ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

আন্তর্জাতিক সংবাদ

বিজেপির ভূমিধস জয়

ভারতের লোকসভা নির্বাচন : পরাজয় স্বীকার করে মোদিকে শুভেচ্ছা রাহুলের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০১৯, ১২:০৪ এএম | আপডেট : ২:১১ এএম, ২৪ মে, ২০১৯

ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে ভূমিধস বিজয় অর্জন করেছে ক্ষমতাসীন বিজেপির নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স তথা এনডিএ। ৫৪৩ আসনের লোকসভায় যে ৫৪২টি আসনে নির্বাচন হয় তার মধ্যে এনডিএ জিততে চলেছে ৩৫০ আসনে। একশ’রও কম আসনে এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট। কমপক্ষে ১২টি রাজ্যে কোন আসনই পাচ্ছে না কংগ্রেস এটা নিশ্চিত। এমতাবস্থায় পরাজয় স্বীকার করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। নির্বাচনী ফলাফল পরবর্তী দলীয় অবস্থান জানাতে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে সংবাদ সম্মেলন ডাকেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে এই হার মেনে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে রাহুল গান্ধী বলেন, ‘দেশের মানুষের রায়কে স্বাগত। নরেন্দ্র মোদিকে শুভেচ্ছা। পরাজিতদের বলছি ভয় পাবেন না। এটা দুই দলের মতাদর্শের লড়াই। আমরা ঘুরে দাঁড়াব।’ ভোটে পরাজয়ের পর রাহুল গান্ধী ইউপিএ চেয়ার পারসন সোনিয়া গান্ধীর কাছে পদত্যাগের ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে। এদিকে বাংলাদেশে পার্শ্ববর্তী রাজ্য পশ্চিমবঙ্গে ৪২টি আসনের মধ্যে ক্ষমতাসীন তৃণমূল সামান্য এগিয়ে থাকলেও ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে বিজেপি। তৃণমূল ২৩টি আসনে এগিয়ে রয়েছে, অপরদিকে বিজেপি এগিয়ে ১৮টিতে। কংগ্রেস পেতে যাচ্ছে মাত্র একটি আসন। প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখার্জির ছেলে তার আসনে তৃণমূল প্রার্থী খলিলুর রহমানের কাছে হেরে যাওয়ায় শুধুমাত্র বহরমপুরে অধির চৌধুরীর আসনটি যাচ্ছে কংগ্রেসের ঝুলিতে। বলার অপেক্ষা রাখে না, দীর্ঘ কাল পশ্চিমবঙ্গ শাসন করা বাম মোর্চা নির্মূল হয়ে গেছে।
২০১৪ সালের চেয়ে এবার সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়ী হতে যাচ্ছে বিজেপি। দেশটির জাতীয় এই নির্বাচনে তিন শতাধিক আসনে জয়ী হয়ে দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে হিন্দুত্ববাদী এই রাজনৈতিক দল।
ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে জয়ী হওয়া নরেন্দ্র মোদিকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। গতকাল এক টেলিগ্রাম বার্তায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট শুভেচ্ছা জানান। আর এক বার্তায় মোদিকে অভিনন্দন জানান চীনের প্রেসিডেন্ট। শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, শ্রীলঙ্গার প্রধানমন্ত্রী রানিল বিক্রেমাসিঙ্গে এবং ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতেনিয়াহু।
এক্সিট পোল জরিপে ভরাডুবির আভাস দেয়া হলেও পাত্তা দেননি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু ফল স্পষ্ট হতেই অত্যন্ত পরিমিত প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। গোটা প্রক্রিয়াটা মেটার আগে পূর্ণাঙ্গ প্রতিক্রিয়া তিনি দেবেন না, টুইটারে এই রকম ইঙ্গিত দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লিখেছেন, ‘জয়ীদের অভিনন্দন। কিন্তু যারা হেরেছেন, তারা সবাই হারেননি। আমাদের একটা পূর্ণাঙ্গ বিশ্লেষণ করতে হবে এবং তার পরে আমরা আমাদের মতামত আপনাদের জানাব।’ এতেই শেষ করেননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইটের শেষ বাক্যে তিনি লিখেছেন, ‘গণনা প্রক্রিয়া শেষ হতে দিন এবং ভিভিপ্যাট মিলিয়ে দেখতে দিন।’
উত্তর প্রদেশে গেরুয়াদের শক্ত ঘাঁটি তছনছ করে দেয়ার লক্ষ্য স্থির করেছিল কংগ্রেস। এবার এ জন্য লোকসভা নির্বাচনের আগে দলে আনুষ্ঠানিকভাবে টেনে নেয়া হয়েছিল সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর মেয়ে প্রিয়াংকা গান্ধী ভদ্রকে। হাই প্রোফাইল প্রচারণা হয়েছে এ রাজ্যে। এ রাজ্যের বারানসি হলো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আসন। আর মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের আসন গোরকপুর। এখানে কংগ্রেসের যুব শক্তির মধ্যে উত্থান ঘটাবেন প্রিয়াংকা এমনটাই আশা করা হয়েছিল। কিন্তু যে ফল পাওয়া যাচ্ছে তাতে প্রিয়াংকা গান্ধীর প্রভাব মোটেও কাজ করেনি এ রাজ্যে। বরং এ রাজ্যে কংগ্রেসের দ‚র্গ আমেঠিতে হেরে গিয়েছেন তার ভাই ও কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।
উত্তর প্রদেশে লোকসভার আসন মোট ৮০টি। প্রাথমিক ফলে বিজেপি এগিয়ে আছে ৬০টিরও বেশি আসনে। এখানে মায়াবতী-অখিলেশ যাদব যে জোট করেছিলেন তার ফল খুব সুখকর নয়। তাদের জোট এবার জিতেছে ১৭টি আসন। ২০১৪ সালে বিজেপি এখানে ৭৩টি আসনে জয়ী হয়েছিল। তাদের সঙ্গে ছিল মিত্র আপনা দল। কিন্তু এবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তারা এগিয়ে আছে ৬০টিরও বেশি আসনে।
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মানেকা গান্ধী, সন্তোষ গঙ্গাওয়ার সহ বিজেপির অনেক রথি মহারথি এখানে তাদের প্রতিদ্ব›দ্বীদের থেকে এগিয়ে আছেন। পিলিভিটে মা মানেকা গান্ধীর আসনে নির্বাচন করেছেন গান্ধী পরিবারের আরেক উত্তরসূরি বরুণ গান্ধী। তিনিও এগিয়ে আছেন। অন্যদিকে প্রতিমন্ত্রী রীতা বহুগুনা যোশি নির্বাচন করছেন এলাহাবাদ থেকে। তিনিও এগিয়ে আছেন। রাজ্যে পারিবারিক রাজনীতি সমাজবাদী পার্টির প্রধান মুলায়ম সিং যাদবের। তারা ভাল করছে। মুলায়ম সিং যাদব এগিয়ে আছেন মেইনপুরিতে। আর ছেলে অখিলেশ যাদব এগিয়ে আছেন আজমগড়ে। অখিলেশ যাদবের স্ত্রী ডিম্পল যাদব কান্নাউজ থেকে পুনঃনির্বাচন করছেন। তিনিও এগিয়ে আছেন।
পদত্যাগ করছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী নাইডু
বিজেপির সঙ্গ ছাড়ার পর দেশজুড়ে মহাজোট গঠনের তদবির করেছিলেন চন্দ্রবাবু নাইডু। কিন্তু নিজের রাজ্যই বাঁচাতে পারলেন না তেলুগু দেশম পার্টির প্রধান। মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিতে চলেছেন নাইডু। লোকসভার সঙ্গে অন্ধ্রপ্রদেশ বিধানসভার ভোটে একেবারে ধরাশায়ী হলেন নাইডু। প্রাথমিক ভোটপ্রবণতায় স্পষ্ট, জগন্মোহন রেড্ডির ওয়াইএসআর কংগ্রেস বিজয়ী হতে চলেছে। এখনও পর্যন্ত ১৪৯টি আসনে এগিয়ে ওয়াইএসআর কংগ্রেস। আর চন্দ্রবাবু টিডিপি এগিয়ে ২৫টি আসনে। ১টি আসনে এগিয়ে কন্নড় সুপারস্টার পবন কল্যাণের জনসেনা পার্টি।
লোকসভার ফলে তো আরও করুণ দশা চন্দ্রবাবুর। রাজ্যের ২৫টি আসনের মধ্যে ২৫টিতেই এগিয়ে ওয়াইএসআর কংগ্রেস। ভোটপ্রবণতায় পরাজয় নিশ্চিত হতেই মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিতে চলেছেন চন্দ্রবাবু নাইডু। অন্ধ্রপ্রদেশের মসনদে অভিষেক হতে চলেছে জগন্মোহন রেড্ডির। রাজনৈতিক মহলের মতে, প্রথম থেকে মোদী-শাহের দিকে ঝুঁকেছিলেন জগন্মোহন। এনডিএ-তে যোগ দিতে পারেন তিনি। সূত্র : এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া, জি নিউজ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (12)
Nizam Uddin ২৪ মে, ২০১৯, ১:১২ এএম says : 0
বিশ্বের সবচাইতে বড় গণতান্ত্রিক দেশ ভারত এখন বিশ্বের সবচাইতে বড় সাম্প্রদায়িক দেশ!! যেখানে বিশ্বের সবচাইতে নিকৃষ্ট ধর্মীয় সন্ত্রাসী, দাঙ্গাবাজের গোষ্ঠী জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে আবারও রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসীন হলো!!
Total Reply(0)
নীলাভ্র শ্রাবণ ২৪ মে, ২০১৯, ১:০৯ এএম says : 0
মোদির এই বিজয় বিশ্বকে কেমন প্রভাবিত করবে সেটা মুখ্য ব্যাপার নয় , , আসল ব্যাপারটা হলো ভারতে বসবাসকারী মুসলিমদের উপর একটা চরম নেতিবাচক প্রভাব পড়া শুরু করবে , , মোদি বিগত পাঁচ বছরে হিন্দু উগ্রবাদীদের প্রচণ্ড লাই দিয়েছেন , , , গড়ে তুলেছে নিজস্ব হিন্দু জঙ্গি সংঘঠন, , , এই পাঁচ বছরেই ভারতের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি মুসলিমরা নির্যাতনের শিকার হবে , , , ভারতীয় মুসল্লীদের ধর্মীয় স্বাধীনতায় চরমভাবে আঘাত হানা হবে , , , আরপ্রচুর সংখ্যক মুসলিমদেরকে ভারত থেকে উৎখাত করা হবে , , , , এক্ষেত্রে বাংলাদেশের উপরে আরেকটি বড় রোহিঙ্গাদের মতোই জণগোস্ঠির চাপ আসা এখন খালি কিছু সময় মাত্র .
Total Reply(0)
Syful Islam ২৪ মে, ২০১৯, ১:১১ এএম says : 0
ভারতীয় মুসলিম দের সাথে অমানবিক আচরণ করা হবে,দিনে দুপুরে পিটিয়ে হত্যা করা হবে মুসলিম দের গরু রক্ষার নামে, যেমনটা করা হয়েছিল নির্বাচনের আগে। উগ্রবাদীরা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠবে।মুসলিম দের জন্য কঠিন সময় অপেক্ষা করছে।
Total Reply(0)
Elias Md Akash ২৪ মে, ২০১৯, ১:১১ এএম says : 0
বিশ্বের এক নাম্বার সাম্প্রদায়িক দেশ ভারত এবং তার রয়েছে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় কয়েকটি জঙ্গি গোষ্ঠী, বিজেপি, আরএসএস, শিব সেনা, বজরং, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ।
Total Reply(0)
Lutfur Rahman ২৪ মে, ২০১৯, ১:১২ এএম says : 0
পৃথিবীর কোনো দেশে আর যোগ্য নেতৃত্ব আসার সম্ভাবনা নেই! চারিদিকে তাকালে সেটাই দেখতে পাই। এটাই কেয়ামতের আগের অনেকগুলো লক্ষণের মধ্যে একটা। গুটি কয়েকটা দেশ হয়তো এর ব্যতিক্রম হবে। দিনের পর দিন এসব অযোগ্য লোকদের ফিৎনা দিয়েই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি মহাপ্রলয়ের দিকে। এরা পুরো দুনিয়াটাকে উত্তপ্ত করে তুলবে, এর মাঝে ঈমান নিয়ে সৎভাবে বেঁচে থাকা অনেক কষ্টকর হবে
Total Reply(0)
আমিনুল ইসলাম শাওন ২৪ মে, ২০১৯, ১:১৩ এএম says : 0
মোদির বিজয় এটা প্রমাণ করে যে ভারত একটি সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র যেখানে ধর্মের দোহাই দিয়ে ক্ষমতা সহ সবকিছুই পাওয়া যায়!
Total Reply(0)
নাজমুল আলম পাপন ২৪ মে, ২০১৯, ১:১৩ এএম says : 0
নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় আসার জন্য পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী দোয়া করেছিলেন, ইমরান খান বলেছিলেন মোদীর মত চায়ের দোকানদার যদি আবার ক্ষমতায় আসে তাহলে আমাদের ভারত দখল করতে বেশী সময় লাগবে না. অবশেষে ইমরান খানের দোয়া কবুল হয়েছে---- এখন সামনে কি হয় দেখার অপেক্ষায়
Total Reply(0)
Mohammed Firoj ২৪ মে, ২০১৯, ১:১৩ এএম says : 0
নরেন্দ্র মোদীর কারনে সব চেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হবে ভারতের মুসলমানেরা । সেই একমাত্র লোক পুরো ভারতের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করেছে । আর আমাদের দেশে এসে তারা সাম্প্রদায়িকতার চবক শিখান যারা নিজেরাই একটা উগ্রপন্থী ।
Total Reply(0)
Barfi Masum ২৪ মে, ২০১৯, ১:১৪ এএম says : 0
নরেন্দ্র মোদী বিজয় এর ফলে যে বার্তা আমরা পাচ্ছি তা হচ্ছে আগামী আরো একশ বছর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকবে.. এবং ভারতে বসবাসকারী মুসলমানদের জন্য ভারত হবে একটি মৃত্যুপুরী।
Total Reply(0)
Pabel Ahammed ২৪ মে, ২০১৯, ১:১৪ এএম says : 0
অভিনন্দন নরেন্দ্র মোদি!!! আশা করছি বাংলাদেশের পানি চুক্তি সহ সকল অমিমাংশীত সমস্যা মিটিয়ে উপমহাদেশ আরও সামনের দিকে অগ্রসর হব।
Total Reply(0)
Monir Howlader ২৪ মে, ২০১৯, ১:১৫ এএম says : 0
তার এ বিজয় ভারতের গনতন্ত্রে প্রথম বারের মত কালি একে এলো । তার এ বিজয়ে দেশটির মুসলিমদের আরেক বার নির্যাতন এর মুখে পড়তে হল ।
Total Reply(0)
Mohammed Kowaj Ali khan ২৪ মে, ২০১৯, ৭:০০ এএম says : 0
মুদি যাও যাও জাহান্নামে যাও। তুমার এই বীজয় প্রমাণ করে তুমি একটা ভোট চুর। কারণ তুমাকে কোনো মানব ভোট দিতে পারে না যাহারা তুমাকে ভোট দিবে ওরা হইবে অমানুষ। ভোট চুন্নি, ভোট চুন্নি, ভোট চুন্নি একটাই এই পৃথিবীতে আর তুমি মোদি একটা ভোট চুর। চুর আর চুন্নি এই পৃথীবীতে ধিক্কৃত। আখেরাতে ও। ইনশাআল্লাহ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন