ঢাকা, বুধবার ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

আ’লীগ নেতা হত্যার প্রতিবাদে বান্দরবানে রোববার অর্ধদিবস হরতাল

জেএসএস নেতাসহ আটক ৫

বান্দরবান থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ মে, ২০১৯, ১০:০৪ পিএম

বান্দরবানে অপহৃত আওয়ামী লীগ নেতা চ থোয়াই মং মারমার হত্যার ঘটনায় পুলিশ জনসংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সম্পাদক আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কেএস মং মারমাসহ ৫ জনকে আটক করেছে।
শনিবার বিকেলে সেনাবাহিনী তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করার পর পুলিশ তাদের আটক করে।
আটক অন্যরা হলেন জনসংহতি সমিতির জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ক্যবামং মারমা, মৌজা হেডম্যান থৈলা প্রু মারমা ও জর্ডান পাড়ার পাড়া প্রধান মংহলা ত্রিপুরা।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম জানান, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পরে তাদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
এদিকে আওয়ামী লীগ নেতা হত্যার প্রতিবাদে রোববার জেলায় অর্ধদিবস হরতাল ডেকেছে জেলা আওয়ামী লীগ। শনিবার দুপুরে সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চ থোয়াই মং মারমার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধারের পর নেতারা এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। ভোর ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ৭ উপজেলায় হরতাল পালন করা হবে বলে নেতারা জানিয়েছেন।
গত বুধবার রাতে সদর উপজেলার উজিমুখ পাড়ার খামার বাড়ি থেকে একদল সশন্ত্র সন্ত্রাসী পৌর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও বান্দরবান পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর চ থোয়াই মং মারমাকে অপহরণ করে। আজ শনিবার দুপুরে জর্ডান পাড়ার কাছে শিলক খালের আগার ঝিরি নাম স্থান থেকে পুলিশ ও স্থানীয়রা ওই নেতার অর্ধগলি লাশ উদ্ধার করে। বিকেলে সদর হাসপাতালে লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। সন্ধ্যায় লাশের সৎকার করা হয়। বিকেলে লাশ উদ্ধার করে জেলা শহরে নিয়ে আসা হয়।
এদিকে অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কায় শহরের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনার সাথে কারা জড়িত তা জানা না গেলেও আওয়ামী লীগ এ ঘটনার জন্য আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করেছে। যদিও জনসংহতি সমিতির নেতারা এ ঘটনার সাথে তাদের সম্পৃক্ততা নেই বলে দাবি করেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন