ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

নজরুলের জন্মবার্ষিকী পালিত

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২০তম জন্মবার্ষিকী পালিত হয়েছে। গতকাল শনিবার এ উপলক্ষে সারাদেশে কর্মসূচি পালিত হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কেন্দ্রীয় মসজিদ সংলগ্ন কবির সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও স্মরণ শোভার আয়োজন করে ঢাবি প্রশাসন। ময়মনসিংহে শুরু হয়েছে ৩দিনব্যাপী নজরুল জন্ম জয়ন্তী। এছাড়াও দেশের বিভিন্ন জেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে দিবসটি উপলক্ষে কর্মসূচি পালন করা হয়। দিবসটিতে এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল “নজরুল চেতনায় বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ।”
শনিবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কেন্দ্রীয় মসজিদ সংলগ্ন কবির সমাধিতে ঢাবি ভিসি প্রফেসর ড. মো. আখতারুজ্জামানের নেতৃত্বে বিশ্ববিদালয়ের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ শোভাযাত্রা সহকারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে কবির মাজার প্রাঙ্গণে ভিসির সভাপতিত্বে এক স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রফেসর ড. রফিকুল ইসলাম, ঢাবি প্রো-ভিসি (প্রশাসন) প্রফেসর ড. মুহাম্মদ সামাদ, কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. কামাল উদ্দীন এবং ঢাবি নজরুল গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক অধ্যাপক ড. বেগম আকতার কামাল।
বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. ভীষ্মদেব চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মো. এনামউজ্জামান। এতে নজরুল সংগীত পরিবেশন করেন সংগীত বিভাগের শিক্ষক ড. মহসিনা আক্তার খানম (লীনা তাপসী), খায়রুল আনাম শাকিলসহ বিভাগের শিক্ষার্থীরা। সভাপতির বক্তব্যে ঢাবি ভিসি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে অসাম্প্রদায়িক চেতনার, সম্প্রীতির, সাম্যের ও মানবতার কবি হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, তিনি সবসময় অন্যায়-অত্যাচারের বিরুদ্ধে ও অসাম্যের বিরুদ্ধে দৃঢ়ভাবে প্রতিবাদী ছিলেন। তাঁর লেখা গান, কবিতা, গল্প ও উপন্যাস আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধে সকলকে উদ্বুদ্ধ করেছেন।
ময়মনসিংহের ত্রিশালে দিবসটি উপলক্ষে কবির স্মৃতি বিজড়িত দরিরামপুর নজরুল একাডেমী স্কুল প্রাঙ্গণে শুরু হয়েছে নজরুল জন্ম জয়ন্তী। ২৫ মে থেকে শুরু হয়ে এ আয়োজন চলবে ২৭ মে পর্যন্ত। নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়সহ স্থানীয় বিভিন্ন ক্লাব ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে অনুষ্ঠানস্থলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।
দিবসটি উপলক্ষে কর্মসূচি গ্রহণ করে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়। এদিন সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল কনফারেন্স কক্ষে আন্তর্জাতিক সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন