ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

ব্যাংককে প্রথমদিনের অনুশীলনে জাতীয় দল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ মে, ২০১৯, ৮:৪২ পিএম

২০২২ কাতার বিশ্বকাপ প্রাক-বাছাইকে সামনে রেখে বর্তমানে থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে কন্ডিশনিং ক্যাম্প করছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। শুক্রবার দুপুরে ২৩ ফুটবলাকে নিয়ে উড়াল দিয়ে বিকেলে ব্যাংকক পৌঁছেছেন বাংলাদেশের ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে। সেখানে পৌঁছে হোটেলেই বিশ্রামে দিনের বাকি সময় কাটিয়েছেন বাংলাদেশের ফুটবলাররা। তবে শনিবার সকালেই অনুশীলনে নেমে পড়ে জামাল ভূঁইয়া বাহিনী। ব্যাংককের এয়ার ফোর্স ফুটবল গ্রাউন্ডে এদিন সকালে দেড় ঘন্টা অনুশীলন করে বাংলাদেশ দল। মাঠের অনুশীলন শেষে কিছু সময় সুইমিং সেশন করে কাটান মামুনুল-সুফিলরা।

আগামী ৬ জুন লাওসের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে লাল-সবুজদের কাতার বিশ্বকাপ মিশন। এটি বিশ্বকাপ বাছাইয়ের এশিয়া অঞ্চলের প্রথম পর্বের ম্যাচ। ভিয়েনতিয়েনে এ ম্যাচ খেলার পর লাল-সবুজরা লাওসের বিপক্ষে ফিরতি ম্যাচ খেলবে ১১ জুন ঢাকায়। লাওসের বিপক্ষে জিতলে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের পরের রাউন্ডে যাবে বাংলাদেশ। আর হারলে আগামী চার বছর ফিফা-এফসির ম্যাচের বাইরে থাকতে হবে লাল-সবুজদের। তাই বলা যায় লাওস এখন বাংলাদেশের ফুটবলের জন্য এক চ্যালেঞ্জের নাম। লাওস ম্যাচকে সামনে রেখেই ১০ দিনের প্রস্তুতি ক্যাম্প করতে এখন থাইল্যান্ড রয়েছেন জামাল ভুঁইয়ারা। সেখানে অনুশীলনের পাশাপাশি থাইল্যান্ডের স্থানীয় দুই ক্লাবের বিপক্ষে দু’টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন তারা। ২৮ মে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে এয়ার ফোর্স ইউনাইটেড এফসি’র মুখোমুখি হবে লাল-সবুজরা। ব্যাংকক এয়ার ফোর্স ফুটবল গ্রাউন্ডে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। ১ জুন দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যাংকক গ্লাস পাথুম ইউনাইটেড এফসি’র বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ জাতীয় দল। থানিয়াবুড়ি লিও স্টেডিয়ামে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। এ দু’টি ক্লাবই গত মৌসুমে থাই লিগ-১ থেকে অবনমনে গেছে। বর্তমানে তারা খেলছে থাই লিগ-২ তে। এয়ার ফোর্স ইউনাইটেড ক্লাবটিতে চারজন বিদেশি খেলোয়াড় আছেন। ফ্রান্স, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও আফগানিস্তানের একজন করে খেলোয়াড় আছে দলটিতে। ব্যাংকক গ্লাস পাথুম ইউনাইটেডে আছেন দুই জন ব্রাজিলিয়ান এবং একজন করে স্পেন, জাপান ও সিঙ্গাপুরের ফুটবলার। এদের বিপক্ষে নিজেদের শক্তি পরীক্ষা শেষে কোচ জেমি ডে’র দল ব্যাংকক থেকে লাওস রওয়ানা হবে ৩ জুন। লাওস পৌঁছার পর রাজধানী ভিয়েনতিয়েনে ৬ জুন স্বাগতিক দলের বিপক্ষে প্রথম বিশ্বকাপ পরীক্ষা দিতে নামবে বাংলাদেশ।

সর্বশেষ রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইয়ের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে শুরু করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে দিন দিন পিছিয়ে পড়ায় বাংলাদেশকে এবার শুরু করতে হচ্ছে আরো এক ধাপ নিচ থেকে। হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ সুযোগ পাবে পরের রাউন্ডে ওঠার। চার বছর আগে যেখান থেকে বিশ্বকাপ বাছাই শুরু করেছিল তারা।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন