ্যপত্য লক্ষনীয়। উপনির্বাচনে সমাজবাদী পার্টি (সপা) প্রবীণ নিষাদ এ আসন বিজেপি থেকে ছিনিয়ে নেন। এবার এ আসনে বিজেপি ভোজপুরি তথা বলিউড অভিনেতা রবি কিষাণকে প্রার্থী করেছে। রবির প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন সপার রামভুয়াল নিষাদ। ধারণা করা হচ্ছে আসনটিতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জানা হিয়েছে আসনটি থেকে রবির জয় নিশ্চিত।
রাজ বাব্বর:
উত্তর প্রদেশের ফতেহপুর সিক্রি আসন থকে কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন বলিউড অভিনেতা রাজ বাব্বর। তার বিরুদ্ধে বিজেপি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন রাজকুমার চাহরের। এর আগে ২০০৯ সালেও রাজ বাব্বর এ আসনটি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছিলেন। তবে সেবার কপাল খারাপই ছিল এ অভিনেতার। কারণ অল্প কিছু ভোটের ব্যবধানে পরাজয় শিকার করতে হয়েছিল তাকে। এদিকে এবারের ফলাফলও আগের মতোই হতে যাচ্ছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রাজ বাব্বরের পরাজয় নিশ্চিত বলে জানা গেছে।
সানি দেওল:
বলিউড অভিনেতা সানি দেওল প্রথমবারের মতো বিজেপির হয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। পাঞ্জাবের গুরুদাসপুর আসন থেকে লড়ছেন এই অভিনেতা। শেষ খবর পাওয়া পর্যণÍ সানি নাকি বিপুল ভোটের ব্যাবধানে জয় লাভ করবেন। পাঞ্জাবের এ আসনটিতে সানির বিপক্ষের প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন পাঞ্জাবের কংগ্রেস প্রধান এবং বর্তমান সাংসদ সুনীল জাখড়ের।
এছাড়া টালিগঞ্জের তিন তারকা দেব, নুসরাত এবং মিমি দাড়িয়েছিলেন এবারের লোকসভা নির্বাচনে। তৃণমূল কংগ্রেসের লটারি জয়ের পর নির্বাচনী মাঠে দাঁপিয়ে বেড়াতে দেখা গেছে তাদের। এই তিন তারকাই জয়ের মুকুট পরবেন বলে ধারণা সকলের। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তাদের পাল্লা ভারী আছে বলেও শোনা গিয়েছে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন